শনিবার 19 জানুয়ারী 2019 - ৬, মাঘ, ১৪২৫

রোহিঙ্গা তরুণীর বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার গল্প

০৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১২:০৭:২০

এওয়ান নিউজ ফিচার ডেস্ক: ফরমিন আক্তারের সঙ্গে প্রথম যখন আমার দেখা হয়, তখন সে হেলেন কিলারকে নিয়ে আলাপ করতে চেয়েছিল। এখন তার বয়স ১৮। তার সঙ্গে যখন আলাপ করছি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরের বাঁশের ছাউনিতে একটি প্লাস্টিকের টুলে সে বসেছিল। চারপাশের লাখ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীর মতো সে পরিবারকে নিয়ে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

২০১৭ সালের আগস্টের শেষ দিকে রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর জাতিগত নিধন অভিযানে গণহত্যা, ধর্ষণ ও বসতবাড়িতে অগ্নিসংযোগের পর সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন। ফরমিন আক্তার ও তার পরিবারও তাদের মধ্যে আছে।

হেলেন কিলারকে নিয়ে কথা বলতে উৎসুক হয়ে উঠল ফরমিন। বধির ও দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এ মার্কিন লেখককে নিজের অনুপ্রেরণা হিসেবে বেছে নিয়েছে সে। এ ছাড়া পাকিস্তানি শিক্ষা অধিকারকর্মী নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজায়ীকে নিয়েও তার বেশ আগ্রহ। সবচেয়ে কম বয়সী নোবেলজয়ী মালালা তার আরেক নায়ক।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অগ্নিসংযোগে ভস্মীভূত হয়ে যাওয়া বসতবাড়িতে ফরমিনের পাঠ্যবইও ধ্বংস হয়ে যায়। সেসব বই নিয়েও আলোচনা পাড়তে চাইল এ রোহিঙ্গা তরুণী। তার ইচ্ছা একদিন সে একজন আইনজীবী হবে। শুধু তা-ই নয়, বঞ্চিত রোহিঙ্গা নারীদের শিক্ষার অধিকার নিয়েও কাজ করতে আগ্রহী সে।

প্রতিবেদন তৈরি করতে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে বছরখানেক ধরে ঘুরে বেড়িয়েছি আমি। সেই সময় ফরমিনের বয়সী কিশোরীদের সাক্ষাতকার নিয়েছিলাম। তাদের অনেকেই যৌন সহিংসতা ও ধর্ষণের হাত থেকে বেঁচে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন।

রোহিঙ্গা শিবিরে নারীদের রান্নার পাত্রে আগুন চড়াতে দেখা যায়। কেউ কেউ শিশুদের নিয়ে হাঁটছে, দোল দিচ্ছে। পৃথিবীর সবচেয়ে নিপীড়িত একটি জাতি হিসেবে এসব নারী নিরক্ষর। শিক্ষার আলো তাদের কাছে পৌঁছেনি।

তবে তাদের অল্পসংখ্যক লোক মিয়ানমারে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছিলেন। তারা বার্মিজ ভাষায় কথা বলতে পারেন। তবে ফরমিনের মতো কাউকে চোখে পড়েনি। কথা বলার সময় তার থেমে থেমে ফিকফিকে হাসি, কখনও কখনও লজ্জায় মুখ লুকিয়ে কথা বলছিল সে।

কিন্তু এত এত কথার মধ্যে বই ও শিক্ষার প্রতি তার গভীর আগ্রহ চোখে পড়ার মতো। রাষ্ট্রহীন এ তরুণী শিক্ষার মূল্যবোধ নিয়ে ছিল দৃঢ় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। মিয়ানমারে সে নৃশংসতা দেখেছে, কিন্তু আদর্শিক জীবন নিয়ে তার সিদ্ধান্ত অনড়।

রয়টার্সের মিয়ানমার ব্যুরোপ্রধান অ্যান্টোনিও স্লোডকাউসকি ও আমি তাৎক্ষণিকভাবে তার সঙ্গে কথা বলতে উৎসুক হয়ে উঠি। সে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাহিনী বলেছে। পরে কয়েক মাসে যখন উল্লেখ করার মতো অনেক কিছু জেনেছি।দরিদ্র রাখাইন রাজ্যের এক বিচ্ছিন্ন গ্রামে তার বেড়ে ওঠা। রোহিঙ্গাদের যে অল্প কয়েকজন নিজেরা ইংরেজি শিখতে পেরেছে, তাদের একজন ফরমিন।

যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের শিকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয়শিবিরের মধ্যে সে কাউন্সেল করায়। বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে সক্ষম বলে যে ২৫ রোহিঙ্গা কিশোরীকে শনাক্ত করা হয়েছে, সেই তালিকায় ফরমিনও আছে।তার পরবর্তী গল্প মেলাতে বেশ কষ্ট করতে হয়েছিল। এর পর তার চাচাকে খুঁজে বের করলাম, যিনি শরণার্থী হিসেবে নরওয়ে পালিয়ে গেছেন।

কক্সবাজারের বিস্তৃত রোহিঙ্গা আশ্রয়শিবিরে আমি তার কয়েকজন শিক্ষককে খুঁজে পেলাম। তাদের মধ্যে একজন ছিলেন, যার কাছ থেকে ফরমিন প্রথম মালালার কথা শুনেছেন।২০১৭ সালে ফরমিনের স্কুলে মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসা ১৫০ কিশোরী সম্পর্কে আমি জানতে পারলাম। সে বছর পাস করা চারজনের মধ্যে সে একজন ছিল। স্কুলের প্রায় সবাই তার সম্পর্কে জানতেন। তার ইংরেজি ও গণিতের দক্ষতা সবাইকে মুগ্ধ করেছিল।

পরিবার ও বন্ধুরা ফরমিনের উজ্জ্বল সম্ভাবনা ও দৃঢ়প্রতিশ্রুতি নিয়ে বলার পাশাপাশি তার বড় বোন নূরজাহানের গল্পও করছিলেন। দুই বোন শৈশবে একসঙ্গে কলেজে যাবে বলে প্রতিজ্ঞা করেছিল। কিন্তু নূরজাহানকে তার পরিবার বিয়ে দিয়ে দেয়।নূরজাহানের সঙ্গে কথা বলার সময় তার স্বামী পাশেই ছিলেন। আর তাঁবুর ফাঁক গলিয়ে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন আমাদের আলাপ শুনছিলেন।

একসঙ্গে কলেজে যেতে ফরমিন ও তাদের প্রতিজ্ঞার গল্প শুনছিলাম তখন। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করতেই নূরজাহান কেঁদে ফেলেন। তার দুচোখ পানিতে ভরে যায়। আর আশ্রয়শিবিরের তাঁবুরও ওপর তখন টুপটাপ বৃষ্টির ফোঁটা পড়ছিল। ওড়নার পার দিয়ে নূরজাহান চোখ মুছে ফের কথা শুরু করেন।

কথা বলার মাস কয়েক পার হতেই দেখি অন্যরকম এক আত্মবিশ্বাস নিয়ে বেড়ে উঠছে ফরমিন। ঠোঁটে লিপস্টিক মেখে জিন্স ও স্কার্ফ পরে কলেজে যায় সে। ক্যাম্পাসে যখন সে আমার দিকে এগোচ্ছিল, বন্ধুরা তখন তার দিকে হাত নাড়ছিল। তাদের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে আসা শরণার্থীও রয়েছে। যাদের কাছ থেকে ফরমিন ফারসি শিখেছে।ইতিমধ্যে সে কারাতে ও গিটার বাজাতে শিখেছে। এক ইন্দো-মার্কিন শিক্ষকের কাছ থেকে তার এসব শেখা।

কিন্তু তার কিছু অভ্যাস আগের মতোই রয়ে গেছে। গ্রন্থাগারে সে আমাকে তার পছন্দের বইগুলো দেখিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে শার্লট ব্রন্টির জেন ইয়ার। শৈশবে শিক্ষার গুরুত্ব নিয়েও কথা বলে ফরমিন।

রয়টার্সে ফরমিনের পরিচয় প্রকাশের পরই লিংকসহ মালালা ইউসুফজাই টুইটারে সেটি শেয়ার দেন। এতে রোমাঞ্চিত বোধ করে ফরমিন। মিয়ানমারে স্কুলে বসে শিক্ষকের মুখে মালালার গল্প শোনার কথা স্মরণ করে সে। ভাবতেই পারছে না, মালালা এখন তার গল্প পড়ছেন, যা তার কাছে অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছিল।

ফরমিন বার্তা পাঠিয়ে আমাকে জানায়, এ ঘটনায় সে যে কতটা আন্দন্দিত, তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারছে না।‘‌আপনি জানেন, তাকে (মালালা) আমি ভালোবাসি।’ ফরমিন জানায়, সেমিস্টার পরীক্ষার ফাঁকে শরণার্থী শিবিরে দাতব্য সংস্থাগুলোর জন্য সে কিছু তরজমার কাজ করবে। এর আগে কাজ করে এক বছরে সে যে কয়টা পয়সা জমিয়েছিল, তা নূরজাহানের বিয়েতে খরচ হয়ে গেছে।



এ সম্পর্কিত খবর

আসাদের আত্মত্যাগ দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি

আসাদের আত্মত্যাগ দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি

এওয়ান নিউজ: রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেছেন, শহীদ আসাদের আত্মত্যাগ বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের ইতিহাসে

ছয়-দফা আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীনতা আন্দোলন নতুন মাত্রা পায়: প্রধানমন্ত্রী

ছয়-দফা আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীনতা আন্দোলন নতুন মাত্রা পায়: প্রধানমন্ত্রী

এওয়ান নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বৈমষ্য ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর

বিজয় সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী

‘দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করব’

‘দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করব’

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের লোকজন বারবার ভোট দিয়ে আমাদের


ডাকসু নির্বাচনে ৫ রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ

ডাকসু নির্বাচনে ৫ রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ

এওয়ান নিউজ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের আচরণবিধি প্রণয়নে ৭

জাল ভিসা থেকে বাঁচতে কী করবেন?

জাল ভিসা থেকে বাঁচতে কী করবেন?

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: ভ্রমণে জন্য এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়ার জন্য ভিসার বিকল্প নেই।

অবশ্যই বাংলাদেশের নির্বাচন ‘পারফেক্ট’ ছিল না: জাতিসংঘ

অবশ্যই বাংলাদেশের নির্বাচন ‘পারফেক্ট’ ছিল না: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অবশ্যই বাংলাদেশের নির্বাচন ‘পারফেক্ট’ ছিল না। ইতিবাচক সমাধান পাওয়ার জন্য বাংলাদেশের রাজনৈতিক আবহে


ঐক্যফ্রন্টের গন্তব্য কি?

ঐক্যফ্রন্টের গন্তব্য কি?

নিজস্ব প্রতিবেদক: বহুল আলোচিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগ মুহুর্তে সাত দফা দাবী নিয়ে

চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছে

চট্টগ্রামে ৩টি হাইটেক পার্ক হচ্ছে

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের সীতাকু-, বহদ্দারহাট ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে হাইটেক পার্ক নির্মিত হলে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টির

দুর্নীতিরোধেই সরকারের অবস্থান জিরো টলারেন্স

দুর্নীতিরোধেই সরকারের অবস্থান জিরো টলারেন্স

নজরুল ইসলাম তোফা:: ঔপনিবেশিক আমলের ঘুনেধরা শাসনব্যবস্থা সর্বস্তরে যেন বিদ্যমান আছে। বাংলাদেশের সকল মানুষের জীবনে



আরো সংবাদ

‘বিশ্ব হিজাব দিবস’ ১ ফেব্রুয়ারি

‘বিশ্ব হিজাব দিবস’ ১ ফেব্রুয়ারি

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৩:১৫



প্রথম যৌনমিলন কোন বয়সে হওয়া উচিত?

প্রথম যৌনমিলন কোন বয়সে হওয়া উচিত?

১৫ জানুয়ারী, ২০১৯ ১১:৫৯



শুধু চা খেয়েই বেঁচে আছেন যে নারী!

শুধু চা খেয়েই বেঁচে আছেন যে নারী!

১২ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৪:৪৫







ব্রেকিং নিউজ





নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৬:০০



বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৫:৪৭

"বড্ড বেরসিক আমি"

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৫:২১



19/01/2019

19/01/2019

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৪:১৫