মঙ্গলবার 21 মে 2019 - ৭, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬

মরিচ চাষে স্বাবলম্বী হয়ে উঠছেন রংপুর অঞ্চলের চাষীরা

২২ এপ্রিল, ২০১৮ ১৬:০৭:১৮

স্টাফ রিপোর্টার: মরিচ চাষে স্বাবলম্বী হয়ে উঠছেন এখন রংপুর অঞ্চলের চাষীরা। উন্নতমানের ‘মরিচ সুপার’ জাতের মরিচের বীজ চাষ করে ইতোমত্যেই ভাগ্য বদল হয়েছে অনেক চাষীর। এই জাতের মরিচে ঝাল ও ফল বেশী হওয়ায় মরিচ চাষে ঝুঁকছেন এখন অনেকেই। স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলে যাচ্ছে এখন রংপুরের মরিচ।
গত বুধবার কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি উপজেলার কুটিরচন্দ্র গ্রামের খলিল মিয়ার বাড়িতে বসেছিল মরিচ চাষীদের মিলন মেলা। লাল তীর সীডের আয়োজনে মাঠ দিবস উপলক্ষে ওই মিলন মেলায় মরিচ চাষে ভাগ্য বদলের গল্প শুনিয়েছেন অনেক চাষী। এরমধ্যে খলিল মিয়াও একজন। তিনি জানান, আধুনিক প্রযুক্তি ও পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে মরিচ চাষ করে আমার সংসারে সুখের দেখা মিলেছে। আগে সংসারে অভাব অনটন লেগেই থাকতো। দুই বছর থেকে অভাব বলতে আমার সংসারে কিছুই নেই। আমি লাল তীর সীড কোম্পানির হাইব্রিড মরিচের নতুন জাত ‘মরিচ সুপার’ বীজ ৫ গ্রাম সাইজের ৫ প্যাকেট ক্রয় করে ৪০ শতক জমিতে লাগিয়েছি। এই পর্যন্ত চাষ করতে জমি চাষ থেকে শুরু করে তোলা পর্যন্ত খরচ হয়েছে ১৩ হাজার টাকা। বুধবার পর্যন্ত মরিচ সংগ্রহ করেছি ৭২ মন। যা বিক্রি করেছি প্রায় ৬৮ হাজার টাকায়। তিনি জানান, এখনও জমিতে ৫০ থেকে ৬০ মন মরিচ আছে। যা বেশী দামে বিক্রি করা যাবে। যা থেকে ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব হবে। আমি এই মরিচ বিক্রির টাকা দিয়ে ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ের পড়াশুনো ও সংসার চালাচ্ছি।

মিলন মেলায় উপস্থিত রংপুরের পীরগাছার পাওটানার চর ছাওলা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক, গাবুরা চরের সোহেল রানা জানান, ’মরিচ সুপার’ খুব ভালো জাত। এতে রোগ বালাই কম হয়। ফলনও ভালো হয়। এই মরিচের রং আকর্ষনীয় সবুজ ও লম্বাটে। এই জাতের মরিচ বৃষ্টি ও ক্ষরা সহনশীল। ঝালও খুব চড়া। গ্রাহকরা এই মরিচ বাজারে দেখে দেখে কিনে থাকেন। 
সুন্দরগঞ্জ উপেজলার বেলকা চরের মনজুরুল ইসলাম জানান, আমি ২০ শতক জমিতে আবাদ করেছি। ৩৫ মন বিক্রি করেছি। জমিতে আরও প্রায় ৪০ মনের মতো মরিচ আছে। এই জমিতে আমার আবাদ করতে খরচ হয়েছে ১০ হাজার টাকার কিছু বেশী। তিনি বলেন, এই মরিচ বিক্রির টাকা দিয়ে আমি ছেলেমেয়েদেরকে ভালোভাবে পড়াশুনা করাতে পারছি।আমি এখন স্বাবলম্বী।
মরিচ চাষীদের মিলন মেলায় উপস্থিত ফুলবাড়ী উপজেলা সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাতি বেগম জানান,আমি নিজেই কৃষি অফিস কর্তৃক পুরস্কার প্রাপ্ত একজন কৃষাণী। লাল তীর কম্পানীর হাইব্রিড বেগুন ‘পার্পল কিং’ চাষ করে এবার আমি এক লাখ টাকারও বেশী মুনাফা করেছি। ‘পার্পল কিং’ এ গাছে পাতার থেকে বেগুন বেশী। তিনি বলেন, আমিও এবার মরিচ সুপার আবাদ করেছি। ফলন আশানুতীত হয়েছে। মরিচের এতো ফলন হয়, সেটা আগে আমি কখনও দেখিনি।
মাঠ দিবস উপলক্ষে মরিচ চাষীদের মিলন মেলায় উপস্থিত ফুলবাড়ী উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ রিয়াজুল ইসলাম জানান, এই এলাকার মানুষ আগে নিজেদের খাবারের জন্য মরিচ চাষ করতো। এখন বাণিজ্যিকভাবে মরিচ চাষ করছে। এই মরিচ এই এলাকার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকা, চট্রগামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি হচ্ছে। মরিচ চাষের মাধ্যমে এই এলাকার মানুষ স্বাবলম্বী হয়ে উঠছেন। এটা এই এলাকার অর্থনীতির সূচকে অগ্রগতির মাইল ফলক হিসেবে কাজ করছে। তিনি বলেন, লাল তীর একটি গবেষণা ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান। এর উদ্ভাবিত হাইব্রীড জাতের মরিচ সুপারও কৃষি বিজ্ঞানীদের গবেষণালব্ধ বীজ। এটি চাষ করে মাঠেও চাষীরা লাভবান হচ্ছেন। চাষীদেরকে আরও আন্তরিকতা নিয়ে আধুনিক  প্রযুক্তি ও পদ্ধতি ব্যবহার করে মরিচ চাষ করতে হবে।
ফুলবাড়ী উপজেলার বালাইনাশক ও বীজ ব্যবসায়ী গোলাম রব্বানী জানান, এই এলাকার মানুষ এখন মরিচ চাষে ঝুঁকছেন। লাল তীর সীডের মরিচ সুপার বীজ কেনার জন্য প্রতিদিনই কৃষকরা আমার দোকানে আসছেন। যারা মরিচ চাষ করেছেন তারা খুব খুশি। কারন সবাই এই মরিচ চাষ করে স্বাবলম্বি হয়েছে।
বেসরকারী সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ডেভলেপমেন্ট এন্টারইজেস (আইডিই) এর বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অফিসার কৃষিবিদ কামরুজ্জামান জানান, লাল তীরের মরিচ সুপার বীজ কৃষকদের মধ্যে ব্যপক সাড়া জাগিয়েছে। এই বীজ ব্যপকভাবে ছড়িয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করা হলে এই অ লে মরিচ চাষে বিপ্লব ঘটবে। যা এই অ লের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করবে।
লাল তীর সীডের রংপুর অ লের রিজিওনাল ম্যানেজার হেলাল উদ্দিন বলেন, লাল তীর সীড কোম্পানীতে কর্মরত দেশের সেরা কৃষি বিজ্ঞানীদের দীর্ঘদিনের গবেষণালব্ধ হাইব্রীড জাতের মরিচ সুপার বীজ এখন কৃষকদের মধ্যে বড় ধরনের আশা জাগিয়েছে। শুধু কুড়িগ্রামেই নয়, উত্তরা লের প্রায় প্রতিটি জেলাতেই আমাদের উদ্ভাবিত জাতের মরিচ সুপার বীজ চাষ করে চাষীরা লাভবান হচ্ছেন। ভালো বীজ পেয়ে চাষীরা অধিকহারে মরিচ চাষের দিকে ঝুঁকছেন। তিনি বলেন, লাল তীর উদ্ভাবিত হাইব্রিড’ টিয়া’ করলা ও হাইব্রিড বেগুন ’ পার্পল কিং’ এর মতো মরিচ সুপারও সারাদেশ এবং বিশ্ব বাজারে স্থান করে নিবে। কারন ভাইরাস প্রতিরোধী এই মরিচের জাত চাষ কৃষকরা ঝামেলামুক্ত ছাড়াই করতে পারছেন। তিনি বলেন, আমরা বীজ বিক্রির পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ে দক্ষ কৃষিবিদ কর্মকর্তাদের দ্বারা কৃষকদের আধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ ও বাজারজাত করণের ট্রেনিং দিয়েও থাকি।
রংপুর আ লিক কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, রংপুর অ লের ৫ জেলায় এবার হাজার হেক্টর জমিতে মরিচের আবাদ হয়েছে। এরমধ্যে এখনও অনেক চাষী আগের পদ্ধতিতেই মরিচ চাষ করছেন। ফলে অনেক চাষীই এখনও সেভাবে মরিচ চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন না। এজন্য সরকারী বেসরকারী উদ্যোগে মরিচ চাষীদের মনিটরিং করে তাদের ট্রেনিং দিয়ে উন্নতজাতের বীজ ও আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে মরিচ চাষে উৎসাহ দেয়া হলে এই অ লে মরিচ চাষে বিপ্লব হতে পারে।
 



এ সম্পর্কিত খবর

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান কেনার সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ধান কেনার সুপারিশ সংসদীয় কমিটির

এওয়ান নিউজ: নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয়কে বেশি ধান কেনার ব্যবস্থা করতে বলেছে সংসদীয় স্থায়ী

ধানের দাম নিয়ে বিভিন্ন মহলের সঙ্গে আলাপ আলোচনা হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী  

ধানের দাম নিয়ে বিভিন্ন মহলের সঙ্গে আলাপ আলোচনা হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী  

এওয়ান নিউজ:  সরকার কৃষকের পাশেই আছেে উল্লেখ করে কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, ধানের

টিকিট ছাড়া গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে না: সাঈদ খোকন

টিকিট ছাড়া গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে না: সাঈদ খোকন

এওয়ান নিউজ: রাজধানীতে টিকিট ছাড়া গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি


এবার ঈদে নীলফামারীতে ভিজিএফ চাল পাবেন ৪ লাখের অধিক মানুষ 

এবার ঈদে নীলফামারীতে ভিজিএফ চাল পাবেন ৪ লাখের অধিক মানুষ 

নীলফামারী প্রতিনিধি: পবিত্র ঈদ উল ফিতরে নীলফামারীর ৪ লাখ ৪ হাজার ৩১৫ জন অতিদরিদ্র মানুষ

নীলফামারীর ইট ভাটা গিলে খাচ্ছে আবাদী জমি: রাস্তাঘাটের বেহালদশা

নীলফামারীর ইট ভাটা গিলে খাচ্ছে আবাদী জমি: রাস্তাঘাটের বেহালদশা

নীলফামারী প্রতিনিধি: বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন ইটভাটা মালিকরা।কোন কিছুতেই থামানো যাচ্ছেনা তাদের দৌঁড়াত্ম। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে

নিহত ৩০ হাজার চা শ্রমিকদের স্মরণে সিলেট ভ্যালী কার্যকরী পরিষদের শোক সভা 

নিহত ৩০ হাজার চা শ্রমিকদের স্মরণে সিলেট ভ্যালী কার্যকরী পরিষদের শোক সভা 

১৯২১ সালের ২০শে মে মুল্লুকে চল আন্দোলনে ব্রিটিশ গোর্খা বাহিনীর গুলিতে নিহত ৩০ হাজার চা


অসাধু ব্যবসায়ীরা বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে কৃত্রিম উপায়ে কলা পাকাচ্ছে

অসাধু ব্যবসায়ীরা বিষাক্ত কেমিক্যাল মিশিয়ে কৃত্রিম উপায়ে কলা পাকাচ্ছে

টি আই সানি গাজীপুরঃ কলা অনেকেরই প্রিয় ফল। পুষ্টিগুণেও অনন্য এই ফল। তবে ভোক্তার হাতে

শ্রীপুরের নতুন ইউএনও শেখ শামসুল আরেফীন  

শ্রীপুরের নতুন ইউএনও শেখ শামসুল আরেফীন  

টি.আই সানি গাজীপুরঃ গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার নতুন নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পদে শেখ শামসুল আরেফীনকে পদায়ন

কলাপাড়ায় ইয়াবাসহ এক যুবক আটক 

কলাপাড়ায় ইয়াবাসহ এক যুবক আটক 

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি  ঃ  কলাপাড়ায় ৬২ পিচ ইয়াবাসহ সুমন প্যাদা (২৭) নামের এক



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ