মঙ্গলবার 18 জুন 2019 - ৪, আষাঢ়, ১৪২৬

এটাই সুখ, এটাই জীবন

২৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১৩:২৩:২০

ভাইয়ে ভাইয়ে বিরোধ বহু পুরাতন, সেই সৃষ্টির শুরু থেকেই। কখনো সম্পদ, কখনো রাজত্ব নিয়ে। একই মায়ের পেটে থেকে, একই পিতার ওরসে জন্ম নিয়ে হয়ে যায় পরস্পরের চরম শত্রু। ঘটে যায় অনাকাংখিত  খুন-খারাবি, মারামারি, মামলা অথবা রক্তের বন্যা।

পরস্পরায় চলে যায় সেই রেষারেষি, প্রজন্মের সাথে প্রজন্মের, মুখ দেখা-দেখি বন্ধ। যেই ভাই বাল্যকালে ভাইয়ের চোখে অশ্রু দেখলে কান্নায় বুক ভাসাতো, কিংবা যার কারণে ভাই আঘাত পেয়েছে তার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ত সেই ভাই হয়ে উঠে ভাইয়ের রক্তপিপাসু।

কেন?? আগে মুরুব্বিদের মুখে শুনেছি-"ভাই ভাই বড় ধন, রক্তের বাঁধন যদিও বা পর হয়, নারীর কারণ।’ কিন্তু এটি আমি খুব বেশি সত্য বলে মানিনা। আমার কাছে মনে হয়, “যদি হয় পর, লোভের কারণে।’

সম্পদ, টাকা নিয়েই ম‚লত দ্বন্ধ হয় ভাইয়ে ভাইয়ে। এখানে মানসিকতা মুখ্য। আর এই দ্বন্ধ হয় মুলত কেউ একজনের জন্য। যখন কেউ অন্য একজনকে কম দেয়, দিতে চায় কিংবা বঞ্চিত করে তাহলে সেখান থেকেই অসন্তোষ এর সুত্রপাত হয়। সেটা বাড়তে থাকে।

প্রায়ই দেখা যায়, এই ধরনের বিরোধের কারণ। আমাকে জায়গা ১০০ বর্গফুট কম দিয়েছে বা আমার রাস্তার জায়গা দিচ্ছেনা, বা আমাকে নিরস অংশে দিয়েছে বা দিতে চায় কিংবা শুধু সাইন নিয়ে চলে গেছে, পরে দেখা গেল জায়গা বিক্রি করে দিয়েছে। আহা, ভাই!! মায়ের পেটের ভাই!!

জায়গা কিংবা টাকা বেশি পাওয়ার জন্যই তো এত্ত কিছু, সম্পদের জন্যই তো এত্ত কিছু - নিজের ভাইকে কি সম্পদ মনে হয়না? ভাইকে ঠকানো এত্ত কি দরকার। যে জ্ঞান বুদ্ধি লিখা পড়া সব খাটিয়ে ভাই ঠকাতে হবে!! কে জিতবে তাতে আসলে?

ভাইকে গরীব করে আপনি বড় লোক হয়ে সুখে থাকতে চাচ্ছেন, নিজের ছেলে মেয়ে নিয়ে? সেই সুখের বানে উত্তপ্ত হয়ে যাবে সংসার, যার উত্তাপ আপনার সন্তানদেরও একই ভাবে পরস্পরকে ঠকাতে তৈরি করবে। তা পরপারে নয় বরং জগতে ঘটছে অহরহ। একটা জিনিস বুঝে আসেনা, যে ভাই আর আপনার দেহে একই রক্ত, সেই ভাইকে কেন কষ্ট দিতে চান?

যার চোখের জল একসময় নিজ হাতে মুছে দিতেন! আজ সেই ভাইয়ের রক্ত ঝঁরাতে চান শুধুই সম্পদের জন্য। জগত বড়ই বিচিত্র আর নিষ্ঠুর!!

ইসলামের প্রথম যুগে দুই ভাইয়ের গল্পটা মনে আছে? দুই ভাইয়ের এক ভাইয়ের সন্তান-সন্ততি ছিল, আরেক ভাই নিঃসন্তান। দুইজনেই একই পরিমান জমিতে একই ফসল ফলাতো। তো ফসল কাটা হল, ঘরেও আনা হল। কিন্তু একভাই ভাবছে, আমার তো ছেলে মেয়ে আছে, ভাইয়ের তো কিছুই নেই, বুড়ো বয়সে টাকার, সেবার দরকার হবে। যাই ওকে ফসল গুলো দিয়ে আসি।

অপর ভাই ভাবলো আমি একা মানুষ, ফসল দিয়ে আমি কি করব, যাই ফসল গুলো ভাইকে দিয়ে আসি। যেমন ভাবা, তেমন কাজ। সকালে উঠে দুইজনেই অবাক! তাদের ঘরে একই পরিমাণ ফসল রয়ে গেছে। তারা বুঝে গেল কি ঘটেছে।

এক চিলতে হাসি ছড়িয়ে পড়ল দুজনের মুখে। বিনিময় হলো ভালোবাসার- শস্য সবার রহিলো সমান, এ দান মহিমাময়। আমাদের এই যুগেও শস্য সমানই থাকতো, কিন্তু চিন্তা ভিন্ন হতো। দুইজনই ভাবতো ওর এত্ত দরকার নাই, নিয়ে আসি। পার্থক্য শুধু দিয়ে আসি বনাম নিয়ে আসিতে- খালি চিন্তায়।

আপনি যদি একটু ত্যাগ আপন ভাইয়ের জন্য করেন, দুনিয়া বদলে যাবে। লাউ দিয়ে ভাত খেলে মনে হবে মুরগির মাংস। এটাই সুখ। আর যদি মনে করেন সম্পদই আপনার বেশি দরকার, সেটি ও আপনি পাবেন। অন্যকে ঠকানোর চিন্তা করতে করতে আর ভাইয়ে ভাইয়ে মারামারি করতে করতে কখন যে সব হারাবেন বুঝবেন-ই না।

মান সম্মান, সময়, শান্তি, যৌবন, সম্পর্ক সব যাবে। পাবেন শুধু মাটির জায়গা তথা সম্পদ। তাই বলি, ত্যাগ যদি না করতেও পারেন, অন্যের ভাগ নিয়েন না। নিজের অংশ নিয়ে নিজে সুখে থাকেন, ভাইদের অংশ তাদের দিন।

মনে রাখবেন, সম্পর্ক খারাপ হয় কোন একজনের বাকিদের বা অপরজনকে বঞ্চিত করার অভিপ্রায় থেকে। আর এর জের বহন করতে হয় ২০/৩০/৪০ বছর কিংবা পরম্পরায়। কি বুঝে আসছে?

বিপদে আপদে, রোগে শোকে,আনন্দ বেদনায়, লাশের খাটিয়ায়, কিংবা মৃত্যুর পরেও ঠিকে থাকে সম্পর্ক, সম্পদ নয়। ভাই-ই তো ঝাঁপিয়ে পড়ে ভাইয়ের জন্য। সম্পদ কবরে যায়না, সম্পর্ক যায়। আপনার ভাই ই তো কবর পাড়ে দাঁড়িয়ে আপনার জন্য দোয়া করবে, আপনার জন্য হাউমাউ করে কাঁদবে। বলবে, আহারে ভাই, তুই কেন আমারে ছেড়ে আগে চলে গেলি?

আল্লাহ তোর আগে আমাকে নিলনা কেন?? হে আল্লাহ, এটা কেমন বিচার!! আপনার ভাই মনে মনে বলবে, আয় ভাই, আমার বুকে আয়, আর একবার জড়িয়ে ধরি। আপনি জীবনে প্রথমবার তাকে জড়িয়ে ধরবেন না। বলবেন, “তুই ওপারে থাক, অনন্তকাল। এপারে আসলে যে ফিরে যেতে পারবিনা।”

আপনার ভাই বলবে আমার এপার ওপার লাগবেনা, শুধু তোর বুকে একটু বুক মিলাতে চাই। আপনি মুখ ফিরিয়ে নিবেন। আপনার ভাই চোখে জল নিয়ে ফিরে যাবে, অনন্ত হাহাকার আর শুন্যতায়। আপনি দ‚র থেকে দেখবেন। নিঃম্ব কবরের অন্ধকারে সেই জল আর তার বুকের শুন্যতার অনুভব আপনার প্রশান্তিময় সঙ্গী হয়ে থাকবে।

প্রায়ই আপনার কবরের প্রশান্তিময় ঘুম ভেংগে যাবে আপনার ভাইয়ের গলার ¯^রে, -“আল্লাহ আমার ভাইকে তুমি ভালো রেখো!! আপনার মুখ খিল খিল হাসিতে প্রশস্ত হবে। সেই শব্দ আপনার ভাইয়ের কানে পৌঁছাবে। সে চমকে এদিক ওদিক তাকাবে, আর খুঁজে বেড়াবে তার প্রিয় ভাইকে।

জন্ম জন্মান্তরে। নিরন্তর, আমৃত্যু। এটাই সুখ, এটাই জীবন। এটাই ভাই ভাইয়ের সম্পর্ক। ভাই বড় ধন, মায়ার বাধন, যদি যায় প্রাণ, যায়না ছেদন। কি চান? এ রকম ভাই, নাকি নিষ্প্রাণ সম্পদ??

লেখক: মোহাম্মদ মঈনুল ইসলাম
সিনিয়র সহকারি পুলিশ কমিশনার
সিএমপি চট্টগ্রাম

 



এ সম্পর্কিত খবর

সিলেট বিভাগ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভা

২৩ জুন সিলেট বিভাগ ও বি-বাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট  

২৩ জুন সিলেট বিভাগ ও বি-বাড়িয়ায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট  

সিলেট, বি-বাড়ীয়া, হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ মালিক শ্রমিকের আয়োজন পরিবহণ শ্রমিকদের এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শিশুদের পড়াশোনার জন্য চাপ না দিতে অভিভাবকদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান

শিশুদের পড়াশোনার জন্য চাপ না দিতে অভিভাবকদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান

এওয়ান নিউজ: রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ আজ শিশুদের পড়াশুনা অথবা অন্যান্য কোন বিষয়ে চাপ না

গড় আয়ু ৭২.৩, পুরুষের থেকে নারীরা গড়ে তিন বছর বেশি বাঁচে

গড় আয়ু ৭২.৩, পুরুষের থেকে নারীরা গড়ে তিন বছর বেশি বাঁচে

এওয়ান নিউজ: বিগত বছরের চেয়ে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু কিছুটা বেড়ে ৭২ দশমিক ৩ হয়েছে।


বর্তমান সরকার ‘মানবাধিকারবিরোধী’:  সুলতানা কামাল

বর্তমান সরকার ‘মানবাধিকারবিরোধী’:  সুলতানা কামাল

এওয়ান নিউজ: বাংলাদেশ রাষ্ট্র বা সরকার মানবাধিকারের বিপক্ষে বা বিরুদ্ধে অবস্থান করে বলে মন্তব্য করে

কেন উত্তপ্ত সংসদ, আড়াই মিনিটের বক্তব্যে কী বলেছিলেন রুমিন?

কেন উত্তপ্ত সংসদ, আড়াই মিনিটের বক্তব্যে কী বলেছিলেন রুমিন?

এওয়ান নিউজ: সদ্যই বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসন থেকে এমপি হিসেবে শপথ নিয়েছেন দলটির সহ-আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক

সেই ওসি মোয়াজ্জেমের আদি বাড়ি ঝিনাইদহে সদর উপজেলার বৈডাঙ্গা গ্রামে

সেই ওসি মোয়াজ্জেমের আদি বাড়ি ঝিনাইদহে সদর উপজেলার বৈডাঙ্গা গ্রামে

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বাড়ি যশোরে। শহরের চাঁচড়া ডালমিল


শৈলকুপায় ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ি ওড়ানো প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

শৈলকুপায় ঐতিহ্যবাহী ঘুড়ি ওড়ানো প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ শহরের কোলাহল থেকে একটু শান্তির পরশ আর বিনোদন পেতে দুপুর থেকেই ঝিনাইদহের

কালীগঞ্জে প্রাইভেটকার ছিনতাইকারীচক্র সন্দেহে এক প্রতারককে পুলিশে সোপর্দ্দ

কালীগঞ্জে প্রাইভেটকার ছিনতাইকারীচক্র সন্দেহে এক প্রতারককে পুলিশে সোপর্দ্দ

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে প্রাইভেটকার ছিনতাইকারীচক্র সন্দেহে রনজিত বিশ^াস ওরফে রফিক (৪০) নামে এক

শায়েস্তাগঞ্জ রেলস্টেশনে কর্মমুখী মানুষের ভিড়

শায়েস্তাগঞ্জ রেলস্টেশনে কর্মমুখী মানুষের ভিড়

মঈনুল হাসান রতন হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ কর্মস্থলে ফিরতি মানুষের দুর্ভোগ চরমে। স্বজনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ উদযাপন



আরো সংবাদ


আমরা কোথায় আছি

আমরা কোথায় আছি

২০ মে, ২০১৯ ১২:৫১



পাকিস্তানি ভূত

পাকিস্তানি ভূত

০১ মে, ২০১৯ ১২:২১


প্রিয় নুসরাত

প্রিয় নুসরাত

২৭ এপ্রিল, ২০১৯ ১১:৫০

ব্যর্থ বিএনপির মিডিয়া উইং

ব্যর্থ বিএনপির মিডিয়া উইং

২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১৫:১১

“সবই আছে, নেই শুধু নুসরাত”

“সবই আছে, নেই শুধু নুসরাত”

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ১৪:২৩

আর কতো লাশ চায় রাজউক

আর কতো লাশ চায় রাজউক

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ১৫:৪৭

এ সংক্রামক ব্যাধিকে রুখতেই হবে

এ সংক্রামক ব্যাধিকে রুখতেই হবে

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:২০



ব্রেকিং নিউজ