রবিবার 21 অক্টোবর 2018 - ৫, কার্তিক, ১৪২৫

জাহরা লারি ও তার স্কেটিং সাফল্য

ঢাকা | প্রকাশিত ০৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:২৭:০২

এওয়ান ফিচার ডেস্ক: আরব মরুভূমির দেশ হয়েও আরব আমিরাত নাম লেখাল বরফে স্কেটিং খেলায়। মধ্যপ্রাচ্যের এ প্রথম কোন দেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কেটিং ইউনিয়ন (আইএসইউ) এর সদস্য হল। এর সাথে আরও গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ হল দেশটির প্রথম স্কেটার ২২ বছর বয়সী জাহরা লারি হিজাব পরেই নেমেছেন স্কেটিং-এ।

জাহরা লারি ১০ বছর বয়স থেকে স্কেটিং করে আসছেন। দীর্ঘ অনুশীলনের পর স্কেটিংকেই নিজের ধ্যানজ্ঞান করে নিয়েছেন। নিজ দেশের হয়ে প্রথম স্কেটার হয়ে ইতিহাসের পাতায় ঢুকে গেলেন তিনি। নারী হয়ে এ সাফল্যের জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন তিনি আজীবন।

মজার বিষয় হল, ডিজনি সিনেমা আইচ প্রিন্সেস দেখেই তিনি স্কেটিং করার প্রথম অনুপ্রেরণা পান। জায়েদ স্পোর্টস সিটিতে তৈরি করা আবুধাবীর একমাত্র বরফময় স্থানে বাবার হাত ধরে স্কেটিং অনুশীলন করতে যেতেন।

তবে একজন নারী হয়ে পুরুষদের সামনে স্কেটিং করায় নানা সমালোচনা শুনতে হয়েছে আমিরাতি রক্ষণশীল সমাজে। জাহরা সিএনএনকে বলেন, ‘আমার বাবা মনে করতেন একজন নারী হয়ে খেলাতে নাম লেখানো আমাদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির বিরুদ্ধে চলে যাবে।’   

স্কেটিং এর জন্য অল্পবয়স থাকতে বাবার কাছ থেকে অনুপ্রেরণা পেলেও তরুণী হয়ে ওঠার পর তিনি এর বিরোধিতা শুরু করেন। স্কেটিং এর জন্য আঁটসাঁট পোষাক পরতে হয় বলে মেয়েকে কোন প্রতিযোগীতায় তাকে অংশগ্রহণ করতে দিতেন না বাবা। তবে মেয়ের উদ্দীপনা দেখে শেষপর্যন্ত নরম হয়েছেন তিনি। জাহরা বলেন, ‘এখন বাবাই তার সবচেয়ে বড় সমর্থক।’

তবে জাহরা তার পরিবারের ঐতিহ্য রক্ষার্থে স্কেটিং এর নির্ধারিত পোষাকের সাথে হিজাবকেও যুক্ত করেছেন। হিজাব পরেই তিনি এখন বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছেন। আঁটসাঁট পোষাক পরলেও সহজে দেহের ভাঁজ বুঝা না যেতে পোষাকের রঙ এবং নকশার মাধ্যমে এতে এনেছেন পরিবর্তন। 

তবে প্রথমবারের মত হিজাব পরে ২০১২ সালে ইউরোপিয়ান কাপে অংশগ্রহণ করলে বিচারকরা তার পয়েন্ট কেটে নেন নির্ধারিত নিয়মে পোষাক না পরায়। জাহরা বলেন, ‘আমি অবশ্যই একে নেতিবাচক হিসেবে দেখিনি। বিচারকরা এ ধরণের সিদ্ধান্ত নিতেই পারেন, কারণ আমি ছাড়া পুরো প্রতিযোগিতায় কাউকে এভাবে দেখেননি তারা। অতএব তারা কীভাবে আমাকে পয়েন্ট দিবেন।’

ইতিমধ্যে জার্মানীতেও এক প্রতিযোগিতায় তাকে হিজাব পরে খেলার অনুমতি দেয়া হবে না জানিয়ে দেয়া হয়েছে। কর্তৃপক্ষ স্কেটিং এর পোষাকের নিয়মনীতির প্রতি কঠোরতার প্রতি যুক্তি দেখিয়েছেন।

এজন্য হিজাব পরে খেলতে দেয়ার জন্য প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন জাহরা। আপাতত চূড়ান্তভাবে কোন নিয়ম পরিবর্তন হবে না বললেও এ বিষয়ে ভেবে দেখবেন এবং ভবিষ্যতে কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপারে আশ্বাস দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল স্কেটিং ইউনিয়ন (আইএসইউ)।

এরপরেও থেমে নেই জাহরা। একের পর এক প্রতিযোগিতায় নাম লেখাচ্ছেন তিনি। দক্ষিণ কোরিয়ার শীতকালীন অলিম্পিকে জায়গা করে নিতে না পারলেও জাহরা এখন লক্ষ্য চার মহাদেশীয় সেক্টিং চ্যাম্পিয়ন ও স্কেটিং এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আসরে।

জাহরা সম্প্রতি আবুধাবী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিবেশ বিষয়ক স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার ওপর ডিগ্রি অর্জন করেন। ইতিমধ্যে তিনি খেলার পণ্যের কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান নাইকির শুভেচ্ছা দূত হয়েছেন। সূত্র: দ্য নিউ আরব



এ সম্পর্কিত খবর

দশম জাতীয় সংসদের সর্বশেষ অধিবেশন আজ

হবে কী, কোনো ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত ? না কী.....

হবে কী, কোনো ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত ? না কী.....

নিজস্ব প্রতিবেদক: দশম জাতীয় সংসদে সর্বশেষ অধিবেশন বসছে আজ। অধিবেশন ঘিরে দেশি-বিদেশী সবার দৃষ্টি থাকবে

কীসের আবার জাতীয় ঐক্য : শাজাহান খান  

কীসের আবার জাতীয় ঐক্য : শাজাহান খান  

মাদারীপুর প্রতিনিধি: নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমালোচনা করে বলেন, কীসের আবার জাতীয় ঐক্য? জাতীয়

নীতিহীন মানুষদের জনগণ কখনোই ক্ষমা করবে না: নাসিম   

নীতিহীন মানুষদের জনগণ কখনোই ক্ষমা করবে না: নাসিম   

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: ড.কামাল হোসেন একজন নীতিহীন মানুষ উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ১৪ দলের


শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর আশা কোনদিন পূরণ হবে না: বানিজ্য মন্ত্রী

শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরানোর আশা কোনদিন পূরণ হবে না: বানিজ্য মন্ত্রী

ভোলা প্রতিনিধি: বিএনপি ও গণফোরামের নেতৃত্বে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রসঙ্গে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য

আ’লীগ সরকারের সময় দেশে শিক্ষার মান উন্নয়ন হয়: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী  

আ’লীগ সরকারের সময় দেশে শিক্ষার মান উন্নয়ন হয়: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী  

ভোলা প্রতিনিধি: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী এমপি বলেছেন, আ’লীগ সরকার শিক্ষার মান বাড়িয়েছে। এ

কপিলমুনি হাসপাতালের শয্যা বৃদ্ধি এখন সময়ের দাবি

কপিলমুনি হাসপাতালের শয্যা বৃদ্ধি এখন সময়ের দাবি

আমিনুল ইসলাম বজলু,পাইকগাছা (খুলনা): খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার ঐতিহাসিকতা ও বর্ধিষ্ণু জনপদের শত বছরের পুরনো


ইবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা : গ্রামে বাড়ি তালায় শোকের মাতম

ইবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা : গ্রামে বাড়ি তালায় শোকের মাতম

সেলিম হায়দার: ‘একটা রিক্সা চাই, শৈশব ও কৈশোর ফিরে যাবার জন্য’ এটাই ছিল ফেসবুকে মেধাবী

ঐক্যফ্রন্টের নেতারা রাজনৈতিকভাবে চরিত্রহীন: হাছান মাহমুদ

ঐক্যফ্রন্টের নেতারা রাজনৈতিকভাবে চরিত্রহীন: হাছান মাহমুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ড. কামাল হোসেন, আ স ম রব, মাহমুদুর রহমান মান্না ও ব্যারিস্টার মইনুল

ভোট না পেলে আফসোস নেই, দেশটা যেন ভালো থাকে: প্রধানমন্ত্রী

ভোট না পেলে আফসোস নেই, দেশটা যেন ভালো থাকে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী জাতীয় নির্বাচনে জনগণ ভোট না দিলে কোনো আফসোস করবেন না প্রধানমন্ত্রী শেখ



আরো সংবাদ

মন্ত্রিসভায় অর্ধেকই নারী...

মন্ত্রিসভায় অর্ধেকই নারী...

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:২১


নারী জাগরণে জান্নাতুন ফেরদৌস

নারী জাগরণে জান্নাতুন ফেরদৌস

১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:০৭


নতুন লুকে মালালা

নতুন লুকে মালালা

১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:৪২



ফ্যাশনে হিজাব

ফ্যাশনে হিজাব

১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৩০



অজপাড়া গাঁয়ের নারীরাও পারে

অজপাড়া গাঁয়ের নারীরাও পারে

১০ অক্টোবর, ২০১৮ ১২:৩৭



ব্রেকিং নিউজ










আমাদের পরম বন্ধু ফাদার রিগন 

আমাদের পরম বন্ধু ফাদার রিগন 

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:৫৯