সোমবার 21 জানুয়ারী 2019 - ৭, মাঘ, ১৪২৫

শীত-কুয়াশায় হুমকির মুখে উত্তরের বোরো চাষ

১০ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৭:৪৬:০৮

 / ডেস্ক নিউজ/

ক’দিন আগেই তৈরি বীজতলায় চারাগুলো বেড়ে উঠছিলো। এরমধ্যে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে শীতের পাশাপাশি দিনভর ঝড়ছে কুয়াশা। এতে বীজতলায় বেড়ে ওঠা চারাগুলো সবুজ থেকে লালচে আবরণ ধারণা করেছে। যা পরবর্তীতে শুকিয়ে মারা যাবে। তবে এগুলোর হাত থেকে বীজতলা রক্ষায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কৃষক। কারণ বীজতলা রক্ষা করতে না পারলে আগামী বোরো চাষ হুমকির মুখে পড়বে। তাতে তাদের কপাল পুড়বে। আর বোরো চাষ নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক পরামর্শ ও সহযোগিতা করে যাচ্ছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা-মাঠকর্মীরা। এমন অবস্থা উত্তরের আট জেলায়। তবে দিনাজপুর, ঠাকুরগাও ও পঞ্চগড়ের অবস্থা তুলনামূলক বেশি খারাপ।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এরইমধ্যে কৃষকরা বোরো চাষের বীজতলা তৈরি করেছেন। বীজতলায় চারা বাড়তে শুরু করেছে। জানুয়ারির মাঝামাঝি থেকে এ চারা রোপণ করা হবে ফসলি জমিতে। 

দিনাজপুর জেলার ১৩ উপজেলার ১ লাখ ৭৩ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যার উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা করা হয়েছে ৬ লাখ ৮৫ হাজার মেট্রিক টন। উৎপাদন ভালো হলে তা ৭ লাখ মেট্রিক টন ছাড়িয়ে যেতে পারে। 

দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে আরো জানা যায়, এবার প্রতি হেক্টর জমিতে ৪ দশমিক ৭৫ থেকে ৫ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে কৃষি বিভাগ। বোরো চাষে জেলার সব চাষাবাদ জমিতে সেচ কাজে ২ হাজার ৮৫৭টি বিদ্যুৎচালিত গভীর নলকূপ, ১৩ হাজার ৪৬৬টি অগভীর নলকূপ, ৬২ হাজার ৬৬৯টি ডিজেল চালিত নলকূপ ও ৩৮৬টি ললিত পাম্প ব্যবহার করা হবে। 

দিনাজপুর সদর উপজেলার ৯ নং আস্করপুর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের বর্গা চাষি মো. আনোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশার কারণে বীজতলার চারাগুলো হলুদ হয়ে যাচ্ছে। চারা রক্ষায় কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী বালাইনাশক প্রয়োগ করা হয়েছে। কিন্তু তাতে প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছেনা। উৎপাদনে অতিরিক্ত খরচও হচ্ছে। চারা রক্ষা করতে না পারলে এবার বোরো চাষ অনিশ্চিত। 

দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. গোলাম মোস্তফা বাংলানিউজকে জানান, শীত ও কুয়াশার হাত থেকে বীজতলার চারা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সব সহযোগিতা ও পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ও মাঠকর্মীরা।

 



এ সম্পর্কিত খবর

সিলেটে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন আলোচনা সভা

সিলেটে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন আলোচনা সভা

বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন সিলেট বিভাগ, জেলা ও মহানগর শাখার যৌথ উদ্যোগে ২০ জানুয়ারি রোববার

৩০২৫ পত্রিকার দেশে অনলাইন কেন মাথাব্যথা!

৩০২৫ পত্রিকার দেশে অনলাইন কেন মাথাব্যথা!

মাজেদুল নয়ন : গত ১৫ বছরে অনলাইন সংবাদপত্র দেশে একটি শক্তিশালী অবস্থান তৈরি করেছে। সামাজিক যোগাযোগ

গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে সংলাপ হতেই পারে: কাদের

গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে সংলাপ হতেই পারে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে সংলাপে বসার জন্য সম্প্রতি জাতিসংঘের আহ্বানের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ


সিম চাষে সফল শাহানা

সিম চাষে সফল শাহানা

সারওয়ার আলম মুকুল,কাউনিয়া (রংপুর) থেকে- কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের নাজিরদহ গ্রামে বসত ভিটায় অর্গানিক পদ্ধতিতে

বেক্সিটের ভূত ও ব্রিটেনের ভাগ্য

বেক্সিটের ভূত ও ব্রিটেনের ভাগ্য

মীযানুল করীম: ব্রিটেনের পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট ইস্যুতে গো-হারা হেরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সরকারের ভাগ্য ও ভবিষ্যৎ

স্বাবলম্বি হতে হলে তৃণমূলে নারীদের সংগঠিত হতে হবে: তাসমিমা হোসেন

স্বাবলম্বি হতে হলে তৃণমূলে নারীদের সংগঠিত হতে হবে: তাসমিমা হোসেন

রবিউল হাসান রবিন ,কাউখালী প্রতিনিধি: দৈনিক ইত্তেফাক ও পাক্ষিক অনন্যা সম্পাদক তাসমিমা হোসেন বলেছেন, তৃণমূলের


ঐক্যফ্রন্টের গন্তব্য কি?

ঐক্যফ্রন্টের গন্তব্য কি?

নিজস্ব প্রতিবেদক: বহুল আলোচিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগ মুহুর্তে সাত দফা দাবী নিয়ে

স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে এলাকাবাসী

ফসলের ক্ষেতে ইটের প্লাজা

ফসলের ক্ষেতে ইটের প্লাজা

নিজস্ব প্রতিনিধি: সরকারি নীতিমালা উপেক্ষা করে সাতক্ষীরার তালায় বানিজ্যিক ভিত্তিতে ”রিয়া ব্রিকস” নামে ইট প্রস্তুত

বাঁধাকপি এখন গো খাদ্য !

বাঁধাকপি এখন গো খাদ্য !

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ ক্রমাগত দরপতনে লোকসানের সম্মুখীন হয়েছেন ঝিনাইদহের বাঁধা কপিচাষীরা। প্রতি কেজি ২-৩ টাকায়



আরো সংবাদ







আজও শ্রমিক বিক্ষোভে থমথমে আশুলিয়া

আজও শ্রমিক বিক্ষোভে থমথমে আশুলিয়া

১৪ জানুয়ারী, ২০১৯ ১১:০৫







ব্রেকিং নিউজ