বাংলাদেশের মানুষদের কষ্টসহিষ্ণু বললেন জিম ইয়ং কিম

অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ পরিশ্রমী। তারা কোনো কাজে পিছিয়ে পড়ে না। এ দেশে বিনিয়োগ আরো বাড়ানোর পরিকল্পনা আছে বিশ্বব্যাংকের।

আজ মঙ্গলবার সকালে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা রাকুদিয়ায় বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় পরিচালিত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন জিম ইয়ং কিম।

বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘বাংলাদেশের লোকজন খুবই কষ্টসহিষ্ণু। তারা কঠোর পরিশ্রমী এবং তাদের পারস্পরিক মেলবন্ধন দারুণ। এ ধরনের প্রকল্পের কারণে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের প্রতি অঙ্গীকার ও বিনিয়োগ আরো বাড়াবে।’

জিম ইয়ং কিম বলেন, এ দেশের দরিদ্র নারীদের উন্নয়নে আরো অর্থ সাহায্য দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে বিশ্বব্যাংকের। বিভিন্ন প্রকল্পে উপকারভোগী সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে তিনি সন্তুষ্ট হয়েছেন।

আজ সকাল সাড়ে ৮টায় হেলিকপ্টারযোগে বরিশাল বিমানবন্দরে পৌঁছান জিম ইয়ং কিম। সেখান থেকে সরাসরি যান বাবুগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রাকুদিয়া গ্রামের ‘রাকুদিয়া গ্রাম সমিতি’ পরিদর্শনে। বিশ্বব্যাংকের অর্থসহায়তায় গ্রামীণ দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করার বেশ কয়েকটি প্রকল্প নিয়ে এই সমিতির নামে কাজ করছে ‘সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন’ নামের একটি বেসরকারি সংস্থা।

বাবুগঞ্জ উপজেলায় প্রকল্প পরিদর্শন শেষে উজিরপুর উপজেলার ভরসাকাঠী গ্রামের ভরসাকাঠী প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেন্টার পরিদর্শন করেন বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট। সেখানে স্থাপিত সোলার প্যানেলের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থাও ঘুরে দেখেন তিনি। পরে ঢাকার উদ্দেশে বরিশাল ছাড়েন জিম ইয়ং কিম।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY