চলতি বছরে সবচেয়ে আলোচিত যারা


ঢাকাই সিনেমায় নতুন মুখ আসা নতুন কোনো বিষয় না। প্রতিনিয়তই চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে এইসব নতুন শিল্পীরা।ইন্ডাস্ট্রিতে এসেই নিজেদের অবস্থান দৃঢ় করতে উঠে পড়ে লেগে যায়। কেউ ঝড়ে পড়ে আবার কেউ টিকে থাকেন। তবে চলতি বছরে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন চলচ্চিত্রজগতে বেশ আলোড়ন তুলেছে। তাদের কথা নিয়ে এই ফিচারটি সাজিয়েছেন নুরুল করিম

cvqpt59শবনম বুবলী:

ছিলেন বেসরকারী চ্যানেল বাংলাভিশনের সংবাদ পাঠিকা। কোনদিন অভিনয় করেন নি – না মঞ্চে, না ছোটপর্দায়। কিন্তু সেই তিনিই যখন চলচ্চিত্রে পদার্পন করলেন তখন সাড়া পড়ে গেল চারদিকে। শুরুতেই শাকিব খানের বিপরীতে, নায়িকা চরিত্রে। যে চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অপু বিশ্বাসের কথাই শোনা যাচ্ছিল সবচেয়ে বেশি। কিন্তু অপু বিশ্বাস সরে গেলে সে জায়গায় পূর্ণিমা, মাহিয়া মাহি, নুসরাত ইমরোজ তিশা এমনকি কলকাতার কোয়েল মল্লিকের নামও শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু সকল প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বসগিরি চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে যিনি চলচ্চিত্রপ্রেমীদের সামনে উপস্থিত হন তিনি শবনম বুবলি। শবনম বুবলি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেছেন। সংস্কৃতিমনা পরিবারে তার জন্ম ও বেড়ে ওঠা।

গত ঈদুল আজহায় একসঙ্গে দুটি ছবি মুক্তির মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছে বুবলীর। তাঁর অভিনয়জীবনের শুরুটাই তো হয়েছে ঢালিউডের প্রথম সারির অভিনেতা শাকিব খানের বিপরীতে। তাও আবার একই সময়ে দুটি ছবি দিয়ে—বসগিরি ও শুটার।

s1crcwbমাসুমা রহমান নাবিলা:

তিনি জেদ্দা, সৌদি আরবে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা লুৎফর রহমান সেখানে একটি বেসরকারি ফার্মে একজন নিরীক্ষণ কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করতেন। নাবিলা বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ, জেদ্দায় পড়াশোনা করেন। নাবিলা তার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) শেষে ঢাকায় চলে আসেন। তিনি ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে তার উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) সমাপ্ত এবং ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে তার বিএ (অনার্স) সম্পন্ন করেছেন। তিনি বর্তমানে তার মা ও ভাইবোনদের সঙ্গে ঢাকায় বসবাস করছেন।

২০১৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমার মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত আয়নাবাজি। এই ছবির নায়িকা হিসেবে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছে ছোট পর্দার তারকা নাবিলার। গত ৩০ সেপ্টেম্বর মুক্তি পায় ছবিটি। এর আগে অনেক টেলিভিশন অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে পরিচিতি পেয়েছিলেন নাবিলা। অভিনয় করেছিলেন হাতে গোনা কয়েকটি নাটকে। তবে আয়নাবাজি এক নতুন পরিচয় এনে দিল তাঁকে।

peya-bipashaপিয়া বিপাশা:

শোবিজ ক্যারিয়ারে খুব বেশি সময় পার করেননি পিয়া বিপাশা। তবে এরই মধ্যে ছোট ও বড় পর্দায় অল্প অল্প করে দর্শকের নজর কেড়েছেন এই অভিনেত্রী। ২০১৩ সালে ইউনিলিভার বাংলাদেশের একটি পণ্যের শুভেচ্ছাদূত হয়েছিলেন মডেল অভিনেত্রী পিয়া বিপাশা। এরপর মোবাইল পণ্যেরও শুভেচ্ছাদূতের কাজ করেন। একাধিক ফ্যাশন ম্যাগাজিন, বিলবোর্ড, টিভিসি ও নাটকে নিয়মিত টানা কাজ করছেন। জনপ্রিয় শিল্পী হাবিব ও ইমরানের মিউজিক ভিডিওতে মডেল হিসেবে দেখা গেছে তার মুখ। বর্তমানে ঈদের বেশকিছু নাটকে কাজ করছেন তিনি। পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করছেন।

asif-1আসিফ নূর:

বছরের শেষ নতুন নায়ক হিসেবে বড় পর্দায় অভিষেক হয়েছে আসিফ নূরের। ২৩ ডিসেম্বর দেশজুড়ে মুক্তি পেয়েছে তাঁর প্রথম ছবি এক পৃথিবী প্রেম। ইতিমধ্যে চাঁদনী ছবিতে জুটি বাঁধছেন নায়িকা পরী মণি ও নবাগত নায়ক আসিফ নূর। এছাড়া আরো একটি ছবিতে আসিফকে নায়ক হিসেবে নেওয়া হয়েছে, ছবির নাম গোলাপতলীর কাজল। এ ছবিতে আসিফের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে রয়েছেন মাহিয়া মাহি। চলতি মাসের ১০ তারিখ থেকে সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় এই ছবির শুটিং শুরু হয়েছে।

rosonnরোশান:

ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়ে ভালো সাড়া পেয়েছে রোশানের প্রথম ছবি ‘রক্ত’। ছবিটি এখনো প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে। এরই মধ্যে দ্বিতীয় ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হলেন এই নায়ক। এটিও যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণ করা হবে। ‘ধেৎতেরিকি’ নামের নতুন আরেকটি সিনেমায়ও চুক্তিবদ্ধ হন রোশান। রক্ত ছবিটি মুক্তির পর আশানুরূপ ব্যবসা না করলেও দর্শকের পছন্দের তালিকায় উঠে আসে রোশানের নাম।

আরো পড়ুন- বছর শেষে হিসেবের খাতা (সেরা চলচ্চিত্র)