শনিবার 15 ডিসেম্বর 2018 - ৩০, অগ্রাহায়ণ, ১৪২৫

বাংলাদেশের মেয়েদের বদলে যাওয়ার রহস্য

০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:১৬:৪৭

এওয়ান ফিচার প্রতিবেদক: নারী ফুটবলে বাংলাদেশের পথচলা শুরু ২০০৫ সালে। দক্ষিণ কোরিয়ায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপ দিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে মেয়েদের অভিষেক ঘটে। ২০০৩ সালে চালু হয় প্রথম ঘরোয়া নারী ফুটবল টুর্নামেন্ট। এর প্রায় দুই বছর পর এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল এই টুর্নামেন্টে। ওই সময়ে মেয়েদের ফুটবলে টেনে আনা দুষ্করই ছিল। ক্ষুদ্র জাতিসত্তার ১১ জন মেয়েকে নিয়ে ২৩ সদস্যের ফুটবল দল গড়ে ফেডারেশন তখন কোরিয়ায় পাঠিয়েছিল বাংলাদেশ দলকে। মাত্র তিন মাসের অনুশীলন। এরপর ভারতে গিয়ে শুধু চারটি প্রস্তুতি ম্যাচ। এমন অল্প অনুশীলনে কি আর আন্তর্জাতিক মঞ্চে লড়াই করা যায়? ফলও তাই হলো খুব বাজে। এএফসির ওই টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচে গুয়ামের কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু পরের ম্যাচে জাপানের কাছে হারে ২৪-০ গোলে! গ্রুপের শেষ ম্যাচে হংকংয়ের সঙ্গে যদিও লড়াই করে হেরেছিল ২-৩ গোলের ব্যবধানে। অথচ সেই হংকংকেই চলতি বছরের মার্চ মাসে জকি ক্লাব অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল টুর্নামেন্টে ৬-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ। মালয়েশিয়া, ইরান, হংকং ও বাংলাদেশকে নিয়ে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে তিন ম্যাচে বাংলাদেশের মেয়েরা প্রতিপক্ষের জালে গোল দিয়েছিল ২৪টি! হয়েছিল অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন।

বাংলাদেশের মেয়েদের এমন বদলে যাওয়ার রহস্য একটাই—দীর্ঘমেয়াদি অনুশীলন। পাশাপাশি বেশি বেশি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া। এমনিতেই বয়সভিত্তিক বিভিন্ন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে কয়েক বছর ধরে শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়ে চলেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ২০১৪ সালে নেপালে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপ দিয়ে শুরু। এরপর তাজিকিস্তানে একই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন, ঢাকায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ বাছাইপর্বেও সেরা। এরপর গত বছর ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টের পর মার্চে হংকংয়ে চার জাতি জকি কাপেও হয়েছে চ্যাম্পিয়ন। সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ভুটানেও খুব আত্মবিশ্বাসী ছিলো এই বাংলাদেশ। কিন্তু ফাইনালে গিয়ে খানিকটা হোঁছট খেয়েছিলো আমাদের মেয়েরা।

বাংলাদেশের নারী ফুটবলের এই উত্থানের সবচেয়ে বড় অবদান বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্ট। একসময় ময়মনসিংহের কলসিন্দুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মেয়েরাই বেশি আধিপত্য দেখাত এই টুর্নামেন্টে। বয়সভিত্তিক ও জাতীয় দলে ময়মনসিংহের মেয়েদের এই আধিপত্য এখনো রয়েছে। আনন্দের খবর হচ্ছে, ময়মনসিংহের বাইরে টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, রাঙামাটি, রাজশাহী, ঠাকুরগাঁও, ঝালকাঠি, কক্সবাজার, ঝিনাইদহ থেকেও উঠে আসছে মেয়েরা।

বঙ্গমাতা স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্ট ছাড়াও জেএফএ কাপ ও যুব গেমসের সর্বোচ্চ গোলদাতা, সেরা উদীয়মান ও সেরা খেলোয়াড়দের বাছাই করে জাতীয় বয়সভিত্তিক দলের ক্যাম্পে সুযোগ দিচ্ছে ফেডারেশন। এরপর মতিঝিলের বাফুফে ভবনের আবাসিক ক্যাম্পে চলছে সারা বছর নিবিড় অনুশীলন।

গত বছরের ডিসেম্বরে ঢাকায় অনূর্ধ্ব-১৫ সাফের প্রথম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। অথচ এরপর মাত্র ১০ দিনের ছুটি পেয়েছিল মেয়েরা! তারপর থেকেই টানা সাত মাস কোচ গোলাম রব্বানীর অধীনে দুই বেলা অনুশীলন করেছে মেয়েরা। এত কষ্ট আর পরিশ্রমের ফল তো মাঠেই পেয়ে যাচ্ছে মারিয়া মান্দারা। কষ্টগুলোকে তাই মোটেও কষ্ট বলে মনে হয় না। থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে সবার হয়ে যেন অধিনায়ক মারিয়া মান্দা সেই কথাটাই বলছিল, ‘আমাদের সামনে খেলা থাকলে ছুটি দেন না স্যারেরা। ভালো কিছু করতে হলে কষ্ট তো করতেই হবে। এটা সত্যি, গতবার বড়দিনে ছুটি পাইনি। ঈদেও অনেকে বাড়ি যেতে পারে না। বাড়িতে যেতে পারব না ভেবে প্রথমে একটু মন খারাপ হতো। কিন্তু পরক্ষণই নিজেকে সান্ত্বনা দিতাম, আমি তো দেশের প্রতিনিধিত্ব করছি। দেশের জন্য কিছু করতে পারলেই নিজের কাছে ভালো লাগে।’

এবারের টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ছাড়াও অংশ নিচ্ছে ভারত, ভুটান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। অন্য দলের চেয়ে বাংলাদেশকে একটু এগিয়েই রাখছেন কোচ গোলাম রব্বানী, ‘এই দলের সবচেয়ে ভালো দিক হলো, ম্যাচের শুরু থেকে ৯০ মিনিট পর্যন্ত ওরা একই ধারায় খেলতে পারে। এটা আমাদের জন্য বিশাল প্লাস পয়েন্ট। মেয়েদের ফিটনেস ভালো। ট্যাকটিক্যালি ও টেকনিক্যালি ওদের মধ্যে বোঝাপড়া দারুণ।’



এ সম্পর্কিত খবর

বাংলাদেশের নির্বাচনী পরিবেশ কেন প্রশ্নবিদ্ধ?

বাংলাদেশের নির্বাচনী পরিবেশ কেন প্রশ্নবিদ্ধ?

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশজুড়ে ব্যাপক প্রচার প্রচারণার মধ্যে প্রতিনিয়ত গ্রেফতার আতঙ্কে

স্প্লিন্টার বিদ্ধ হয়েছে মেরিনার দুই চোখে

সিরাজগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে রুমানা মাহমুদসহ ৪৪ জন গুলিবিদ্ধ  

সিরাজগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে রুমানা মাহমুদসহ ৪৪ জন গুলিবিদ্ধ  

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে পুলিশ-বিএনপির সংঘর্ষে পুলিশের শটগান, গ্যাস সেল ও বিএনপি ইটপাটকেল নিক্ষেপে বিএনপির এমপি

একাই চালিয়ে যাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচারনা বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজ মাষ্টার

একাই চালিয়ে যাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচারনা বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজ মাষ্টার

টি.আই সানি গাজীপুরঃ ৭১ বছরে পা রেখেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম মফিজ উদ্দিন আহমদ। একাদশ জাতীয়


হুমকি-ধামকি হামলা চালিয়ে হাতপাখা মার্কার গণজাগরণ বন্ধ করা যাবে না: চরমোনাই

হুমকি-ধামকি হামলা চালিয়ে হাতপাখা মার্কার গণজাগরণ বন্ধ করা যাবে না: চরমোনাই

এওয়ান নিউজ: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন,

নৌকায় হিন্দুদের শতভাগ ভোট চাইলেন শেখ সারহান নাসের তন্ময়

নৌকায় হিন্দুদের শতভাগ ভোট চাইলেন শেখ সারহান নাসের তন্ময়

এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট.বাগেরহাট অফিস:সনাতন ধর্মাবলম্বীদরে সাথে এক মতবিনিময় সভায় বাগেরহাট-২ আসনে নৌকা

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বপ্ন পূরণে শেখ হাসিনার বিকল্প নাই:এনামুল হক শামীম

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বপ্ন পূরণে শেখ হাসিনার বিকল্প নাই:এনামুল হক শামীম

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ও আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক


ছাতকে এমপি মানিককে আঞ্জুমানে আল ইসলাহ ও তালামীযের সমর্থন

ছাতকে এমপি মানিককে আঞ্জুমানে আল ইসলাহ ও তালামীযের সমর্থন

ছাতক প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারা) নির্বাচনী এলাকায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত সংসদ সদস্য প্রার্থী বর্তমান সাংসদ মুহিবুর

ছাতকে সাংবাদিকদের সাথে মিজান চৌধুরির মতবিনিময়

ছাতকে সাংবাদিকদের সাথে মিজান চৌধুরির মতবিনিময়

ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারা) আসনে বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মনোনীত

৩০ ডিসেম্বর ব্যালটের মাধ্যমে অবৈধ সরকারকে মাটিতে নামানো হবে-মিজানুর রহমান চৌধুরী

৩০ ডিসেম্বর ব্যালটের মাধ্যমে অবৈধ সরকারকে মাটিতে নামানো হবে-মিজানুর রহমান চৌধুরী

ছাতক প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ-৫ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মিজানুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, ছাতক-দোয়রায় ধানের শীষের গণজোয়ার



আরো সংবাদ



নারীদের যে অভ্যাসগুলো ক্ষতিকর

নারীদের যে অভ্যাসগুলো ক্ষতিকর

১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৩০



মিয়ানমারের নারী পাচার হচ্ছে চীনে!

মিয়ানমারের নারী পাচার হচ্ছে চীনে!

০৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:২৮








ব্রেকিং নিউজ



কলাপাড়ায় সুজন’র কমিটি গঠন

কলাপাড়ায় সুজন’র কমিটি গঠন

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২২:১২



তালায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

তালায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২২:০৬