৭২ ঘণ্টার মধ্যে সাংবাদিক শিমুল হত্যাকারীকে গ্রেফতার করতে হবে: ডিআরইউ সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলকে গুলি করে হত্যায় অভিযুক্ত সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা। তা নাহলে দেশের সকল সাংবাদিক সংগঠন ঐক্যবদ্ধভাবে একটি সুনির্দিষ্ট রুপরেখা তৈরি করে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে রবিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় ঢাকাস্থ সিরাজগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির উদ্যোগে ‘ সিরাজগঞ্জের শাহজাপুরে সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের খুনীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিআরইউ সভাপতি বলেন, আজকে মুক্ত স্বাধীন গণমাধ্যম নেই, সাংবাদিকরা প্রতিনিয়ত নির্যাতিত হচ্ছে। মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আপনাকে বলতে চাই পুলিশ যখন প্রকাশ্যে সাংবাদিক নির্যাতন করে তখন আপনি বলেন ধাক্কা ধাক্কি হয়েছে। এমন কথা আপনার মুখে সভা পায় না।

সকল সাংবাদিকদের উপর হত্যা ও নির্যাতনের বিচার দাবি করে তিনি আরও বলেন, গুলিতে নিহত সমকাল পত্রিকার সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের হত্যাকারীদের আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার না করা হলে দেশের সকল সাংবাদিক সংগঠন মিলে একটি সুনির্দিষ্ট রুপরেখা তৈরি করে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেন, শাহবাগে সাংবাদিকদের উপর নির্যাতন করা হল, রাজনৈতিক দলের অভ্যান্তরিণ কোন্দলে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সমকালের সাংবাদিককে প্রাণ দিতে হল। আমরা এ সমস্ত ঘটনায় পুলিশের লোক দেখানো তদন্ত চাই না। অপরধীরা যত ক্ষমতাবানই হোক না কেন আমরা তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করছি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াস খান বলেন, অবিলম্বের শিমুল হত্যাকারীকে গ্রেফতার করে বিচারের মুখামুখি করতে হবে। অতীতের সকল সাংবাদিক হত্যার বিচার করতে হবে। কোনো গণতান্ত্রিক সরকারের আমলে সাংবাদিক নির্যাতন গ্রহণযোগ্য নয়।

ডিআরইউ-এর সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী বলেন, সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার বিচার আমরা এখনো পাইনি। কিছুদিন যাবত সাংবাদিকদের উপর নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে গেছে। এ অবস্থায় সাংবাদিক সমাজ নিরব থাকতে পারে না। তাই দ্রুত সকল সাংবাদিকদের উপর নির্যাতন ও হত্যাকারীদের দ্রুত শাস্তির দাবি করছি।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শামসুল আলম সেতুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কাওসার আজমের সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএফইউজের সাবেক কোষাধ্যক্ষ ও রাজশাহী বিভাগ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি খায়রুজ্জামান কামাল, ডিআরইউ সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, সিরাজগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির (সিসাস) সহ-সভাপতি সুমন মুস্তাফিজ, যুগ্ম সম্পাদক এমএ মান্নান, অর্থ সম্পাদক মোস্তফা জাহাঙ্গীর আলম, সাংবাদিক নেতা খন্দকার গোলাম আজাদ, সিরাজগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির কার্যনির্বাহী নির্বাহি সদস্য আবু আলী, মাসুম বিল্লাহ, ওমর আজম, রফিকুল ইসলাম রনি প্রমুখ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY