সোমবার 20 মে 2019 - ৬, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬

হাইকোর্টে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ের সম্পাদক

১২ মার্চ, ২০১৯ ২১:২৭:২৪

এওয়ান নিউজ: ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি না ছাপিয়ে ইতিহাস বিকৃতির ঘটনায় ওই বইটির সম্পাদক শুভঙ্কর সাহা হাইকোর্টে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন। মঙ্গলবার তলবে হাজির হয়ে ‘বিকৃতির’ দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেও হাইকোর্ট এ বিষয়ে কোনো আদেশ দেননি। প্রকাশিত ওই বইগুলো কী করা হয়েছে, তা হলফনামা আকারে বিস্তারিত জানানোর নির্দেশ দিয়ে ৯ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির জন্য রেখেছেন আদালত। বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ বি এম আলতাফ হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আল আমিন সরকার। আর বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আজিজ উল্লাহ ইমন ও শুভঙ্কর সাহার পক্ষে ছিলেন আইনজীবী যোবায়ের রহমান।

আইনজীবী আজিজ উল্লাহ ইমন পরে সাংবাদিকদের বলেন, এরই মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক আভ্যন্তরীণ নোটিশ দিয়ে প্রকাশিত বইয়ের সব কপি তুলে নিয়েছে। আর নতুনভাবে প্রকাশিত বইয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি ও বক্তব্য তুলে ধরা হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুসন্ধান কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর গত ১৯ ফেব্রুয়ারি আদালত ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’ বইয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি না ছাপিয়ে পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খান ও পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর মোনায়েম খানের ছবি ছাপানোর ব্যাখ্যা জানতে চেয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহাকে তলব করে। সেই সঙ্গে ইতিহাস বিকৃতি ‘অমার্জনীয় অপরাধ’ মন্তব্য করে আদালত বইটির সব পুরনো কপি বাজার থেকে তুলে নিতে বলেছিলেন। ওই আদেশের ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার হাইকোর্টে হাজির হয়ে ইতিহাস বিকৃতির দায় স্বীকার করে নিঃশর্ত ক্ষমা চান শুভঙ্কর সাহা।

শুভঙ্কর সাহা আদালতকে বলেন, “বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বই প্রকাশে একটি টিম দায়িত্বে ছিলেন। আমরা বইয়ে বঙ্গবন্ধুর অবদান, সাতই মার্চের ভাষণ, স্বাধীনতার ঘোষণা, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা- এসব বিষয় অন্তর্ভুক্ত করেছিলাম। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংক রিলেটেড বঙ্গবন্ধুর কোনো ছবি না পাওয়ায় বইয়ে বঙ্গবন্ধুর কোনো ছবি দেয়া হয়নি। এ জন্য আমি আদালতের কাছে পুরো টিমের পক্ষে ক্ষমা চাইছি।

আদালত বলেন, আইয়ুব খান, মোনায়েম খানকে বইতে হাইলাইট করলেন অথচ বঙ্গবন্ধুর একটা ছবিও পেলেন না? জবাবে শুভঙ্কর বলেন, “বইতে আইয়ুব খানকে স্বৈরাচার হিসেবেই অ্যাখ্যায়িত করা হয়েছে। এ পর্যায়ে শুভঙ্কর আবারও দুঃখ প্রকাশ করে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলে রিটকারী আইনজীবী এ বি এম আলতাফ হোসেন বলেন, ক্ষমা চেয়ে ইতিহাস বিকৃতির দায় থেকে মুক্তি পাওয়া যায় না। জাতি ক্ষমা করতে হবে। এরপর আদালত প্রকাশিত ওই বইগুলো কী করা হয়েছে, তা হলফনামা আকারে বিস্তারিত জানানোর নির্দেশ দিয়ে ৯ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির জন্য রাখেন।

আইনজীবী এ বি এম আলতাফ হোসেন বলেন, “ইতিহাস বিকৃতির দায় স্বীকার করে শুভঙ্কর সাহা নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি চাইলেও আদালত তা গ্রহণ করেনি। ফলে পরবর্তী তারিখে তাকে আসতে হবে।”

আতিউর রহমান বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর থাকাকালে ২০১৩ সালে এ বইয়ের পাণ্ডুলিপি তৈরি ও প্রকাশনার সিদ্ধান্ত হয়। এ বিষয়ে উপদেষ্টা কমিটি ও সম্পাদনা কমিটি করা হয় সে সময়। বইটি প্রকাশের আগে সম্পাদনার দায়িত্বে বেশ কয়েকবার রদবদল হয়। সর্বশেষ এ দায়িত্বে ছিলেন ব্যাংকের তখনকার নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভংকর সাহা। তার আগে দায়িত্বপালন করেন আরেক নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. মাহাফুজুর রহমান। তারা দুজনই অবসরে গেছেন।

পাণ্ডুলিপি চূড়ান্ত করার পর ২০১৭ সালে ডিসেম্বরে প্রকাশিত হয় ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস’। ২০১৮ সালের ২৫ মার্চ অনুষ্ঠানিকভাবে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন বর্তমান গভর্নর ফজলে কবির। এরপর সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে গণমাধ্যমে দুটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বইটি নিয়ে সমালোচনা শুরু হলে গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর বইটির বিতরণ বন্ধ করার নির্দেশ দেন গভর্নর। পাশাপাশি বইটি নতুন করে সম্পাদনা করার সিদ্ধান্ত জানিয়ে একজন ডেপুটি গভর্নরের নেতৃত্বে একটি রিভিউ কমিটি গঠন করে দেন। এরই মধ্যে পত্রিকায় প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন যুক্ত করে এফবিসিসিআই পরিচালক কাজী এরতেজা হাসান হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন।

রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত বছর ২ অক্টোবর হাইকোর্ট ইতিহাস বিকৃতি অভিযোগ তদন্তের জন্য একটি অনুসন্ধান কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে জারি হয় রুল। হাইকোর্টের নির্দেশে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (অর্থ বিভাগ) মো. জাফর উদ্দীনকে আহ্বায়ক করে গঠিত অনুসন্ধান কমিটি গত ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদের প্রতিবেদন জমা দেয়।

প্রতিবেদনের মতামত অংশে বলা হয়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ ব্যাংকের নামকরণ করেন। গ্রন্থটির দ্বিতীয় অধ্যায়ে মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত রয়েছে। এ কারণে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি হিসেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাস বইয়ে অন্তর্ভুক্ত করা অত্যাবশ্যক ছিল। গ্রন্থটিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি অন্তর্ভুক্ত না করায় ইতিহাস বিকৃত হয়েছে মর্মে কমিটি মনে করে।



এ সম্পর্কিত খবর

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনায় তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনায় তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

এওয়ান নিউজ: পাবনার রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প এলাকায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য গ্রিন সিটি আবাসন পল্লীর

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পল্টনে যুবদলের বিক্ষোভ 

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পল্টনে যুবদলের বিক্ষোভ 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃর্শত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে

ধান-চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে: মেনন

ধান-চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে: মেনন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ধান, চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশের


খালেদা জিয়াকে আজীবন জেলে রাখার প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী: রিজভী

খালেদা জিয়াকে আজীবন জেলে রাখার প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয়

মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতীয় সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও

হালুয়াঘাটে নিষিদ্ধ পলিথিনের সয়লাব

হালুয়াঘাটে নিষিদ্ধ পলিথিনের সয়লাব

সৈয়দ তরিকুল্লাহ আশরাফী, হালুয়াঘাট প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে নিষিদ্ধ পলিথিনের সয়লাব। ব্যবহারও অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে।


আমরা কোথায় আছি

আমরা কোথায় আছি

আমরা এমন একটি সময়ে এমন একটি সমাজে আছি, যেখানে এখন নিরাপদে বসবাস দুঃসাধ্য হয়ে উঠেছে।

পাঁচ দুর্ধর্ষ নারী গোয়েন্দা

পাঁচ দুর্ধর্ষ নারী গোয়েন্দা

এওয়ান নিউজ ডেস্ক:চ্যালেঞ্জিং পেশা গুপ্তচরবৃত্তি। নারীরাও এতে পিছিয়ে নেই। গোপনীয় তথ্য জোগাড় করতে কখনো তারা

সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

এওয়ান নিউজ: একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন দলের সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ

20/05/2019

20/05/2019

২০ মে, ২০১৯ ১৫:০৪