রিয়ালের গোলোৎসবের দিন জয় পেল জুভেন্টাস-লেস্টারও

ক্রীড়া ডেস্ক : চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের তৃতীয় ম্যাচে গোল-উৎসব করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। মঙ্গলবার রাতে ঘরের মাঠে লেগিয়া ওয়ারশকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল। এর মধ্য দিয়ে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতার আগের ম্যাচে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে ২-২ গোলের ড্রয়ের হতাশা কাটিয়ে ছন্দে ফিরলো সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর দলটি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের তৃতীয় ম্যাচে এটি রিয়াল মাদ্রিদের দ্বিতীয় জয়। মঙ্গলবারের জয়ের মধ্য দিয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ২৩ ম্যাচ অপরাজিত রইলো রিয়াল।

লস ব্লাঙ্কোসদের হয়ে একটি করে গোল করেন গ্যারেথ বেল, মার্কো আসেননিও, লুকাস ভ্যাকুয়েস ও আলভেরো মোরাতা। অপর গোলটি আত্মঘাতী। লেগিয়া ওয়ারশর হয়ে একমাত্র গোলটি করেন মিরোস্লাভ রাদোভিক।

মঙ্গলবার সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে অনুষ্ঠিত খেলার ১৬তম মিনিটেই এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। বাম প্রান্ত থেকে কোনাকুনি জোরালো শটে অতিথি দলের গোলরক্ষককে পরাস্ত করে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন বেল। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটাই বেলের প্রথম গোল।

দুই মিনিট পর আত্মঘাতী গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ হয় রিয়াল মাদ্রিদের। ১৮তম মিনিটে ২০ গজ দূর থেকে বুলেটগতির শট নেন মার্সেলো। সেই বল অতিথি দলের ডিফেন্ডার তমাস ইয়োদুয়োভিসের গায়ে লেগে দিক পরিবর্তন করে জালে আশ্রয় নিলে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় জিদানের দল।

চার মিনিট পর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর স্বাগতিক দর্শকদের হতাশ করে ব্যবধান কমায় লেগিয়া ওয়ারশ। নিজেদের বক্সের ভেতর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানিলো অতিথি দলের রাদোভিককে ফেলে দিলে রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। স্পট-কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি এই সার্বিয়ান মিডফিল্ডার।

বিরতির আট মিনিট আগে আসেনসিওর গোলে জয়ের পথ তৈরি হয় রিয়াল মাদ্রিদের। দানিলোর নিচু ক্রস থেকে বল পেয়ে বক্সের ভেতর অরক্ষিত থাকা আসেনসিওকে পাস বাড়ান রোনালদো। সেই বলে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল করে দলকে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে নেন এই স্প্যানিশ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার।

বিরতির পর আক্রমণাত্মক খেলা অব্যাহত রাখলেও চতুর্থ গোলের জন্য ৬৮ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় রিয়াল মাদ্রিদকে। বদলি হিসেবে মাঠে নামার পাঁচ মিনিটের মাথায় আলভেরো মোরাতার ক্রসে দারুণ ভলিতে গোল করে রিয়ালের জয় অনেকটাই নিশ্চিত করে ফেলেন ভ্যাকুয়েস।

নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হওয়ার ছয় মিনিট আগে বড় জয় নিশ্চিত হয় রিয়াল মাদ্রিদের। ৮৪তম মিনিটে রোনালদোর পাস থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল করে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর স্বাগতিক দর্শকদের আনন্দে ভাসান মোরাতা। এরপর আর কোনো গোল না হলেও ৫-১ ব্যবধানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ।

মঙ্গলবার ‘এফ’ গ্রুপের অপর ম্যাচে জয় পেয়েছে আরেক ফেভারিট দল বরুসিয়া ডর্টমুন্ডও। প্রতিপক্ষের মাঠে স্পোর্টিংকে ২-১ গোলে পরাজিত করেছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

বড় জয় পাওয়া সত্ত্বেও ‘এফ’ গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলে দুই নম্বরে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। তিন ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত শীর্ষে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। সমান পয়েন্ট সত্ত্বেও গোল-ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় রিয়াল দুই নম্বরেই রইলো।

রিয়ালের গোলোৎসবের দিন জয় পেয়েছে জুভেন্টাস, লেস্টার সিটি, এফসি পোর্তো ও সেভিয়া। জুভেন্টাস লিঁওকে, লেস্টার কোপেনহেগেনকে এবং সেভিয়া ডায়নামো জাগরেবকে সমান ১-০ ব্যবধানে পরাজিত করেছে। ক্লাব ব্রাগের মাঠে পোর্তোর জয়টি ২-১ ব্যবধানের। অন্যদিকে টটেনহ্যাম-বায়ার লেভারকুসেন (০-০), সিএসকেএ মস্কো-মোনাকো (১-১) ম্যাচটি ড্র হয়েছে।

প্রতিপক্ষের মাঠে হুয়ান কুয়াদ্রাদোর ৭৬তম মিনিটের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জুভেন্টাস। অন্যদিকে নিজেদের মাঠে খেলার ৪০তম মিনিটে রিয়াদ মাহরেজের গোলে ন্যুনতম ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লেস্টার সিটি।

‘ই’ গ্রুপে তিন রাউন্ড শেষে ৫ পয়েন্ট নিয়ে মোনাকো আপাতত শীর্ষে রয়েছে; এক পয়েন্ট কম নিয়ে টটেনহ্যাম দুইয়ে নেমে গেছে। অন্যদিকে ‘জি’ গ্রুপের তিন রাউন্ড শেষে পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে নকআউট পর্বের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল লেস্টার সিটি। ‘এইচ’ গ্রুপে তিন রাউন্ড শেষে জুভেন্টাস ও সেভিয়ার পয়েন্ট সমান ৭ হলেও ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা গোল-ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় শীর্ষে রয়েছে। সেভিয়ার অবস্থান দুইয়ে।

বুধবার গ্রুপ পর্বের ম্যাচে বার্সেলোনা, বায়ার্ন মিউনিখ, ম্যানচেস্টার সিটি, পিএসজি, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও নাপোলির মতো দলগুলো মাঠে নামবে। ঘরের মাঠ ন্যু-ক্যাম্পে ম্যানসিটিকে আতিথ্য দেবে বার্সেলোনা। অন্যদিকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ আতিথ্য দেবে এফসি রোস্তোভক। এদিকে বায়ার্ন মিউনিখের প্রতিপক্ষ পিএসভি আইন্দহোভেন; পিএসজি খেলবে এফসি বাসেলের বিপক্ষে। অন্য ম্যাচে ঘরের মাঠে বেসিকটাসকে আতিথ্য দেবে নাপোলি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY