রিজার্ভ চুরিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের লোক জড়িত : ফিলিপিনো ব্যাংক

জন গোমেজের সমালোচনা, আর কোন টাকা দেবে না : এবিএস-সিবিএন নিউজ

এ ওয়ান নিউজ ডেস্ক: নিউইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার চুরির জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের অবহেলাকেই দায়ী করেছে ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশন। এ কারণেই আর কোন টাকা দেবে না বাংলাদেশকে।

এছাড়াও ফিলিপাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জন গোমেজের সমালোচনা করে প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, অনৈতিকভাবে গণমাধ্যমকে ব্যবহার করে ফিলিপাইন সরকারকে অর্থ পরিশোধ করতে চাপ দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। আরসিবিসি ব্যাংকের পরামর্শক থিয়া ডায়েথ বলেছেন, এ চুরি সম্পূর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংকের অবহেলারি কারণেই হয়েছে। তাছাড়া আমরা বাংলাদেশ ব্যাংককে বলেছি তারা যাতে ফিলিপাইন সরকারের কাছে যথার্থ প্রমাণ উপস্থাপন করে এবং প্রকৃতপক্ষে কারা এই চুরির জন্য দায়ী তাদের চিহ্নিত করে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংককে আর কোন অর্থ দেবে না রিজাল ব্যাংক। এছাড়াও বাংলাদেশ ব্যাংককে তাদের নিজস্ব তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে দোষীদের চিহ্নিত করারও আহ্বান জানান দায়েপ।

উল্লেখ্য, এই বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে নিউইয়র্ক ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার ফিলিপাইনের আরসিবিসি ব্যাংকের জুপিটার শাখায় স্থানান্তর করে অজ্ঞাত হ্যাকারেরা। যার বেশির ভাগ অর্থই ফিলিপিন মুদ্রা পেসোয় রূপান্তরিত হয়ে ক্যাসিনোয় চলে যায়। ক্যাসিনো থেকে অর্থ আদায়ের দুর্বল ব্যবস্থার কারণে সেখান থেকে মাত্র ১৮ মিলিয়ন ডলার উদ্ধার করতে পেরেছে ফিলিপাইন কর্তৃপক্ষ।

এই ঘটনায় ইচ্ছাকৃতভাবে সন্দেহজনক লেনদেনসমূহ সংঘটিত হতে দেয়ায় রিজাল ব্যাংকের এক কোষাধ্যক্ষসহ পাঁচ কর্মকর্তাকে অভিযুক্ত করে ফিলিপাইনের এন্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিল। এছাড়াও এ ঘটনায় ব্যাংকটিকে রেকর্ড ১ বিলিয়ন পরিমাণ জরিমানা করে কর্তৃপক্ষ। সূত্র : এবিএস-সিবিএন নিউজ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY