বাংলাদেশ শুক্রবার 17 অগাস্ট 2018 - ২, ভাদ্র, ১৪২৫

দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখরিত রংপুর চিড়িয়াখানা 

১৯ এপ্রিল, ২০১৮ ১৬:৩১:০০

হারুন উর রশিদ সোহেল, রংপুর ॥ 
রংপুর বিভাগের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র রংপুর চিড়িয়াখানার দর্শনার্থীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে । রংপুর বিভাগসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা নারী-পুরুষ ও শিশুদের পদচারণা মুখরিত হয়ে বিনোদনের কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠছে রংপুর চিড়িয়াখানা। 

এদিকে সচেতন মহলের দাবি,প্রাণি বৈচিত্র্যের সংখ্যা বাড়ানো হলে জণসাধারণের বিনোদনের পাশাপাশি সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে।
রংপুর চিড়িয়াখানা সূত্রে জানা যায়, ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৯৮৯ সালে রংপুর মহানগরীর হনুমানতলা এলাকায় রংপুর চিড়িয়াখানাটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। এটি দর্শনার্থীদের জন্য ১৯৯২ সালে খুলে দেওয়া হয়। ২২ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত রংপুর চিড়িয়াখানায় বর্তমানে ২৬ প্রজাতির প্রাণী রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ১শ’ ৫ রকমের পাখি এবং ৯৮ প্রজাতির বিভিন্ন সরীসৃপ ও অন্যান্য প্রাণী। এর মধ্যে ১টি জলহস্তি, ২টি সিংহ, ১টি বাঘ, ২টি ভাল্লুক, ৪টি ঘড়িয়াল, ১টি কুমির, ৩টি অজগর, বানর, হরিণ, কেশোয়ারী, গাধা, বেবুন, সজার“, খরগোস। এছাড়া রয়েছে মদন টেক, পানকৌড়ি, নিশি বক, কানিবক, সাদা বকসহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখি। ডেপুটি কিউরেটর ডা. জসিম উদ্দিন যোগদানের পর পরই তার একান্ত প্রচেষ্টা ও সদি”ছায় এই বিনোদন কেন্দ্রের ভেতর-বাহির পরিস্কার-পরিছন্নসহ সৌন্দর্য্য বর্ধন, প্রধান ফটকজুড়ে ডিজিটাল সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। সব পশুপাখির খাচার প্রয়োজনীয় সংস্কারসহ আকর্ষণীয় রং করণ, প্রাণী সংযোজন, তৃণভুজি প্রাণীর জন্য অতিরিক্ত ঘাস চাষ, প্রতিটি খাচার কাছে যেতেই নাকে রুমাল কিংবা কাপড় ধরতে হয়েছিল দর্শনার্থীদের কিন্তুু‘ সমস্যা নিরসনে সব খাচা ও তার পাশপাশজুড়ে এখন নিয়মিত ব্লিচিং পাউডার ব্যবহার করণ, প্রাণীর স্বাস্থ্যদেখভাল কার্যক্রম প্রতিনিয়তই অব্যাহত রেখেছেন কর্তৃপক্ষ।

 বিশেষ দিবস ও উৎসবে নিজস্ব আলোক সজ্জ্বার ব্যবস্থা করার উদ্দ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে এই বিনোদন কেন্দ্রে ঢাকা থেকে আনা হয়েছে ৬টি ময়ুর। ময়ুরের ডিম ফোঁটানোর চেষ্টা চলছে। প্রাণী স্থানীয় সংযোজন ঘোড়া, হনুমান, ময়ুর, বন বিড়াল, তাকী। এছাড়াও সবচেয়ে শিশুপার্কটিকে আরো যুগপোযোগী করে তুলতে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে শিশুপার্কে সুইং হেলিকপ্টার, ডেঞ্জার বোর্ট, লেকের উপর ব্রীজ ও পার্কের প্রধান ফটক গড়ে তুালা হয়েছে। যা একবার স্বচক্ষে না দেখলে মনের আশা-আকাঙ্খা অপুরণীয় থাকবে এমনটাই অভিমত ব্যক্ত করেছেন দর্শনার্থীরা। 

গত ১ বৈশাখ থেকে আলোকসজ্জা করার মধ্য দিয়ে রংপুর বিনোদন উদ্যান ও চিড়িয়াখানাটি নান্দনিকতার ছোঁয়া পাওয়ায় আরো এক ধাপ এগিয়েছে বিনোদনকেন্দ্রটি। 

আজ বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিনে রংপুর চিড়িয়াখানায় গিয়ে দেখা যায়, রংপুর বিভাগসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়ে মুখরিত হয়ে উঠেছে গোটা এলাকা। চিড়িয়াখানার ভিতরে রয়েছে একটি শিশু পার্ক। রয়েছে পেয়ারা ও আম বাগান এবং পাশেই ১টি লেক। চিড়িয়াখানার প্রধান গেট পেরিয়ে বিরাট একটি খাঁচায় রয়েছে বিশাল আকৃতির জলহস্তি ‘রিয়ন’। এই বন্দি যুবরাজের কার্যকলাপ দেখার জন্য শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের নারী-পুরুষ পুরো খাঁচাটি ঘিরে রেখেছে। এই খাঁচার বিপরীত দিকেই খাঁচাবন্দি একদল বানরের দুষ্টুমি দেখতে হামলে পড়েছে দর্শনার্থীরা। কিছুদূর এগিয়ে দেখা গেল সিংহ ‘বাদশা’ ও সিংহী ‘বর্ষা রানি’। প্রায় ৩ মাস ভিন্ন ভিন্ন খাঁচায় থাকার পর আবার নতুন করে এক খাঁচায় শুরু হয়েছে তাদের যৌথ সংসার। অপর একটি খাঁচায় সঙ্গীহীন জীবনযাপন করছে বাঘিনী শাওন। 

চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৩ সালের ৩০ জুন ঢাকা চিড়িয়াখানায় জন্ম নেওয়া বাঘিনী শাওনকে বাঘ সুলতানের সঙ্গী হিসেবে ২০১০ সালের জানুয়ারিতে রংপুর চিড়িয়াখানায় আনা হয়। শাওনকে যখন আনা হয় তখন বাঘ সুলতানের বয়স ১৭ বছর। ফলে বংশবৃদ্ধি ঘটেনি। সুলতান ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে মারা যাওয়ার পর থেকে সঙ্গীহীন জীবন কাটা”েছ শাওন। অন্যান্য খাঁচায় রয়েছে দুটি মহিলা ভাল্লুক, পুরুষ জলহস্তী, গাধা ২টি, কোশোয়ারি ও বেবুন। কর্তৃপক্ষ সূত্র মতে, শীঘ্রই একাকী প্রাণিগুলোর জন্য যথোপযুক্ত সঙ্গী আনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা অব্যাহত রয়েছে। 

রংপুর চিড়িয়াখানায় বেড়াতে আসা দর্শনার্থী মটর শ্রমিক নেতা নাছির উদ্দিন বাবলু বলেন, বিনোদন নেয়ার বয়স এখন আর নেই, তারপরও এসেছে। ভালোই লাগলো চিড়িয়াখানায় এসে। আগের চেয়ে অত্যন্ত ভালো হয়েছে এবং সবকিছুই গোছালো। 

রংপুর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী শহিদুল ইসলাম ও মিজান জানান,প্রাকৃতিক পরিবেশে গাছ-গাছালির নিবিড় ছায়া ঘেরা রংপুর চিড়িয়াখানা আসলেই অনেক সুন্দর। 
রংপুর মহানগরীর তামপাট এলকার আশরাফুল আলম নেতা ও হুমায়ন রশিদ শাহিন জানান, পরিবার-পরিজন কিংবা প্রিয়জনের সঙ্গে নৈসর্গিক পরিবেশে সারাদিন কাটানোর জন্যে এই বিনোদন কেন্দ্রের তুলনা হয় না। তবে যেসব প্রাণী এখনো একা রয়েছে তাদের জোড়া মেলানো সম্ভব হলে এই চিড়িয়াখানাটি হতে পারে উত্তরাঞ্চলসহ দেশের অন্যতম আকর্ষণীয় বিনোদন কেন্দ্র। 

চিড়িয়াখানার ইজারাদার হজরত আলী বলেন, এ অঞ্চলের মানুষের বিনোদন নির্ভর স্থান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। সেবার মান বাড়াতে আমরা বদ্ধপরিকর। মানুষজন যাতে এখানে নির্বিঘ্নে ঘোরাফেরা করতে পারে সেজন্য সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ আমরা যাবতীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। রংপুর চিড়িয়াখানাকে আরও সমৃদ্ধ করতে এজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এ ব্যাপারে রংপুর বিনোদন উদ্যান ও চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর ডা. জসিম উদ্দিন বলেন, সবার সহযোগিতা পেলে বিনোদন কেন্দ্রটি সেরা হিসেবে দ্বার করানো সম্ভব। প্রাণীর সংযোজন করতে মন্ত্রণালয় ও প্রাণী সম্পদ বিভাগের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। অচিরেই আরো প্রাণী আসবে বলে জানান তিনি।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

উত্তরের ৩ জেলার মানুষকে ঈদের উপহার ধরলা সেতু দিলেন প্রধানমন্ত্রী

উত্তরের ৩ জেলার মানুষকে ঈদের উপহার ধরলা সেতু দিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে এবং আন্তরিকতা থাকলে দেশের উন্নয়ন করা

সভাপতি প্রভাত, সম্পাদক পার্থ

বেরোবিতে গাইবান্ধা জেলা সমিতির কমিটি গঠন

বেরোবিতে গাইবান্ধা জেলা সমিতির কমিটি গঠন

স্টাফ রিপোর্টার: বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে গাইবান্ধা জেলা সমিতির নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি

বেরোবিতে গাইবান্ধা জেলা সমিতির ইফতার মাহফিল ও কমিটি গঠন

বেরোবিতে গাইবান্ধা জেলা সমিতির ইফতার মাহফিল ও কমিটি গঠন

  বেরোবি প্রতিনিধি   বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে গাইবান্ধা জেলা সমিতির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল ও নবীনবরণ


অনুপ্রবেশের দায়ে ফুলবাড়ী সীমান্তে রংপুরের দুই যুবক আটক

অনুপ্রবেশের দায়ে ফুলবাড়ী সীমান্তে রংপুরের  দুই  যুবক আটক

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি- কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে দুই বাংলাদেশী যুবককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ

কুড়িগ্রামে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষ নিহত ২

কুড়িগ্রামে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষ নিহত ২

নিজস্ব প্রতিবেদক:কুড়িগ্রামের কচাকাঁটা থানার কেদার ইউনিয়নের বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত ঘেঁষা সাতানা গ্রামে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের

প্রজ্ঞাপনের দাবিতে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ

প্রজ্ঞাপনের দাবিতে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর কোটা বাতিলের ঘোষণার প্রজ্ঞাপন দ্রুত জারির দাবিতে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ


লালমনিরহাটের কৃতি সন্তান ডিআইজি সোহরাবের জানাজা নামাজ সম্পন্ন

লালমনিরহাটের কৃতি সন্তান ডিআইজি সোহরাবের জানাজা নামাজ সম্পন্ন

এস আর শরিফুল ইসলাম রতন, লালমনিরহাট। লালমনিরহাট জেলার কৃতি সন্তান ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি মো. সোহরাব

মানসম্মত শিক্ষা এখন সময়ের দাবি:সৈয়দপুরে শিক্ষামন্ত্রী

মানসম্মত শিক্ষা এখন সময়ের দাবি:সৈয়দপুরে শিক্ষামন্ত্রী

 নীলফামারী প্রতিনিধি: শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, দেশের শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক ও যুগান্তকারী উন্নয়ন হয়েছে।

রংপুরে আঞ্চলিক যুব উৎসব অনুষ্ঠিত

রংপুরে আঞ্চলিক যুব উৎসব অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর। রংপুরে আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে আঞ্চলিক যুব উৎসব। একশনএইড আয়োজিত দিনব্যাপী এই



আরো সংবাদ



ভ্যালেনটাইন'স ডের আজব ইতিহাস

ভ্যালেনটাইন'স ডের আজব ইতিহাস

১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ২০:৪৯

চিনি মসজিদ

চিনি মসজিদ

১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ২০:০১


ঐতিহ্যের কারমাইকেল কলেজ

ঐতিহ্যের কারমাইকেল কলেজ

১৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:৪১

ঠাকুরগাঁও জেলার ইতিহাস

ঠাকুরগাঁও জেলার ইতিহাস

১৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:২৭

রংপুর জেলার ঐতিহ্য

রংপুর জেলার ঐতিহ্য

১৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৯:১৯


ব্রেকিং নিউজ

Demo  Data Add 3

Demo Data Add 3

০৮ জুলাই, ২০১৮ ২৩:৩১

Demo  Data Add 2

Demo Data Add 2

০৮ জুলাই, ২০১৮ ২৩:২৪

Demo  Data Add

Demo Data Add

০৮ জুলাই, ২০১৮ ২২:৪০


এক নজরে দেখে নিন

এক নজরে দেখে নিন

২৮ জুন, ২০১৮ ০৯:৩৬

ভার্সাই চুক্তি স্বাক্ষর

ভার্সাই চুক্তি স্বাক্ষর

২৮ জুন, ২০১৮ ০৯:৩৪

বিনোদনের খবর

বিনোদনের খবর

২৮ জুন, ২০১৮ ০৯:২৩