জিয়ানগর উপজেলার নাম বদলে আবারও ইন্দুরকানী

নিজস্ব প্রতিবেদক: চারদলীয় জোট সরকার পিরোজপুরের একটি উপজেলার নাম দিয়েছিল ‘জিয়ানগর’। সে নাম বদলে আবারও সাবেক নাম ‘ইন্দুরকানী’তে ফিরেছে সরকার। এছাড়াও কুমিল্লা জেলায় ‘লালমাই’ নামে পৃথক একটি উপজেলা সৃজনের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত ন্যাশনাল ইমিপ্লিমেন্টেশন কমিটি ফর অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ রিকন্সট্রাকশন অ্যান্ড রিফর্ম (নিকার) সভায় এ প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়। সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শফিউল আলম বলেন, ‘জিয়ানগরের নাম বদল করে ‘ইন্দুরকানী’ করার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ওই সভায় বলা হয়, ওই থানার নাম ইন্দুরকানী হলেও উপজেলার নাম জিয়ানগর। ফলে দুটো পৃথক নাম হওয়ায় জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়। এই বিভ্রান্তি দূর করতেই থানা ও উপজেলার নাম একই রেখে ‘ইন্দুরকানী’ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

উপজেলাটির নাম বদল করায় এখন এর প্রশাসনিক সব কাগজপত্র সংশোধন করতে হবে। উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ১৭ এপ্রিল তদানীন্তন চারদলীয় জোট সরকারের সময় উপজেলাটির নাম ইন্দুরকানী থেকে জিয়ানগর করা হয়েছিল।’

তিনি আরও বলেন, ‘সভায় কুমিল্লা জেলায় লালমাই নামে নতুন একটি উপজেলা গঠন করার প্রস্তাবও গ্রহণ করা হয়েছে। এ উপজেলায় ৯টি ইউনিয়ন থাকবে। কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থেকে আটটি এবং লাকসাম থেকে একটি ইউনিয়ন নিয়ে এ উপজেলা গঠিত হবে। উপজেলার সদর দফতর জয়নগর মৌজায় করার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি হবে দেশের ৪৯১তম উপজেলা। এখানের লোকসংখ্যা ২ লাখ ২০ হাজার ৩২ জন, আয়তন ১৪৭ দশমিক ০৩ বর্গ কিলোমিটার।’

এছাড়া চট্টগ্রাম জেলার চান্দনাইশ উপজেলার দোহাজারি ইউনিয়নকে পৌরসভা করার প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

তিনি বলেন, ‘পৌরসভা করার শর্তগুলো মধ্যে রয়েছে- ওই এলাকার জনসংখ্যা থাকবে ৫০ হাজার এবং বার্ষিক আয় হতে হবে ২০ লাখ টাকা। দোহাজারির বর্তমান লোকসংখ্যা ৫৬ হাজার ৬৩৩ জন এবং বার্ষিক আয় ৭৬ লাখ। এখানের ৭৬ শতাংশ কৃষি জমি।’

গ্যাসের পাইপলাইন নির্মাণের জন্য ১৩,৩৫৬টি গাছ কাটা হবে

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY