নবম ওয়েজ বোর্ড গঠনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছে বিএফইউজে

ফাইল ফটো

এওয়ান নিউজ, ঢাকা: বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড গঠনে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছে। রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবের নিজস্ব কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বিএফইউজে’র নির্বাহী কমিটির ঢাকায় উপস্থিত সদস্যদের এক সভায় এ হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, রাষ্ট্রপতির নৈতিক সমর্থন এবং প্রধানমন্ত্রীর বারবার ঘোষণার পরও নবম ওয়েজ বোর্ড ঘোষণার ব্যাপারে চাতুরীপূর্ণ আচরণ করে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সময়ক্ষেপণ ও প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করায় দেশের গণমাধ্যম কর্মীরা চরম ক্ষুব্ধ ও হতাশ। তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতি আর আস্থা রাখা যাচ্ছে না বলেই সভায় এ বিষয়ে উদ্যোগ নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

বিএফইউজে সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি জাফর ওয়াজেদ, শহিদুল আলম, মহাসচিব ওমর ফারুক, কোষাধ্যক্ষ মধুসূদন মন্ডল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, বিএফইউজে নির্বাহী পরিষদের সদস্য স্বপন দাশগুপ্ত, সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, মফিদা আকবর প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, নবম ওয়েজ বোর্ডের দাবিতে বিএফইউজে ঘোষিত আন্দোলনের মুখে তথ্য মন্ত্রণালয়, সাংবাদিক নেতাদের আলোচনায় বসার আহ্বান জানান। আলোচনার এক পর্যায়ে স্বয়ং মন্ত্রী এবং সচিব আনুষ্ঠানিক বৈঠকে ঘোষণা দেন ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন করা হবে। কিন্তু তাদের নিজেদের ঘোষিত সময়সীমার পর এক সপ্তাহ অতিক্রান্ত হলেও মন্ত্রী বা সচিব কেউ কথা রাখেননি বরং নানা বৈঠকের নামে কালক্ষেপণ করে চলেছে।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, যে কারণে এই মন্ত্রী ও সচিবের আশ্বাসের প্রতি আর আস্থা রাখা যায় না।সভায় বলা হয়, মন্ত্রণালয়ের এ ধীরগতির কারণে নানা অমূলক বক্তব্য নিয়ে মাঠে দৃশ্যমান হয়েছে মালিকদের সংগঠন নোয়াব। সভায় বলা হয়, বোর্ড বৈঠকে বসেই নোয়াবের সাথে যৌক্তিক আলোচনায় অংশ নিতে ইউনিয়ন প্রস্তুত। কিন্তু কোন অজুহাতেই বোর্ড গঠন বিলম্বিত করার কৌশল মেনে নেয়া হবে না।

সভায় বোর্ড গঠন ছাড়া তথ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে আর কোন আলোচনায় অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয়, আগামী ১৭ জানুয়ারির মধ্যে নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন করা না হলে ১৮ জানুয়ারি সারাদেশে সাংবাদিক সমাবেশ থেকে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। ১৮ জানুয়ারি সমাবেশ সফল করার জন্য সকল অঙ্গ ইউনিয়নকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও এ সভায় জানানো হয়।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY