দেশের স্বার্থকে অগ্রাধিকার দিয়ে পররাষ্ট্রনীতি নির্ধারণের পরামর্শ বি চৌধুরীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের স্বার্থকে অগ্রাধিকার দিয়ে পররাষ্ট্রনীতি নির্ধারণের পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। মঙ্গলবার সকাল ১১.০০টায় রাজধানীর ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশন মিলনায়তনে ভাষা মতিন-এর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী ও চাষী নজরুল ইসলামের ৭৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গণ সংস্কৃতি দল এক স্মরণ সভা আয়োজন করে।

তিনি বলেন, নিজেদের স্বার্থেই প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ক বজায় রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে কে সন্ত্রাসী, বা কে কার বিরোধী সেটা আমাদের বিবেচ্য বিষয় নয়। দেশের প্রয়োজনে আমাদের স্বার্থপর হতে হবে।

বর্তমানে শিক্ষিত তরুণ প্রজন্ম বর্তমান রাজনৈতিক সংস্কৃতি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে মন্তব্য করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, তরুণরাই রাজনীততে পরিবর্তন নিয়ে আসবে। এটাকে ঠেকানো যাবে না।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ দেশে বসে প্রতিবেশী বন্ধুদের সকল চ্যানেল দেখি, কিন্তু তারা আমাদের কোন চ্যানেল দেখার সুযোগ পায় না। চাষী নজরুল ইসলাম বেঁচে থাকতে দেশীয় সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করার জন্য সংগ্রাম করেছিলেন।

তিনি আরো বলেন, রাষ্ট্রভাষা বাংলার জন্য ভাষা মতিন যে অবদান রেখেছেন তা যারা অস্বীকার করেন তারা তরুণ প্রজন্মের কাছে ঘৃণিত হয়ে থাকবেন। তিনি ভাষা মতিন সম্পর্কে আরো বলেন, আমাদের সংকীর্ণতার কারণে যথাযথ মর্যাদা ভাষা মতিনকে আমরা দিতে পারিনি। ভবিষ্যতে গুণীজনদেরকে যদি আমরা মূল্যায়ন করতে না পারি তাহলে আমাদের করুণ পরিণতি হবে।

এরকম সময়োপযোগী আয়োজনের জন্য গণ সংস্কৃতি দলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, দেশের জন্য যারা জীবন উৎসর্গ করেছেন এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে তাদের আমরা যত বেশি শ্রদ্ধা জানাতে পারব, স্মরণ করতে পারব, তত বেশি এই জাতি আলোকিত হবে, সমৃদ্ধ হবে।

গণ সংস্কৃতি দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস আল মামুনের সভাপতিত্বে মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর এমাজউদ্দিন আহমেদ। স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন ভাষা মতিনের স্ত্রী গুলবদুন্নেসা মতিন। চাষী নজরুল ইসলামের স্ত্রী জ্যোৎস্না কাজী, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এনডিপি’র চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মর্তুজা, বিএনপি’র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা, ঢাবি’র শিক্ষক অধ্যাপক সুকোমল বড়–য়া, নজমুল হক নান্নু, সাবেক সংসদ সদস্য, ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি ডা. দেওয়ান সালাউদ্দিন বাবু, বাংলাদেশ ন্যাপ’র মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া, এনডিপি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা, কল্যাণ পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান সাহেদুর রহমান তামান্না, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক, কর্মজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন সরদার-সহ প্রমুখ।

প্রধান বক্তা এমাজউদ্দিন আহমেদ বলেন, ভাষা মতিন ছিল রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের অন্যতম সিপাহসালার। তিনি সেদিন যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ও অবদান রেখেছেন তা কোনভাবেই অস্বীকার করা যায় না। মহান মুক্তিযুদ্ধে চাষী নজরুল ইসলামের অবদানও অপরিসীম।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY