বৃহস্পতিবার 27 জুন 2019 - ১৪, আষাঢ়, ১৪২৬

প্রযুক্তি ব্যবহার করে কি ধানের দাম বাড়ানো যাবে?

১৫ মে, ২০১৯ ১১:৫৮:৪৫

পাকা ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ করেছেন এক কৃষক।
পাকা ধানক্ষেতে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ করেছেন এক কৃষক।

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: নায় বাজারে দাম না পাওয়ায় কৃষকদের মাঝে হাহাকার পড়েছে। সরকার ভাবছে প্রযুক্তির ব্যবহার ও চাল রপ্তানির কথা। টাঙ্গাইল জেলার ক'দিন আগে একজন কৃষক ক্ষোভ এবং হতাশা থেকে জমিতে পাকা ধানে আগুন লাগিয়ে দেন।বিবিসি বাংলা

দেশে যে বছরই ধানের ফলন ভাল হয়, তখনই ধানের দাম নিয়ে কৃষকরা হতাশায় পড়তে হয়।এই চক্র থেকে বেরিয়ে আসার আদৌ কি কোন উপায় আছে - এই প্রশ্ন এখন উঠছে।

উত্তরের জেলা কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী এলাকার মোসাম্মৎ বানেশা বেগম অন্যের তিন বিঘা জমি বর্গা নিয়ে বোরো ধান চাষ করেছিলেন। কিন্তু এখন তার শ্রম এবং খরচের তুলনায় ধানের দাম কম হওয়ায় তিনি থমকে গেছেন।"ধানের দাম নাই। কিন্তু কৃষি খরচ বেশি। ১২০০ টাকা দিয়া এক বিঘা ধান কাটাতে কামলা নিতে হয়। পোষায় না।"

টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার বানকিনা গ্রামের একজন কৃষক আবদুল সিকদার কয়েকদিন আগে তার জমিতে পাকা ধানে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিলেন।

খরচের তুলনায় ধানের দাম কম হওয়ায় ক্ষোভ এবং হতাশা থেকে তিনি এটা করেছিলেন বলে তার পরিবারের একজন সদস্য জানিয়েছেন।বোরো ধান মণপ্রতি এখন কৃষকদের ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে।

খরচের তুলনায় ধানের দাম কম হওয়ায় ক্ষোভ তৈরি হয়েছে।খরচের তুলনায় ধানের দাম কম হওয়ায় ক্ষোভ তৈরি হয়েছে।

কুড়িগ্রামের একজন কৃষক আজিজার রহমান বলছিলেন, প্রতি বছরই ধানের দাম নিয়ে তাদের হতাশায় পড়তে হচ্ছে। "আমাদের জমিতে ধান ছাড়া অন্য ফসল করা যায় না। এটা ধানী জমি। সে কারণে বাধ্য হয়ে ধান করি।" সরকারও এ পরিস্থিতিটা স্বীকার করছে।

কৃষিমন্ত্রী ড: আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, এই বছর আমন এবং আউশের উৎপাদন বেশি হয়েছে। এখন বোরো ধানও এক কোটি ৯০ লাখ টনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে। ফলন বেশি হওয়ায় ধানের দাম এবার আগের তুলনায় অস্বাভাবিক কম বলে তিনি মনে করেন।

ড: রাজ্জাক জানিয়েছেন, তাৎক্ষণিক এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা সরকার নিচ্ছে। তিনি বলেছেন, তাৎক্ষণিকভাবে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার জন্য চাল রপ্তানির বিষয় সরকার সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করছে।

"কৃষক আমন ধানও ভাল দামে বিক্রি করতে পারে নাই এই অস্বাভাবিক হারে দাম কমে গেছে। ইতিমধ্যে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হাওর থেকেও ধান কাটা হয়ে গেছে। ফলে স্পষ্ট বোঝা যায়, অনেক ধান উদ্বৃত্ত থাকবে।"

"আমরা বেশি কিনতে পারতাম। কিন্তু সরকারি গুদামের ধারণ ক্ষমতা অনেক কম। সেজন্য আমরা ১২ লাখ টন টার্গেট করেছি। তার চেয়ে বেশি কেনা সম্ভব হবে না। আর সাড়ে তিন কোটি টন চালের মার্কেটে ১০ বা ১২ লাখ টন চাল কিনলে এর প্রভাব পড়ে না। এছাড়া কৃষকরা প্রত্যক্ষভাবে এর সুবিধাটা পায় না। ডিলাররা কিনলে তার একটা প্রভাব পড়ে।"

মন্ত্রী আরও বলেছেন, "সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে চাল রপ্তানির বিষয় আমরা বিবেচনা করছি।" তবে কৃষি বিষয়ক অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ফলন ভাল হলেই ক্ষুদ্র এবং মাঝারী কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন, সেই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা প্রয়োজন।

চাতালের জায়গায় অটো রাইস মিলের উত্থান হয়েছে।চাতালের জায়গায় অটো রাইস মিলের উত্থান হয়েছে।

সরকারি গবেষণা সংস্থা বিআইডিএস-এর গবেষক ড: নাজনীন আহমেদ বলছিলেন, ধান চাল কেনার প্রচলিত পদ্ধতিতে সরকারের নজরদারি বাড়ানো হলে কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। তবে কৃষকের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনার জন্য দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর জোর দিলে দীর্ঘমেয়াদে ভাল সমাধান হতে পারে বলে তিনি মনে করেন।

"সমস্যা অনেক, যেমন চাতালের জায়গায় অটো রাইস মিলের উত্থান। এর সাথে কৃষকের ফলন ধরে রাখার নিজেদের ব্যবস্থা নেই। ফলে ক্ষুদ্র এবং মাঝারি কৃষককে ধান কেটেই বিক্রি করতে হয়। তখন তারা দাম কম পায়।"

"এখানে সরকার যদি তাদের চাল কেনার প্রক্রিয়া একটু আগে শুরু করে, তাহলে সেখানে ধানের দাম যেটা ঘোষণা করা হবে, সেটা ক্ষুদ্র কৃষকের জন্য একটা বারগেইনিং পয়েন্ট হতে পারে। এটা এখনকার ব্যবস্থায় কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তবে দীর্ঘ মেয়াদে উৎপাদন খরচ কমাতে কৃষককে প্রযুক্তির দিকে নেয়া ছাড়া বিকল্প নাই।"

সরকার অবশ্য কিছুদিন আগে ৩৬ টাকা কেজিতে চাল কেনার ঘোষণা দিয়েছে। আর ধানের দাম ঘোষণা করেছে ২৬ টাকা কেজি।

পৃথিবী যে দ্রুতই এগিয়ে যাচ্ছে, তার একটি প্রমান হয়তো বিজ্ঞানের নিত্য-নতুন আবিষ্কার।

সরকারের এই দাম অনুযায়ী মণপ্রতি ধানের দাম এক হাজার টাকার বেশি হয়। কিন্তু সরকারি কেনার প্রক্রিয়া মাঠ পর্যায়ে এখনও সেভাবে শুরু হয়নি। কৃষি মন্ত্রী ড: আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে সরকারও স্থায়ী উপায় হিসেবে প্রযুক্তির ব্যবহারসহ বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়ে এগুতে চাইছে।

"ধান লাগানো এবং ধান কাটার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি খরচ হয়। এই ক্ষেত্রে প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য সরকার কৃষককে সহযোগিতা করছে। একটি যন্ত্র কিনতে কৃষক ৫০ টাকা দিলে সরকার বাকি ৫০ টাকা দিচ্ছে। আরও কিভাবে খরচ কমানো যায়, সেই পরিকল্পনা করা হচ্ছে। কিন্তু এটা একদিনে সম্ভব না। অনেক সময় প্রয়োজন।"

কৃষি অর্থনীতিবিদরা বলছেন, সারাদেশের কৃষকদের তালিকা এবং তথ্য সরকারের কাছে আছে। ফলে সরকার কৃষকদের সাথে নিয়ে তাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে গুরুত্ব দিলে অল্প সময়েই স্থায়ী সমাধান সম্ভব হতে পারে।



এ সম্পর্কিত খবর

বাগেরহাট নতুন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ

বাগেরহাট নতুন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট: বাগেরহাটজেলা নবাগত জেলা প্রশাসক হিসেবে  কর্মস্থলে যোগদান করবেন মো. মামুনুর

সিলেট বিভাগ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভা

২৩ জুন সিলেট বিভাগ ও বি-বাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট  

২৩ জুন সিলেট বিভাগ ও বি-বাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট  

সিলেট, বি-বাড়ীয়া, হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ মালিক শ্রমিকের আয়োজন পরিবহণ শ্রমিকদের এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শার্শায় মাদ্রাসা ছাত্র হত্যার প্রধান আসামী শিক্ষক হাফিজুর আটক

শার্শায় মাদ্রাসা ছাত্র হত্যার প্রধান আসামী শিক্ষক হাফিজুর আটক

বেনাপোল প্রতিনিধি:  যশোরের শার্শা উপজেলায় চাঞ্চল্যকর মাদ্রাসা ছাত্র শাহপরান হত্যা মামলার প্রধান আসামী  কাগজপুকুর হাফিজিয়া


মহিপুরে সাংবাদিক জাহিদ রিপনের রোগ মুক্তির জন্য দোয়া-মিলাদ অনুষ্ঠিত 

মহিপুরে সাংবাদিক জাহিদ রিপনের রোগ মুক্তির জন্য দোয়া-মিলাদ অনুষ্ঠিত 

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি  ঃ  মহিপুরে এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ, দৈনিক দেশ রুপান্তর পটুয়াখালী

রাণীশংকৈলে নেকমরদ হাটে টানা ৩ দিনে প্রায় ২'শ স্থাপনা উচ্ছেদ

রাণীশংকৈলে নেকমরদ হাটে টানা ৩ দিনে প্রায় ২'শ স্থাপনা উচ্ছেদ

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) সংবাদদাতা: ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে নেকমরদ হাটে টানা ৩দিনে অভিজানে প্রায় ২'শ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের

সাংবাদিকদের সহযোগিতা পেলে বরিশালকে মিনি সিঙ্গাপুরে রূপান্তরিত করবো: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

সাংবাদিকদের সহযোগিতা পেলে বরিশালকে মিনি সিঙ্গাপুরে রূপান্তরিত করবো: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল: বরিশাল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অব.) জাহিদ


সভাপতি ইসমাঈল, সেক্রেটারি আজিজ ও কোষাধ্যক্ষ কুদ্দুস

রাজাপুরে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন

রাজাপুরে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন সম্পন্ন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা ইমারত নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের দ্বি বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এতে

রাজাপুরে বিষ প্রয়োগে কবুতর ও ঘুঘুসহ অর্ধশত পাখি হত্যা!!

রাজাপুরে বিষ প্রয়োগে কবুতর ও ঘুঘুসহ অর্ধশত পাখি হত্যা!!

রহিম রেজা, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুরে বিষ প্রয়োগে পোষা কবুতর ও ঘুঘুসহ অর্ধশত পাখি হত্যার

দাঁতের চিকিৎসা শেষে ফের কেবিনে খালেদা জিয়া

দাঁতের চিকিৎসা শেষে ফের কেবিনে খালেদা জিয়া

এওয়ান নিউজ: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা



আরো সংবাদ





আম চেনার যত উপায় (ভিডিও)

আম চেনার যত উপায় (ভিডিও)

২৯ মে, ২০১৯ ১১:৩৬









ব্রেকিং নিউজ