আতঙ্কে সরকার- এই বুঝি ক্ষমতা গেলো, এই বুঝি গদি হারালো: রিজভী

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংকটকালেও ক্ষমতাসীন সরকারের লোকেরা গরিব মানুষের ত্রাণ লুট করে নিজেদের পেট ভরছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘সরকার সবসময় আতঙ্কে ভুগছে। এই বুঝি তাদের ক্ষমতা গেল! এই বুঝি তাদের গদি হারালো! আসলে রাতের অন্ধকারে প্রশাসন ও পুলিশের সহায়তায় ক্ষমতা জবরদখলকারী সরকার বলেই এ ধরনের আতঙ্কে ভুগছে। তাদের প্রতি জনগণের কোনো সমর্থন নেই।’

বুধবার (২০ মে) সকালে রাজধানীর মোহাম্মদপুর বছিলা এলাকায় দরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মাহবুবুল ইসলাম স্বপনের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণের এই অনুষ্ঠান হয়।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি কোনও ভালো কাজ করলে সেটাও সরকারের সহ্য হয় না। তারা আমাদের দলের নেতাকর্মীদের মামলা দিয়ে গ্রেফতার ও হয়রানি করছে। আসলে এই সরকারের লক্ষ্য জনগণের সেবা করা নয়। তাদের লক্ষ্য করোনা মাহমারিকে কাজে লাগিয়ে লুটপাট করা।’

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আজকে বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের নির্দেশে আমাদের দলের নেতাকর্মীরা গরিব মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে। করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউনে কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছে। কিন্তু সরকার তা সহ্য করতে পারে না। তারা প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলছে। আমাদের দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। সেদিন হবিগঞ্জে জেলা ছাত্রদলের নেতা সাব্বিরকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গেছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সে নাকি ফেসবুকে কি লিখেছে?’

রিজভী বলেন, ‘আজকে সরকার গরিব মানুষের জন্য ত্রাণ বিতরণ করছে। কিন্তু কাদেরেক দেয়া হচ্ছে? ওই মেম্বার বা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে! তারাও তো বিনাভোটে নির্বাচিত! এজন্য ত্রাণের চাল পাওয়া যাচ্ছে তাদের বাড়িতে। খড়ের গাদায়, খাটের তলে মিলছে তেল ও শত শত বস্তা চাল। কারণ মানুষের সেবা করা এই সরকারের লক্ষ্য নয়। তাদের লক্ষ্য হচ্ছে করোনা মাহমারীকে কাজে লাগিয়ে লুটপাট করে নিজেদের পেট ভরানো।’

এরআগে মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জে গরিব ও অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন রুহুল কবির রিজভী। সিরাজগঞ্জ-৫ (বেলকুচি,চৌহালী ও এনায়েতপুর) আসনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে ২ হাজার মানুষকে ঈদ বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন এই আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম।