ঈদের আগে ‘হেয়ার কালার অ্যান্ড কেয়ার’ করুন ঘরে বসেই

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: ঈদের বাকি আর মাত্র সপ্তাহখানেক। আর ঈদ এলেই নারীরা বেশি পার্লারমুখী হয়ে থাকেন। তবে এই মহামারিকালে অনেকেই পার্লারে যেতে পারছেন না। এতে মন খারাপের কিছু নেই। যারা হেয়ার কালার করতে চান তারা ঘরে বসেই করতে পারবেন।

সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো, প্রাকৃতিক উপাদান দিয়েই আপনারা চুল রাঙিয়ে নিতে পারবেন। এক্ষেত্রে চুলে বাহারি কেমিকেলযুক্ত উপাদান ব্যবহার না করাই ভালো। রইল হেয়ার কালার ও কেয়ারের সমাধান-

> যদি কিছু চুলে হালকা কালারের শেড চান তবে লেবু ব্যবহার করুন। আধা কাপ পানির সঙ্গে এক কাপ লেবুর রস মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে নিন। চুলের যে অংশের রং হালকা করতে চান, সেই অংশে স্প্রে করুন। অন্তত ঘণ্টাখানেক রোদে থাকুন বা ব্লো ড্রায়ার দিয়ে তাপ দিন। একঘণ্টা পর চুলে শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে একবার করে কয়েক সপ্তাহ করলেই ফল পাবেন।

> তরুণ প্রজন্মের অনেকেই চুলে লাল রং করা পছন্দ করেন। এক্ষেত্রে এক কাপ করে বিট আর গাজরের রস মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে নিন। চুলে স্প্রে করে খুব ভালোভাবে শুকিয়ে নিন। একঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। পছন্দমতো রং পেতে সপ্তাহে দুইবার এই উপায়টি অনুসরণ করুন।

এবার জেনে নিন কালার (রঙিন) চুলের কেয়ার (যত্ন) করবেন কীভাবে-
> কালার করার পর যত্ন নিতে একটি নারকেল কুরিয়ে ব্লেন্ড করে ছেকে নিন। নারকেলের দুধটুকু জ্বালিয়ে অর্ধেক করে রাখুন। এবার এটা চুলে তেলের মতো ম্যাসাজ করুন। এরপর কিছুক্ষণ চুল আঁচড়ে নিন, এতে রক্ত সঞ্চালন বাড়বে, চুল মসৃণ হবে, চুলের আগা ফাটার সমস্যাও দূর হবে।

> চুলের যত্ন নিতে বাড়িতে মাসে দুইবার ডিমের প্রোটিন প্যাক ব্যবহার করুন। প্রথমে চুল ভালো করে শ্যাম্পু করুন। এবার চুল শুকিয়ে প্যাক লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে শুধু পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

> যদি সবসময় চুল খুলে বাইরে যান তবে সপ্তাহে অন্তত তিনবার শ্যাম্পু করুন। এভাবে নিয়মিত যত্ন নিলে চুল হবে আরো সিল্কি এবং সুন্দর। সেইসঙ্গে আপনার চুলের রংও দীর্ঘস্থায়ী হবে।