রবিবার 21 অক্টোবর 2018 - ৬, কার্তিক, ১৪২৫

কীভাবে সাজাবেন নতুন সংসার?

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১১:৪৬:১৩

এওয়ান ফিচার ডেস্ক: বিয়ের দুই বছর পর শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে স্বামী তানভীরের সাথে  নতুন সংসার শুরু করতে যাচ্ছেন ফারাহ। থালা বাসন থেকে আসবাবপত্র সবই নতুন করে গোছাতে হবে তাদের। সোশাল মিডিয়ায় মেয়েদের এক গ্রুপে ফারাহ তাই পোস্ট দিলেন নতুন সংসারে কী কী না হলেই নয় এ ব্যপারে যেন গ্রুপের মেয়েরা তাকে পরামর্শ দিয়ে সাহায্য করে।

অনেককে বিয়ের পরপরই নতুন সংসার শুরু করতে হয়। তারাও চিন্তায় পড়ে যান নতুন সংসার কীভাবে কী শুরু করবেন তাই নিয়ে। যারা নতুন সংসার শুরু করবেন কিন্তু হাতে বাজেট কম, তাদের জন্য রইল কিছু দরকারি পরামর্শ।

দুজনেই চাকরিজীবী হলে বিয়ের আগে থেকেই অল্প অল্প করে জিনিসপত্র গোছাতে পারেন। যেমনটা করেছিলেন তাসনিম-নীল দম্পতি। বিয়ের আগে থেকেই একটু একটু করে শখের থালাবাটি, কুশন, কুশনকাভার, বুকশেলফ ইত্যাদি নানা জিনিস গুছিয়েছিলেন তারা। তাছাড়া ঘনিষ্ঠ আত্মীয় ও বন্ধুরা যখন জানতে চেয়েছেন তাদের কী উপহার দেবেন, তখন তারা তাদের বাজেট জেনে ঘরের দরকারি বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি চেয়েছিলেন। আত্মীয় বন্ধুদের মধ্যে যাদের বাজেট বেশি ছিল তারাই উপহার দিয়েছেন ওভেন, ব্লেন্ডার বা টিভি।

কিন্তু আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে উপহার পাওয়ার এমন সুযোগ সবাই নাও পেতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনাকে অনেক আগে থেকেই বাজেট গোছাতে হবে। একটা সংসার শুরু করতে যা যা না হলেই নয় সবার আগে কিনতে হবে সেসব। আসুন দেখে নেই নতুন সংসার করার শুরুতে কোন কোন জিনিস কিনতে হবে।

যা না হলেই নয়
সবার আগে ঠিক করতে হবে বাসা। বিয়ের আগে থেকেই বাসা খুঁজে রাখা ভালো। বাসা ভাড়া নেওয়ার আগে অন্তত দু’মাসের এডভান্স দিতে হয়। তাই বাসা ভাড়া এবং এডভান্সের টাকা সবার আগে হিসেবে রাখতে হবে।

বাসা নেওয়ার পর সবার আগে প্রয়োজন সব ঘর, বারান্দা, বাথরুম এবং রান্নাঘরের বাতির ব্যবস্থা করা। সব ঘরের জন্য একটা করে বৈদ্যুতিক পাখাও প্রয়োজন
একটা দুই বার্নারের গ্যাসের চুলা এবং ফ্রিজ। ফ্রিজ চাইলে কিস্তিতেও কেনা যায়। একটা পানির ফিল্টার। দুজনের সংসারে শুরুতেই বড় ফ্রিজ অতটা কাজে লাগবে না। তবে এসব জিনিস যেহেতু দীর্ঘদিন টেকে তাই বুঝেশুনে একটু ভালো ব্র্যান্ডের কেনাই ভালো হবে।
একটা আলমারি কিংবা ওয়ার্ডরোব। হাতিল, অটবি ছাড়াও রোকেয়া সরণি, বাড্ডা, পান্থপথ, শাহজাহানপুর ইত্যাদি জায়গায় আসবাবের দোকান পাবেন।
সব ঘরের জন্য একসেট করে পর্দা। বুটিক হাউজগুলোতে মনের মত পর্দা পেয়ে যাবেন। তাছড়া এলিফ্যান্ট রোডে নানা ধরণের ও ডিজাইনের পর্দা পাবেন।
রান্নার জন্য কয়েক সাইজের হাড়ি, কড়াই, প্রেশার কুকার, গামলা, বাটি, খুন্তি। রান্নার পাত্র একবারে নন স্টিক কিনতে পারলে ভালো, টিকবেও অনেকদিন, পরিষ্কারের ঝামেলাও কম। আর খাবার খাওয়ার জন্য অন্তত একসেট করে প্লেট, বাটি, চামচ, জগ, গ্লাস ইত্যাদি। নিউ মার্কেট, চন্দ্রিমা, গুলশান ডিসিসি, তালতলা, মৌচাক, ইস্টার্ণ প্লাজা ইত্যাদি মার্কেটে এসব জিনিস কিনতে পারেন।
রান্নাঘরে বিল্ট ইন র‍্যাক না থাকলে থালাবাটি ও হাড়ি কড়াই রাখার জন্য র‍্যাক। নিউ মার্কেটেই পেয়ে যাবেন মনের মত র‍্যাক।
শোবার জন্য খাট কেনার টাকা না থাকলে ম্যাট্রেস বা তোষক, বালিশ আর কিছু কুশন কিনতে পারেন। নীলক্ষেত কিংবা নিউ মার্কেটে পাবেন এসব।
বিছানার জন্য অন্তত দুই সেট চাদর আর ব্যবহারের জন্য তোয়ালে
বেশ কয়েকটা পাপোষ লাগবেই
শু র‍্যাক
ওয়াশরুমের জন্য বালতি, মগ, বদনা, বেসিনের তোয়ালে, পেস্ট ব্রাশ রাখার হোল্ডার, সোপকেস
বাসা পরিষ্কারের জন্য ঘর মোছার মপ, টয়লেট এবং কমোড পরিষ্কারের জন্য কয়েকটা ব্রাশ।
একটা আয়রন
 
উপরের সব জিনিস কেনার পর যদি আপনাদের হাতে আরও টাকা থাকে তবে কিছু ইলেকট্রনিক জিনিস কিনতে পারেন। এই জিনিসগুলো আপনার জীবনযাপনকে আরও সহজ করবে।

একটা মাইক্রোওয়েভ ওভেন
ব্লেন্ডার
রাইস কুকার
ওয়াশিং মেশিন
 
একবারেই যে পুরো বাড়ি গুছিয়ে ফেলতে পারবেন তা না। তবে মূল প্রয়োজনীয় জিনিস এগুলোই।

একটা একটা করে ঘর গোছাতে হবে। সেক্ষেত্রে শোবার ঘরের পর খাবার ঘর, বসার ঘর আর সবশেষে বাসার অন্যান্য ঘরের জিনিসপত্র কিনুন।

খাবার ঘর
শুরুর দিকে হাতে বেশি টাকা না থাকলে খাবার টেবিল কিনতে পারবেন না হয়ত। সেক্ষেত্রে খাবার ঘরটা একটু ভিন্নভাবে সাজাতে পারেন। খাবার টেবিলের উপরের ফ্রেমটা কিনে নিয়ে তার সাথে চারটা ফ্লোর কুশন দিয়ে বসার ব্যবস্থা করতে পারেন। টেবিলের ফ্রেমটা রাখার জন্য পায়ার জায়গায় চারপাশে চারটা মাটির চওড়া মুখের ফ্লাওয়ার ভাস বা চ্যাপ্টা হাড়ি রাখলে দেখতে বেশ সুন্দর লাগবে। এসব হাড়ি ভাস কিংবা হাড়ি দোয়েল চত্বরসহ নগরীর নানা জায়গায় পাওয়া যায়।

বসার ঘর
বসার ঘরে সোফা লাগবেই তা কিন্তু না। বসার ঘরে একটা ডিভান কিনে কুশন দিয়ে সাজাতে পারেন। নাহয় ছোট তোষক ভাঁজ করে ফ্লোরে রেখে তার উপর সুন্দর একটা ব্লক বা হাতের কাজের চাদর বিছিয়ে রঙিন কুশন দিয়ে সাজালে ভালো লাগবে। মেহমান আসলে এই তোষক বিছানা হিসেবেও ব্যাবহার করা যাবে।

বসার ঘর সাজাতে মাটির ছোটবড় ফ্লাওয়ার ভাস, ফুলের টব দিয়ে সাজালে ভালো লাগবে আবার খরচও কম হবে। বসার জন্য পাটের ম্যাট আর ফ্লোর কুশনের সাহায্য নিন। সোফাটা পরে কিনলেও চলবে। আবার আড়ং, যাত্রা ইত্যাদি বুটিক শপে সুন্দর সুন্দর কাঠ বা দড়ির টুল পাওয়া যায়। সেগুলো দিয়েও বসার আয়োজন করতে পারেন কম খরচেই।

নতুন বাসায় এই নাই সেই নাই দেখে যদি মন খারাপ লাগে তাহলেও আছে সমাধান। বাড়িতে প্রচুর গাছ রাখুন। দেখতেও ভালো লাগবে, মনও ভালো করবে।



এ সম্পর্কিত খবর

খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না: রিজভী

খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না মন্তব্য করে বিএনপির

মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলো ইরান

মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করলো ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরান আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করছে বলে ওয়াশিংটন যে অভিযোগ করেছে

বৃটেনের রাজপথে লাখো মানুষ

বৃটেনের রাজপথে লাখো মানুষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রেক্সিটের দ্বিতীয়বার গণভোটের দাবিতে লন্ডনের রাজপথে আন্দোলনে নেমেছিল লাখ লাখ ব্রিটিশ নাগরিক। ব্রেক্সিট


যে চারটি কারণে ‘দেবী’ দেখবেন

যে চারটি কারণে ‘দেবী’ দেখবেন

হেলাল রাব্বি (পাঠক): সিনেমার রিভিউ লেখা বন্ধ করে দিয়েছি। কারণ এক শ্রেণীর লোক আছেন, রিভিউ

নিজের প্রযোজনা সংস্থা ছাড়া অন্যদের ছবিতে কাজ করবেন না শাকিব

নিজের প্রযোজনা সংস্থা ছাড়া অন্যদের ছবিতে কাজ করবেন না শাকিব

এওয়ান বিনোদন ডেস্ক: কিছুদিন আগেও যৌথ প্রযোজনার অনিয়ম নিয়ে সমালোচনা করলে ষড়যন্ত্রের গন্ধ পেতেন শাকিব

ইরানের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণ করবেন অনন্ত জলিল

ইরানের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণ করবেন অনন্ত জলিল

এওয়ান বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার নায়ক অনন্ত জলিল ফিরছেন 'দিন- দ্য ডে' নামের চলচ্চিত্র নিয়ে।


এক গুপ্তচরের সিনেমাটিক জীবনের গল্প

এক গুপ্তচরের সিনেমাটিক জীবনের গল্প

মুসাব্বির মাসুদ: ২৯ নভেম্বর, ১৯৮৭। ইরাক থেকে আবুধাবি হয়ে দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার পথে কোরিয়ান এয়ার

শপিংমলে সাবধান!

শপিংমলে সাবধান!

এওয়ান ফিচার রিপোর্ট: কেনাকাটা করার জন্য অবশ্যই শপিংমলে যেতে হয়। এর কোনও বিকল্প নেই। কিন্তু

মিরপুরে আজ প্রথম ওয়ানডে : দুই চেনা প্রতিপক্ষের লড়াই

মিরপুরে আজ প্রথম ওয়ানডে : দুই চেনা প্রতিপক্ষের লড়াই

খেলাধুলা ডেস্ক: এশিয়া কাপ খেলে দুবাই থেকে ফেরার পর কয়েক দিনের ‘ছুটি’ শেষ। বাংলাদেশের  সামনে



আরো সংবাদ

‘নারী সাংবাদিকের সংখ্যা বেড়েছে’

‘নারী সাংবাদিকের সংখ্যা বেড়েছে’

২১ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৫৫

মন্ত্রিসভায় অর্ধেকই নারী...

মন্ত্রিসভায় অর্ধেকই নারী...

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:২১


নারী জাগরণে জান্নাতুন ফেরদৌস

নারী জাগরণে জান্নাতুন ফেরদৌস

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:০৭


নতুন লুকে মালালা

নতুন লুকে মালালা

১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:৪২



ফ্যাশনে হিজাব

ফ্যাশনে হিজাব

১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৩০



অজপাড়া গাঁয়ের নারীরাও পারে

অজপাড়া গাঁয়ের নারীরাও পারে

১০ অক্টোবর, ২০১৮ ১২:৩৭


ব্রেকিং নিউজ