রবিবার 16 ডিসেম্বর 2018 - ২, পৌষ, ১৪২৫

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হিসেবে শপথ নিলেন ক্যাভানো

০৭ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৪০:৫২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যৌন অসদাচরণের অভিযোগ নিয়ে বিস্তর বিতর্ক, বিক্ষোভ আর তদন্তের পর যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হিসেবে শপথ নিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মনোনীত ব্রেট ক্যাভানো।

যৌন নিপীড়নের অভিযোগ মাথায় নিয়ে বিতর্কের জন্ম দেওয়া ব্রেট কাভানাহকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে মার্কিন সিনেট। শনিবার সিনেটের এ সংক্রান্ত ভোটাভুটিতে ৫০-৪৮ ভোটে সুপ্রিম কোর্টে নিজের নিয়োগ নিশ্চিত করেন ট্রাম্প মনোনীত কাভানাহ। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আদালতে ট্রাম্পের নিজ দল রিপাবলিকান পার্টির অবস্থান আরও সংহত হলো।
 
শনিবার ভোটাভুটির মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে কাভানাহকে সমর্থন দেন দুই গুরুত্বপূর্ণ সিনেটর। তারা হচ্ছেন রিপাবলিকান সিনেটর সুসান কলিন্স ও ডেমোক্র্যাট সিনেটর জোয়ে ম্যানকিন। মূলত তাদের সমর্থন পাওয়ায় যৌন নিপীড়নের অভিযোগে বিতর্কিত কাভানাহর নিয়োগ প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায়। ব্রেট কাভানাহ’র নিয়োগ বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ জোরালো হয়ে ওঠার মধ্যেই তার নিয়োগ চূড়ান্ত হওয়ার খবর আসে।

কাভানাহ’র বিরুদ্ধে এফবিআই-এর তদন্তে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি বলে রিপাবলিকানরা দাবি করার পর ক্ষোভে ফেটে পড়ে বিক্ষোভকারীরা। বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) ওয়াশিংটনের রাস্তায় রাস্তায় বিক্ষোভ করে লাখো মানুষ। সেখান থেকে তিন শতাধিক বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট একজন প্রধান বিচারপতি ও আটজন বিচারপতি নিয়ে গঠিত। প্রেসিডেন্ট মনোনীত বিচারপতিদের নিয়োগ দেয় সিনেট। একবার নিয়োগ পাওয়ার পর পদত্যাগ, অবসর বা অভিশংসন ছাড়া ওই বিচারপতিরা আমৃত্যু দায়িত্ব পালন করতে পারেন। এ বছর বিচারপতি অ্যান্থনি কেনেডি অবসরে যাওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর নতুন বিচারপতি নিয়োগের প্রেক্ষাপট তৈরি হয়। গত জুলাইয়ে ব্রেট কাভানাহকে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে মনোনীত করেন ট্রাম্প।

কাভানাহর বিরুদ্ধে প্রফেসর ক্রিস্টিন ব্লাসে ফোর্ডসহ তিনজন নারী যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তোলেন। এ নিয়ে এফবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিতে বাধ্য হন ট্রাম্প। শুরু থেকে এফবিআইয়ের তদন্ত প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। পাঁচ দিনের মাথায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে এফবিআই। জনসমক্ষে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা না হলেও ট্রাম্প ও রিপাবলিকানরা দাবি করতে থাকে, ওই প্রতিবেদনে কাভানাহকে অভিযোগ থেকে নিষ্কৃতি দেওয়া হয়েছে। 



এ সম্পর্কিত খবর

দেশে স্বাধীনতা এলেও এখনও মানুষের মুক্তি আসেনি: স্মৃতিসৌধে ড.কামাল

দেশে স্বাধীনতা এলেও এখনও মানুষের মুক্তি আসেনি: স্মৃতিসৌধে ড.কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: মহান বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিজয় দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

আজ মহান বিজয় দিবস

আজ মহান বিজয় দিবস

এওয়ান নিউজ: আজ মহান বিজয় দিবস। এ দিনটি হচ্ছে বাঙালি জাতির জীবনে চির অম্লান, চির


জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক: মহান বিজয় দিবসের ভোরে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন

নোয়াখালী একসময় ছিল শান্তির জনপথ, এখন সন্ত্রাসীদের জনপথ: মওদুদ আহমেদ

নোয়াখালী একসময় ছিল শান্তির জনপথ, এখন সন্ত্রাসীদের জনপথ: মওদুদ আহমেদ

  নোয়াখালী প্রতিনিধি: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, আওয়ামী লীগের

উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

এওয়ান নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের


গ্লিসারিনের উপকারিতা

গ্লিসারিনের উপকারিতা

এওয়ান ফিচার ডেস্ক: গ্লিসারিন অনেক উপকার করে ত্বক ও রূপচর্চায়। গ্লিসারিন সরাসরি ত্বকে প্রয়োগ করা

আমজাদ হোসেন

বহুরূপী একজন

বহুরূপী একজন

এওয়ান ফিচার ডেস্ক: কিছু কিছু মানুষ মৃত্যুর পর আরো বেশি মানবীয় হয়ে ওঠে জীবিত মানুষের

এই শীতেই প্রেমিকাকে বিয়ে করছেন সিয়াম

এই শীতেই প্রেমিকাকে বিয়ে করছেন সিয়াম

এওয়ান বিনোদন রিপোর্ট: অভিনেতা সিয়াম আহমেদ বিয়ে করছেন। ১৪ ডিসেম্বর হঠাৎ করেই দীর্ঘদিনের প্রেমিকা অবন্তীর



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ











আজ মহান বিজয় দিবস

আজ মহান বিজয় দিবস

১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:৪৩