গোপীবাগে ইশরাকের প্রচারণায় হামলা, সাংবাদিকসহ আহত ১০

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের গণসংযোগে হামলা হয়েছে। রবিবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে গোপীবাগের আর কে মিশন রোডে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সংঘর্ষে গণমাধ্যমকর্মীসহ ১০-১২ জন আহত হয়েছেন।

হামলায় আহত একজন গণমাধ্যমকর্মী বলেন, ‘দুপুরের দিকে আর কে মিশন রোডে বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেন গণসংযোগ করছিলেন। এ সময় একদল দুর্বৃত্ত মিছিলে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে সংঘর্ষে সাংবাদিকসহ ১০-১২ জন বিএনপি নেতাকর্মী আহত হন।’

ইশরাক হোসেনের নির্বাচনি প্রচার সেলের প্রধান খুরশীদ আলম জানিয়েছেন, হামলায় প্রার্থীসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তিনি বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১১টায় প্রচারণা শুরু করে গোপীবাগের সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজের সামনে গেলে রাস্তার দু’পাশ থেকে কয়েকজন দুর্বৃত্ত অতর্কিতে হামলা চালায়। এ সময় দু’গ্রুপের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠি নিয়ে কিছুক্ষণ সংঘর্ষ চলে। এতে প্রায় ১৫ নেতাকর্মী আহত হন।’

এদিন সকাল সাড়ে এগারোটায় প্রচারণা শুরু করে গোপীবাগের সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজের সামনে দিয়ে গণসংযোগের যাওয়ার সময় রাস্তার দুপাশ থেকে বেশ কয়েকজন দুর্বৃত্ত অতর্কিত হামলা চালায়।

এসময় প্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট ধরে দু’গ্রুপের ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও রড- লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষ চললেও, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কোনো সদস্যদের চোখে পড়েনি। প্রায় আধা ঘণ্টা পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আসলে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়। বর্তমানে ইশরাক হোসেন গোপীবাগে তার বাসায় অবস্থান করছেন।

ওয়ারি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত আছে।

এ ঘটনায় আহত নয়াদিগন্তের স্টাফ রিপোর্টার ইকবাল মজুমদার তৌহিদ জানান, ইটের আঘাতে তার মাথা ফেটে গেছে। তিনি এখন সালাউদ্দিন স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি আছেন।