শনিবার 16 ফেব্রুয়ারী 2019 - ৪, ফাল্গুন, ১৪২৫

সরকারি কর্মচারীদের ৫ শতাংশ সুদে গৃহঋণ দিতে চুক্তি সই

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:৫৮:৪৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাড়ি তৈরি বা ফ্ল্যাট কেনার জন্য সরকারি কর্মচারীদের ৫ শতাংশ সুদে ঋণসুবিধা দিতে চার রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীরা চাকরির গ্রেড অনুযায়ী ২০ লাখ থেকে ৭৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। প্রচলিত বাজার দরে সুদের হারের সঙ্গে সমতার জন্য ৫ শতাংশের অবশিষ্ট সুদ রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বাজেট ও সামষ্টিক অর্থনীতি) জাফর উদ্দিন এবং বাস্তবায়নকারী পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সমঝোতা স্মারকে (এমওইউ) সই করেন।

অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, “খাদ্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও আবাসন আমাদের নিশ্চিত করা প্রয়োজন। আমরা খাদ্য ভাল অবস্থানে আছি, শিক্ষার ব্যাপারে যথেষ্ট অগ্রগতি করেছি। স্বাস্থ্য খাতে খুব বেশি স্বীকৃত না হলেও ব্যাপক উন্নতি হয়েছে কমিউনিটি হাসপাতালগুলোর মাধ্যমে।”

আবাসনে অনেক পিছিয়ে থাকার কথা স্বীকার করে অর্থমন্ত্রী বলেন, “এখন আবাসনে জোর দেওয়া হচ্ছে। আবাসন ১০০ ভাগ করতে সময় লাগবে। এখন দেশে ৬০ শতাংশের আবাসন আছে বাকিরা ঝুপড়ি-টুপরিতে থাকে। তবে এটাও লক্ষণীয় যখন এরাপ্লেনে ঢাকায় এসে নামি, তখন সিলভার ব্যাপকতা (টিন) দেখা যায়, এর থেকে বুঝা যায় সর্বব্যাপী উন্নয়ন হয়েছে, শহরের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। সারাদেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে।”

অর্থ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, “সবাইকে একসাথে আনা যাবে না, ফেইজ বাই ফেইজ হবে, দুই বছরের মধ্যে হবে। মন্ত্রণালয়গুলো অটোমেশন প্রক্রিয়ার মধ্যে আসলে খুব দ্রুত হবে।ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সচিব আসাদুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সরকারের ব্যবস্থাপনায় ব্যাংক থেকে স্বল্প সুদে গৃহঋণ পাওয়ার জন্য আগামী ১ অক্টোবর থেকে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন সরকারি চাকরিজীবীরা।

 ভোটের বছরে সরকারের চালু করা এ সুবিধার আওতায় মাত্র ৫ শতাংশ সরল সুদে তারা ৭৫ লাখ টাকা পর্যন্ত গৃহনির্মাণ ঋণ নিতে পারবেন।
রাষ্ট্রায়ত্ত চার বাণিজ্যিক ব্যাংক সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংক এবং বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশন (বিএইচবিএফসি) থেকে এই ঋণ নেওয়া যাবে।সরকারি চাকরিজীবীরা বর্তমানে ১০ শতাংশ সুদে গৃহঋণ নিতে পারেন। আবার বেতন কাঠামো অনুযায়ী যে ঋণ তারা পান, তা দিয়ে অনেক ক্ষেত্রে আবাসনের মালিক হওয়ার সুযোগ তাদের হয় না। 

নবীন কর্মীরাও যেন একটি ফ্ল্যাট বা বাড়ির মালিক হতে পারেন সেজন্য একটি নীতিমালা করার কথা জানিয়ে গত জুন মাসে অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, জুলাইয়ে শুরু হওয়া নতুন অর্থবছর থেকেই তা কার্যকর হবে।এরপর ৩০ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে ‘সরকারি কর্মচারীদের জন্য ব্যাংকিং-ব্যবস্থার মাধ্যমে গৃহ নির্মাণ ঋণ প্রদান নীতিমালা-২০১৮’ প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করা হয়।

সেখানে বলা হয়, চাকরি স্থায়ী হওয়ার পাঁচ বছর পর থেকে সরকারি চাকরিজীবীরা এই ঋণ পাওয়ার যোগ্য হবেন। আর আবেদনের জন্য সর্বোচ্চ বয়সসীমা হবে ৫৬ বছর।এ ঋণের সীমা ঠিক করা হয়েছে ২০ লাখ থেকে ৭৫ লাখ টাকা। ঋণ পরিশোধের জন্য সর্বোচ্চ সময় হবে ২০ বছর।

এ ঋণের জন্য ব্যাংক গড়ে ১০ শতাংশ হারে সুদ নেবে, তবে ঋণগ্রহীতাকে দিতে হবে ৫ শতাংশ। বাকিটা সরকারের পক্ষ থেকে পরিশোধ করা হবে ভর্তুকি হিসাবে।সরকার ১৯৮২ সালে প্রথম সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য গৃহনির্মাণ ঋণ সুবিধা চালু করে। তখন ৪৮ মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ টাকা গৃহনির্মাণ ঋণ হিসেবে পাওয়া যেত, যা ৪৮টি সমান কিস্তিতে পরিশোধ করতে হত।

এবারের নীতিমালায় বলা হয়েছে, বাড়ি (আবাসিক) নির্মাণের জন্য একক ঋণ, জমি ক্রয়সহ বাড়ি (আবাসিক) নির্মাণের জন্য গ্রুপ ভিত্তিক ঋণ, জমিসহ তৈরি বাড়ি কেনার জন্য একক ঋণ এবং ফ্ল্যাট কেনার জন্য ঋণ এই গৃহ নির্মাণ ঋণের আওতায় আসবে।

সরকারি চাকরিতে স্থায়ীভাবে নিয়োগপ্রাপ্তরাই কেবল এ ঋণের আবেদন করতে পারবেন; রাষ্ট্রায়ত্ত ও স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানি, পৃথক বা বিশেষ আইন দ্বারা সৃষ্ট প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা এ ঋণ পাওয়ার যোগ্য বিবেচিত হবেন না।

ব্যক্তিগত জমির ওপর বাড়ি তৈরি করতে চাইলে ঋণের আবেদনপত্রের সঙ্গে জমির মূল মালিকানা দলিল জমা দিতে হবে। মালিকানা পরম্পরার তথ্যও দিতে হবে।সরকারি প্লট বা সরকার থেকে ইজারা নেওয়া জমিতেও বাড়ি তৈরি করা যাবে। সেক্ষেত্রে ঋণ আবেদনের সঙ্গে প্লটের বরাদ্দপত্রের প্রমাণপত্র এবং অন্যান্য দলিল জমা দিতে হবে।

ডেভেলপারকে দিয়ে বাড়ি তৈরি করালে জমির মালিক এবং ডেভেলপারের সঙ্গে নিবন্ধন করা ফ্ল্যাট বণ্টনের চুক্তিপত্র, অনুমোদিত নকশা, ফ্ল্যাট নির্মাণস্থলের মাটি পরীক্ষার প্রতিবেদন, সরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর নির্ধারিত ছকে ইমারতের কাঠামো নকশা ও ভারবহন সনদ জমা দিতে হবে।

গৃহনির্মাণ ঋণের ক্ষেত্রে প্রথম কিস্তির ঋণের অর্থ পাওয়ার এক বছর পর এবং ফ্ল্যাট কেনার ক্ষেত্রে ঋণের টাকা পাওয়ার ছয় মাস পর ঋণ গ্রহিতার মাসিক কিস্তি পরিশোধ শুরু হবে। বর্তমানে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা ২১ লাখের মত। নতুন এই গৃহঋণ দিতে সরকারকে বছরে এক হাজার কোটি টাকার বেশি ভর্তুকি দিতে হবে বলে হিসাব করেছে অর্থমন্ত্রণালয়।



এ সম্পর্কিত খবর

পুলওয়ামা হামলা: পাকিস্তানকে কী করতে পারে ভারত

পুলওয়ামা হামলা: পাকিস্তানকে কী করতে পারে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারত শাসিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গী হামলায় ৪০ জনেরও বেশী কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা রক্ষী নিহত

কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

সিলেট প্রতিবেদক: আসন্ন কানাইঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীন নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী

মৃত্যুর চার ঘন্টা পর জীবন ফিরে পেলেন আশাদুজ্জামান

মৃত্যুর চার ঘন্টা পর জীবন ফিরে পেলেন আশাদুজ্জামান

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: দীর্ঘদিন ধরে হার্টের রোগে ভুগছিলেন আশাদুজ্জামান (৩৫)। রংপুরে চিকিৎসা করাতে


ভোলার মেঘনায় জালপাতাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত-১০  

ভোলার মেঘনায় জালপাতাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত-১০  

ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার তজুমদ্দিন সংলগ্ন মেঘনায় জাল পাতাকে কেন্দ্র করে জেলেদেও দু’গ্রুপে মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

সুনামগঞ্জ নাগরিক উন্নয়ন ফোরাম সিলেটের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

সুনামগঞ্জ নাগরিক উন্নয়ন ফোরাম সিলেটের সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

সুনামগঞ্জ নাগরিক উন্নয়ন ফোরাম সিলেটের উদ্যোগে তৈমাসিক সেলাই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার

ছাতকে স্কুল ও মাদরাসা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইউনিফর্ম বিতরণ

ছাতকে স্কুল ও মাদরাসা শিক্ষার্থীদের মধ্যে ইউনিফর্ম বিতরণ

ছাতক প্রতিনিধিঃ ছাতকের সিংচাপইড় ইউনিয়নের জিয়াপুরস্থ দিগন্ত সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে স্কুল ও মাদরাসা শিক্ষার্থীদের


৪৯ নারী এমপি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত, রবিবার গেজেট

৪৯ নারী এমপি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত, রবিবার গেজেট

এওয়ান নিউজ: একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে বৈধ ৪৯ জন প্রার্থীকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা

হয়ে গেল ফাল্গুনী কোড স্প্রিন্ট

হয়ে গেল ফাল্গুনী কোড স্প্রিন্ট

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে দেশে ও বিদেশে সম্ভাবনার দুয়ার প্রতিনিয়ত বাড়ছে।

বঙ্গবীর ওসমানী একজন গণতন্ত্রমনা, নির্লোভ ও নিঃস্বার্থপর ব্যক্তি'

বঙ্গবীর ওসমানী একজন গণতন্ত্রমনা, নির্লোভ ও নিঃস্বার্থপর ব্যক্তি'

'শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সাবেক ডিন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. কামাল



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ










হয়ে গেল ফাল্গুনী কোড স্প্রিন্ট

হয়ে গেল ফাল্গুনী কোড স্প্রিন্ট

১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ২০:৩২