আফগানদের বিপক্ষে রাতে মাঠে নামছে টাইগাররা


ডেস্ক: ভারতের দেরাদুনের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে রবিবার শুরু হচ্ছে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হওয়া ম্যাচটি দেশের দর্শকরা দেখতে পারবেন চ্যানেল আই ও গাজী টিভিতে।

টি-টোয়েন্টি বলেই নিজেদের পরিষ্কার ফেভারিট ভাবছেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। র‌্যাংকিংয়ে আফগানরা দুই ধাপ এগিয়ে। শুক্রবার রাতে প্রস্তুতি ম্যাচেও হেসেখেলে জিতেছে আফগানরা। সে কারণেই শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে বেশ ফুরফুরে ছিলেন আফগানিস্তান অধিনায়ক আসগর স্টানিকজাই ও কোচ ফিল সিমন্স। তাদের তুলনায় কিছুটা গুটিয়েই ছিলেন সাকিব ও বাংলাদেশ কোচ কোর্টনি ওয়ালশ।

চারজনের একসঙ্গে বসা ওই সংবাদ সম্মেলনের এক পর্যায়ে সিমন্স তো সঞ্চালকের ভূমিকাতেই চলে গিয়েছিলেন। সাকিবের কথা হয়তোবা তাদের আরও একটু উৎফুল্ল করে দিতে পারে, 'গত কয় বছর আফগানিস্তান খুব ভালো ক্রিকেট খেলছে। তারা অনেক দূর এগিয়ে গেছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে কয়েকজন দারুণ খেলোয়াড় উপহার দিয়েছে তারা।'

ইপিএলে তার সানরাইজার্স সতীর্থ লেগস্পিনার রশিদ খানের বেশ প্রশংসাও করলেন সাকিব, 'র‌্যাংকিংই প্রমাণ করে সে (রশিদ) কতটা ভালো বোলার। অবশ্যই সে আমাদের জন্য হুমকি।'

তবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে রশিদ-মুজিবের বিপক্ষে ভালো কিছু করা অবশ্যই সম্ভব বলেই মনে করছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। আফগান স্পিনারদের সামলানোটাই যে মূল চ্যালেঞ্জ সে ইঙ্গিতও দিয়েছেন সাকিব।

প্রস্তুতি ম্যাচের মতো সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। সাকিব অবশ্য এটা নিয়ে ভাবছেন না, 'আবহাওয়ার ওপর তো কারও নিয়ন্ত্রণ নেই। তবে এমন পরিস্থিতি হলে আমরা প্রস্তুত আছি। আমাদের দেশের কন্ডিশনও কিন্তু অনেকটা এমনই। মাঝে মাঝেই বৃষ্টি হয়, এর ভেতরেই আমাদের খেলা হয়। তাই এমন কিছু হলে আমরা সেটা সামাল দিতে পারব।'

কন্ডিশন নিয়ে চিন্তা না থাকলেও মুস্তাফিজ না থাকায় দলের পেস আক্রমণ নিয়ে বেশ চিন্তায় আছেন সাকিব। প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটিংও ভালো হয়নি। তাই প্রথম ম্যাচের আগে খানিকটা চাপেই আছে টাইগাররা।


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের  কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।