শৈলকুপায় মুক্তিযোদ্ধা ও তার ছেলেকে কোপালো আ’লীগ !

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপা শহরের কবিরপুর এলাকায় মঙ্গলবার রাতে আবাইপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মুক্তার হোসেন মৃধা (৬৫) ও তার ছেলে মোরশেদ মৃধাকে (৩০) কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেছে আওয়ামী লীগের ক্যাডাররা।

টেন্ডারে অংশ নেওয়ার কারণে মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার কবিরপুর জাকির মেডিকোর সামনে এ ঘটনা ঘটে। জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তার হোসেন মৃধা ও তার ছেলে একই উপজেলার কৃপালপুর গ্রামের বাসিন্দা।

বর্তমানে তারা শৈলকুপা শহরে বাস করেন। আহত মুক্তার মৃধার ছেলে এড মাহমুদুল হাসান সুমন মৃধা জানান, তার বাবা ও ভাই কবিরপুরে মেডিকোর সামনে বসে ছিলেন। এসময় আওয়ামী যুবলীগের কর্মীরা তাদের কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে।

স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মধ্য রাতে আহতদের ঢাকায় পাঠানো হয়।

শিক্ষা অফিসের টেন্ডার নিয়ে বিরোধের জের ধরে তাদের উপর এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা মনে করছেন। সুমন মৃধা অভিযোগ করেন, সোনা শিকদার ও শামিম মোল্লার সমর্থকরা তার বাবা ও ভাইয়ের উপর হামলা করেছে।

তবে শামিম মোল্লা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি জরুরী কাজে যশোর আছি। আমার কোন সমর্থকরা এই হামলার সাথে জড়িত নয়। তবে দলীয় কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তরিকুল ইসলাম জানান, দলের আভ্যন্তীর কোন্দলের কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY