সোমবার 20 মে 2019 - ৬, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬

নিজ সাম্রাজ্যে এখন নারীই সম্রাজ্ঞী     

১৩ মার্চ, ২০১৯ ১২:৩৭:৫৬

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: নারী দিবস, নারীদের জন্য বিশেষ একটি দিন। এই দিবসটি উদযাপনের পেছনের ইতিহাস জুড়ে রয়েছে নারী শ্রমিকদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামের গল্প। ১৯১৪ সাল থেকে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ এই দিনটি উদযাপন করে আসছে। বাংলাদেশেও ১৯৭১ সাল থেকে দিবসটি পালিত হচ্ছে। নারীদের সম-অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য যে দিবসটির জন্য হয়েছিল তার কতখানি তাৎপর্য আজও বজায় রয়েছে? 

নারী দিবস এলেই সেমিনার হয়, আলোচনা সভা হয়। সব জায়গায়ই যে বিষয়টিকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয় তা হলো ‘নারী স্বাধীনতা’। ২০১৯ সালে এসেও কী নারীরা সত্যিই পরাধীন হয়ে আছেন? নিজের ইচ্ছামতো কাজ করতে গেলে কি আজও তাদের পায়ে শেকল বেধে দেওয়া হচ্ছে? কেবল নারী বলেই কি হেনস্তার শিকার হচ্ছেন তারা? 
 
সবগুলো প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে কথা হয়, সমাজের বিভিন্ন পেশার নারীদের সঙ্গে। জানতে চাওয়া হয় তাদের চলার পথের অভিজ্ঞতা। কী বলেন তারা? চলুন জেনে নিই তাদের ভাষ্যমতেই-  

পেশায় একজন ডাক্তার সাকিয়া হক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের সম্পর্কে এক লাইনে লিখে রেখেছেন, “একজন ডাক্তার, যে ভ্রমণ ভালোবাসে”। ভ্রমণপ্রেমী এই নারী দাপিয়ে বেড়িয়েছেন দেশের এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত। ডিঙিয়েছেন পাহাড়, হেঁটেছেন সমুদ্রের পাড় ঘেঁষে। 

কেবল দেশ নয়, ভারত, নেপাল, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতমানও ঘুরে ফেলেছেন তিনি। দেশ আর বিশ্বকে কাছ থেকে দেখা এই নারীকে দমিয়ে রাখেনি কেউ। বাংলাদেশে নারী ভ্রমণকারীদের প্রথম ও বৃহত্তম সংগঠন ‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ এর একজন কর্ণধারও তিনি। কেবল নারীদের নিয়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করেছেন অগণিত বার। 

সাকিয়া বলেন, ‘নারীদের ভ্রমণের ব্যাপারে সমাজ এখন অনেক স্বাধীন। তারা যে ব্যাপারটি কেবল সহজভাবে নিচ্ছে তাই নয় বরং অবাক হয়ে দেখছে। দলবেঁধে মেয়েরা ভ্রমণে যাচ্ছে এখন। দু-তিনজন নারী কোথাও গেলে হ্যারেজমেন্টের শিকার হয় হয়ত কোথাও কোথাও কিন্তু আমরা যেখানেই যাই বিশাল দল নিয়ে যাই আর নিরাপত্তার দিকে মনোযোগ রাখি। আমি ব্যক্তিগতভাবে কখনো বাজে পরিস্থিতিতে পড়িনি।’
 
মালয়েশিয়া প্রবাসী নারী শাহ নেওয়াজ সুমী। প্রবাসী নারী কি স্বাধীনতা পান? স্বামী কি বোঝেন দেশ থেকে, কাছের মানুষ থেকে থাকা একজন নারীর মন? জানতে চাইলে সুমী বেশ গল্পের স্বরেই বলেন, ‘আমার বিয়ে হয় এইচএসসির’র পর। ভীষণ আহ্লাদী মেয়ে ছিলাম তখন। রান্না করা শিখেছি স্বামী থেকে। তার ইচ্ছায় গ্র্যাজুয়েশন করেছি। তারপরও তার প্রশান্তি হচ্ছিল না। দেশ বিদেশ মিলিয়ে আমাকে যতটুকু পারা যায় সমৃদ্ধ করেছেন।

আমি মাস্টার্স করেছি, নিউট্রিসিয়ানের ওপর ডিপ্লোমা করেছি, মেকআপ এর কোর্স করেছি, কালিন্যারি বেকারি শিখেছি। আর সবকিছুর জন্য আমাকে সবচেয়ে বেশি উৎসাহ দেওয়া মানুষ হলেন আমার স্বামী। 

এইচএসসি শেষ করা সদ্য বিবাহিতা মেয়েটির পড়াশোনা শেষ করা থেকে শুরু করে সব কাজ শেখানো সবকিছুই করেছেন তিনি। একজন নারী হিসেবে এমন স্বামী পেয়ে আমি গর্ববোধ করি। কেননা তিনি সবসময় নিজের চাইতেও বেশি ভালো রাখতে চেষ্টা করেন আমাকে, বোঝেন আমি কী চাই।’

নারী ঘরের কাজ করবে, নারীর বাইরে যাওয়ার কী প্রয়োজন?- এমন ভাবনা সত্যিকার অর্থে এখন খুব কম মানুষের মধ্যেই দেখা যায়। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের লেকচারার হানিয়্যুম মারিয়া খান। শিক্ষকতা পেশার বাইরে তার আরেকটি পরিচয় হলো আলোকচিত্রী। মুহূর্তকে ফ্রেমবন্দি করেছেন অসংখ্যবার। ২০০৬ সাল থেকে ছবি তোলার সঙ্গে জড়িত থাকা এই নারী বলেন, ‘আমি গল্প বলতে ভালোবাসি আর সেই গল্পের ভাষা হলো ফটোগ্রাফি। ফটোগ্রাফি করতে গিয়ে বিভিন্ন স্তরের বিভিন্ন মানুষের কথা শুনি, তাদের জীবনের গল্প তুলে ধরতে গিয়ে যেন নিজেই কখন তার একটা অংশ হয়ে যাই। 
 
সবচেয়ে ভালো লাগে যখন নারী ফটোগ্রাফার বলে কোনো অযাচিত ঝামেলার সম্মুখীন হতে হয় না, বরং সম্মানের সাথে নিজের কাজটুকু শেষ করতে পারি। আমি মনে করি একজন নারী ফটোগ্রাফারের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা তার ইচ্ছাশক্তি এবং কাজের প্রতি দায়িত্ববোধ।’

সবকিছু মিলিয়ে বলা যায়, এই ২০১৯ সালে এসে কোনো নারীই পিছিয়ে নেই। নিজের ইচ্ছা, নিজের স্বপ্ন সবকিছু নিয়ে তারা দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন নিজের সাম্রাজ্য। নারী বলে তাদের চলার পথে বাধা হচ্ছে না কোনোকিছুই। 



এ সম্পর্কিত খবর

চলতি বছরের হজযাত্রীদের জন্য বিমানের টিকিট বিক্রি শুরু

চলতি বছরের হজযাত্রীদের জন্য বিমানের টিকিট বিক্রি শুরু

এওয়ান নিউজ: চলতি বছরের হজযাত্রীদের জন্য টিকিট বিক্রি শুরু করেছে রাষ্ট্রায়াত্ত উড়োজাহাজ সংস্থা বিমান বাংলাদেশ

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনায় তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

রূপপুরে বালিশসহ আসবাব কেনায় তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছেন হাইকোর্ট

এওয়ান নিউজ: পাবনার রূপপুরে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প এলাকায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের থাকার জন্য গ্রিন সিটি আবাসন পল্লীর

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পল্টনে যুবদলের বিক্ষোভ 

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে পল্টনে যুবদলের বিক্ষোভ 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও নিঃর্শত মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে


ধান-চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে: মেনন

ধান-চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে: মেনন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ধান, চাল আমদানি মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার হচ্ছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশের

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদে বিএনপির জন্য নির্ধারিত একটি সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন

খালেদা জিয়াকে আজীবন জেলে রাখার প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী: রিজভী

খালেদা জিয়াকে আজীবন জেলে রাখার প্রতিজ্ঞা বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয়


বিএনপি এখন ধার করা নেতৃত্ব দিয়ে চলছে: হাছান মাহমুদ

বিএনপি এখন ধার করা নেতৃত্ব দিয়ে চলছে: হাছান মাহমুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি এখন ধার করা নেতৃত্ব দিয়ে চলছে বলে মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান

মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

মির্জা ফখরুল সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও শক্তিশালী হতো: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাতীয় সংসদে থাকলে বিরোধী দলের অবস্থা আরও

আমরা কোথায় আছি

আমরা কোথায় আছি

আমরা এমন একটি সময়ে এমন একটি সমাজে আছি, যেখানে এখন নিরাপদে বসবাস দুঃসাধ্য হয়ে উঠেছে।



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ


20/05/2019

20/05/2019

২০ মে, ২০১৯ ১৫:০৪