শনিবার 19 জানুয়ারী 2019 - ৬, মাঘ, ১৪২৫

মিয়ানমারের অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন: বাংলাদেশ

১০ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৫:৩৭:৩৯

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের ভূখণ্ডে রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) ও আরাকান আর্মির (এএ) ঘাঁটি থাকার অভিযোগ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে ঢাকা। ওই দুই সংগঠনের মধ্যে যোগসাজশ আছে দাবি করে ৭ ডিসেম্বর (সোমবার) মিয়ানমার অভিযোগ করে, বাংলাদেশে তাদের ঘাঁটি রয়েছে। বুধবার (৯ জানুয়ারি) বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে মিয়ানমারের ওই অভিযোগকে ‘মিথ্যা ও ভিত্তিহীন’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের অধিকার সুরক্ষার নামে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে লড়ছে আরসা। আর ভিন্ন ভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠার কথা বলে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে আরাকান আর্মি। সম্প্রতি বাংলাদেশে রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) ও আরাকান আর্মির (এএ) ঘাঁটি রয়েছে বলে অভিযোগ তোলে মিয়ানমার। দুই সংগঠনের মধ্যে সম্পর্ক রয়েছে দাবি করে দেশটির প্রেসিডেন্টের দফতর অভিযোগ করেছে,মিয়ানমারের বিভিন্ন অঞ্চলে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তারা বাংলাদেশের সীমান্ত অঞ্চলে এক হয়ে কাজ করছে।

৯ জানুয়ারি (বুধবার) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে দাবি করা হয়, এসব সংগঠনের কোনোটিই বাংলাদেশে পরিচালিত হচ্ছে না এবং বাংলাদেশও ‘কোনও জঙ্গি গোষ্ঠীকে নিজেদের মাটিতে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে না’। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘এ অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। বাংলাদেশে নিরাপপত্তা বাহিনীর উচ্চ মাত্রার সতর্কতা ও কার্যকরী প্রতিরোধ ব্যবস্থার মধ্যে এ দেশে কোনও জঙ্গি ঘাঁটি পরিচালিত হওয়া সম্ভব নয়।’ এসব জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকার জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করে বলে উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে।

ফেডারেল রাষ্ট্রব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য আারাকান আর্মি বিগত কয়েক বছর ধরে মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে যাচ্ছে। গত মাস থেকে সংগঠনটি তাদের সামরিক তৎপরতা জোরদার করে। সম্প্রতি চারটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলা চালিয়েছে তারা। অন্যদিকে রোহিঙ্গা মুসলিমদের অধিকার রক্ষার কথা বলে আরসা ২০১৭ সালে রাখাইন রাজ্যের কয়েকটি সীমান্ত চৌকিতে হামলা চালায়। ওই হামলার অজুহাতে রাখাইনে সংঘবদ্ধ ও কাঠামোগত সন্ত্রাস জোরালো করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। পূর্ববর্তী সেনাপ্রচারণার ধারাবাহিকতায় পরিচালিত হয় কথিত শুদ্ধি অভিযান। ওই সেনা অভিযানে গণহত্যার নৃসংশ বাস্তবতা এড়াতে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

২০১২ ও ২০১৭ সালে দুই দফায় জাতিগত নিধন ও গণহত্যার শিকার হয়ে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। বাকীদের রাখাইন থেকে তাড়াতে বিভিন্ন ধারার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে মিয়ানমার। সমগ্র আন্তর্জাতিক দুনিয়া যেখানে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিক হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছে, মিয়ানমার সেখানে ওই জনগোষ্ঠীর মানুষকেও ‘বাংলাদেশের নাগরিক’ হিসেবে প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করে। পাশাপাশি বহুদিন থেকেই মিয়ানমার আরসার সদস্যদের ‘বাঙালি’ আখ্যা দিয়ে বাংলাদেশের ওপর তাদের দায় চাপানোর চেষ্টা করে আসছে। সেই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে আরসা ও এএ’র ঘাঁটি থাকার অভিযোগ তোলে নেপিডো।

অভিযোগের একদিনের মাথায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা তখন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা স্মরণ করিয়ে দেন। সেদিন তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছিলেন, এমন অভিযোগের জন্য মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বাংলাদেশ। বুধবার (৯ জানুয়ারি) আনুষ্ঠানিকভাবে সেই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলো বাংলাদেশ।



এ সম্পর্কিত খবর

আসাদের আত্মত্যাগ দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি

আসাদের আত্মত্যাগ দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি

এওয়ান নিউজ: রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বলেছেন, শহীদ আসাদের আত্মত্যাগ বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের ইতিহাসে

ছয়-দফা আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীনতা আন্দোলন নতুন মাত্রা পায়: প্রধানমন্ত্রী

ছয়-দফা আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীনতা আন্দোলন নতুন মাত্রা পায়: প্রধানমন্ত্রী

এওয়ান নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বৈমষ্য ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর

বিজয় সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী

‘দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করব’

‘দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য কাজ করব’

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের লোকজন বারবার ভোট দিয়ে আমাদের


রোদে পোড়া শরীর, নায়িকাদের রুপে বিলীন

রোদে পোড়া শরীর, নায়িকাদের রুপে বিলীন

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত ১৫ জানুয়ারি থেকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করেছে আওয়ামীলীগ।

ডাকসু নির্বাচনে ৫ রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ

ডাকসু নির্বাচনে ৫ রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ

এওয়ান নিউজ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের আচরণবিধি প্রণয়নে ৭

নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি : নোয়াখালীর কবিরহাটের নবগ্রামে ২৯ বছরের এক গৃহবধু গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষিতার অভিযোগের


ফটিকছড়িতে আলোর দিশারী'র ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন 

ফটিকছড়িতে আলোর দিশারী'র ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন 

এওয়ান নিউজ: বর্ণিল ও জাকজমকপূর্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠল ফটিকছড়ির আলোর দিশারী শাহনগর কর্তৃক

লালমোহনে ঘুমন্ত গৃহবধুকে পুড়িয়ে হত্যার অগিযোগ, দগ্ধ- ২

লালমোহনে ঘুমন্ত গৃহবধুকে পুড়িয়ে হত্যার অগিযোগ, দগ্ধ- ২

ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার লালমোহন উপজেলায় চরভ‚তা ইউনিয়নে ঘুমন্ত গৃহবধু সুরমাকে (২৬) পুড়িয়ে হত্যা করার অভিযোগ

বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় উদযাপনে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসবে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ





নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

নোয়াখালীতে আবারও গণধর্ষণ

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৬:০০



বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

বিজয় উৎসবে শেখ হাসিনা

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৫:৪৭

"বড্ড বেরসিক আমি"

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৫:২১



19/01/2019

19/01/2019

১৯ জানুয়ারী, ২০১৯ ১৪:১৫