আকরাম খানকে ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিয়েছিলেন ওয়াসিম!

প্রকাশিত

স্পোর্টস ডেস্ক: ওয়াসিম আকরাম বরাবরই বাংলাদেশ ক্রিকেটের সমর্থক। আকরাম খান, খালেদ মাসুদ পাইলট, মিনহাজুল আবেদীন নান্নুদের সময় থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেটকে সমর্থন দিয়ে আসছেন পাকিস্তানি পেস কিংবদন্তি। তবে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক আকরামকে একবার দেখে নিতে চেয়েছিলেন পাকিস্তানের আকরাম।

কাল রাতে তামিম ইকবালের ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানের আড্ডায় এমন তথ্যই বেরিয়ে এল। বাংলাদেশ ক্রিকেটের শুরুর দিনগুলোর সারথী আকরাম, নান্নু ও পাইলটের সঙ্গে কাল ফেসবুক লাইভে ছিলেন সর্বকালের অন্যতম সেরা পেসার ওয়াসিম আকরাম। বরাবরের মতোই প্রাণবন্ত সঞ্চালনা করেন দেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম।

আড্ডার এক ফাঁকে ঘটনাটা ওয়াসিম আকরামকে মনে করিয়ে দেন আকরাম। তার আগে বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়কের সঙ্গে মজা করতে ছাড়েননি বাঁহাতি পেস কিংবদন্তি। বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার সুবাদে আকরাম খানের সঙ্গে ভালোই জানাশোনা রয়েছে ওয়াসিমের। সে সুবাদেই হয়তো মজাটা করলেন, ‘আকরাম কখনো ফিল্ডিং করতে পছন্দ করত না’ বলেন ওয়াসিম। এ সময় হাসির রোল পড়ে যায় লাইভে।

তারপরই ওয়াসিমকে সেই ঘটনাটা মনে করিয়ে দেন আকরাম খান। ১৯৯৫ সালে শারজায় এশিয়া কাপ খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পরদিন পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা ছিল বাংলাদেশের। সে ম্যাচের আগে ওয়াসিম এসে আকরামকে জিজ্ঞেস করেন, ‘টসে জিতলে কি নেবে?’ আকরাম বলেন, ‘ফিল্ডিং’। ওয়াসিম জিজ্ঞাসা করেছিলেন, ‘তুমি নিশ্চিত?’ আকরাম বলেছিলেন,’এটাই পরিকল্পনা।’ জবাবে ওয়াসিম বলেন, ‘আজ তো খুব গরম।তাহলে আমি আর ওয়ার্ম আপ করছি না।’ স্মৃতিচারণায় ওয়াসিমকে এসব কথাই মনে করেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক। তবে সে ঘটনার মজার অংশটা ঠিক এরপরই।

আকরামের জবানিতে, ‘টসে যাওয়ার আগে নান্নু ভাই এসে বললেন, টস জিতলে কেন ফিল্ডিং নেবে? ওরা আগে ব্যাট করলে তো তিন শ ছাড়িয়ে যাবে। জিতলে ব্যাটিং নেওয়াই ভালো। এরপর আমি টস জিতে ব্যাটিং নেই।’ ওয়াসিম এরপর ড্রেসিং রুমে এসে আকরামকে বলেছিলেন,’আকরাম, মাঠে আসো, তোমাকে দেখে নেব।’

পাকিস্তানের সঙ্গে সে ম্যাচে আগে ব্যাট করে পুরো ৫০ ওভার খেলেছিলেন বাংলাদেশ। আমিনুল ইসলামের ৪২ ও আকরামের ৪৪ রানে ভর করে ৮ উইকেটে ১৫১ রান তুলেছিল বাংলাদেশ। ১২২ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে জিতেছিল পাকিস্তান।