আগামীতেও বিএনপিকে সংসদের বাইরেই থাকতে হবে: হানিফ

এ ওয়ান নিউজ, ঢাকা: আগামীতেও বিএনপিকে সংসদের বাইরেই থাকতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫৩তম জন্মদিনে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, উন্নয়ন হচ্ছে। এ উন্নয়নকে ব্যাহত করতে বিএনপি-জামায়াত এখনও অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে’।

‘এর দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না। এর জন্য খালেদা জিয়াকে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। বিচারে শাস্তি পেতে হবে। শাস্তি হলে নির্বাচনে আর অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। বিএনপিকে সংসদের বাইরেই থাকতে হবে। সংসদে আর যাওয়া হবে না’।

সকালে ধানমণ্ডির প্রিয়াংকা কমিউনিটি সেন্টারে এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তরের সভাপতি একেএম রহমতউল্লাহ।

হানিফ বলেন, ‘চীনের প্রেসিডেন্ট খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাতের মধ্য দিয়ে একটি বার্তা দিয়ে গেছেন বলে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বলেছেন। গ্রামে একটা কথা আছে, ‘পাগলের সুখ মনে মনে’।

‘চীনের প্রেসিডেন্ট সফরে এসে বাংলাদেশের উন্নয়নে আর্থিক সহযোগিতাসহ শেখ হাসিনার সরকারের প্রতি সমর্থন দিয়ে গেছেন। খালেদা জিয়াকে চীনের প্রেসিডেন্ট সাক্ষাৎ দেওয়ায় আপনারা যে আপ্লুত হয়েছেন, সেই সুখ নিয়ে থাকেন’।

তিনি শেখ রাসেলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ‘আজকের দিনে আমাদের প্রত্যাশা, শেখ রাসেলসহ সপরিবারে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী সাজাপ্রাপ্ত যারা এখন বিদেশে পালিয়ে আছেন, তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করা। তাহলেই বাংলাদেশ পরিপূর্ণ ভাবে কলঙ্কমুক্ত হবে’।

হানিফ বলেন, স্বাধীনতাবিরোধীদের দোসর বিএনপি-জামায়াত সরকারের উন্নয়নকে নস্যাৎ করতে এখনও সক্রিয়। এখনও তারা অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান প্রমুখ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY