চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুই জেএমবির ২০ বছরের জেল

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুটি অস্ত্র মামলায় নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির দুই সদস্যকে ২০ বছরের সাজার রায় হয়েছে।বুধবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিশেষ ট্রাইব্যুন্যাল-২ এর বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান সাত বছর আগের এ দুই মামলার রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- গোমস্তাপুর উপজেলার কলাইদিয়াড় গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে মমিন (২৮) ও ভোলাহাট উপজেলার খড়কপুর ঘুনটোলা গ্রামের তোফাজ্জল হকের ছেলে রমজান আলী (৩১)। রায় ঘোষণার সময় মমিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রমজান আলী পলাতক বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী জবদুল হক জানান।

মামলার বিবরণে জানা যায়, শিবগঞ্জ উপজেলার খড়গপুর এলাকা থেকে ২০০৯ সালের ১৪ জুন পাঁচটি গুলি, অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম ও জিহাদি বইসহ মমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই দিনই শিবগঞ্জ থানার এসআই আমিনুল ইসলাম মামলা করেন।

তদন্ত শেষে এসআই মিজানুর রহমান মমিনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বুধবার আসামি মমিনের উপস্থিাতিতে তার সাজার আদেশ দেয় আদালত।

জবদুল জানান, মমিনের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ২০০৯ সালের ১৭ জুন ভোলাহাট উপজেলার খড়কপুরঘুটোলা এলাকার রমজানের বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তিনি পালিয়ে গেলেও ওই বাড়ি থেকে একটি ওয়ান শুটারগান ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

ওই ঘটনায় এসআই মিজানুর রহমান ভোলাহাট থানায় রমজান ও মমিনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তদন্ত শেষে ওই বছরের ১৪ অগাস্ট দুই জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন এসআই ওহিদুজ্জামান।

রায়ে বিচারক রমজানকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দিলেও মমিনকে এ মামলা থেকে খালাস দেন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY