‘নির্বোধ’ ও ‘বোকা’-রাই রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সুসম্পর্কের বিরোধিতা করে: ট্রাম্প

অনলাইন ডেস্ক:‘নির্বোধ’ ও ‘বোকা’-রাই শুধু রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সুসম্পর্কের বিরোধিতা করে। শনিবার টুইটারে দেওয়া পোস্টে এমন মন্তব্য করেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ সংক্রান্ত গোয়েন্দা প্রতিবেদন শুক্রবার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টের হাতে তুলে দেওয়া হয়। আর ঠিক এর পরদিনই এমন মন্তব্য করলেন তিনি। বার্তা সংস্থা এপি বলছে, গোয়েন্দারা যেন ট্রাম্পকে ক্ষমতায় আনার ব্যাপারে রাশিয়ার ভূমিকা সম্পর্কে তাকে কিছুই ব্রিফ করেনি!

শনিবার ধারাবাহিক টুইট বার্তায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘রাশিয়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখা একটা ভালো বিষয়। এটা খারাপ কিছু না।’তিনি বলেন, বারাক ওবামা প্রশাসনের চেয়ে ট্রাম্প প্রশাসনকে রাশিয়া আরও অনেক বেশি সম্মান প্রদর্শন করবে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ব্যাপারে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর মূল্যায়নের বিষয়ে ট্রাম্পের কাছে এর আগেও একাধিকবার জানতে চাওয়া হয়েছিল। শুক্রবার তার কাছে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন উপস্থাপনের পরও তার মনোভাবে সামান্যই পরিবর্তন হয়েছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।

বহুল আলোচিত ওই প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অনধিকারচর্চার জন্য রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে দোষারোপ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের বিরুদ্ধে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্পষ্ট পক্ষপাত ছিল।

ট্রাম্প অবশ্য বরাবরই বলে আসছেন, নভেম্বরে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলে বিদেশি শক্তির হ্যাকিংয়ের কোনও প্রভাব ছিল না।

এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, রাশিয়া, চীনসহ অপর দেশ এবং বাইরের বিভিন্ন গোষ্ঠী ও ব্যক্তি ধারাবাহিকভাবে আমাদের সরকারি ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও সংস্থায় সাইবার হামলা চালাতে কাজ করে যাচ্ছে। এর মধ্যে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ন্যাশনাল কমিটিও রয়েছে। তবে নির্বাচনের ফলে এ হ্যাকিংয়ের কোনও প্রভাব ছিল না।

‘পৃথিবীর ওপর চেপে বসা অনেক সমস্যা ও ইস্যুগুলোর মধ্যে কয়েকটির সমাধানে’ রাশিয়ার সঙ্গে একযোগে কাজ করারও অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট। সূত্র: এপি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY