উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার কোনো বিকল্প নেই: আতিকুল

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘ আধুনিক পরিকল্পিত নগরী গড়তে আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আপনারা ভোট দিয়ে নৌকাকে বিজয়ী করবেন। কারণ, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার কোনো বিকল্প নেই। নৌকা দেবে শান্তি, নৌকা দেবে সচল ঢাকা।’বৃহস্পতিবার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পাশের সড়ক থেকে তার ১৪তম দিনের গণসংযোগের শুরুতে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘যত্রতত্র পোস্টার টাঙিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা না করে আসুন আমরা এমন পদ্ধতি বের করি যেন শহরের সৌন্দর্য নষ্ট না হয়। কোনো ডিজিটাল প্রচারণা পদ্ধতি আমরা বের করি। এ ছাড়া বিজ্ঞাপন, প্রচারণার পোস্টার যত্রতত্র না লাগিয়ে আমরা নির্দিষ্ট কোনো জায়গা তৈরি করতে পারি। শুধু সেসব স্থানেই মানুষ তাদের প্রতিষ্ঠানের বা নিজের প্রচারণার পোস্টার, ব্যানার লাগাবে। এমন পদ্ধতি চালু করতে পারলে শহরের সৌন্দর্য নষ্ট হওয়া রোধ করা যাবে।’

নতুন যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলোর প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘আমরা দেখেছি নতুন ওয়ার্ডগুলো এখনো অবহেলিত অবস্থায় আছে। ভালো রাস্তা নেই, বাজার নেই, জলাবদ্ধতা হয়, সব মিলিয়ে সেই এলাকার মানুষগুলো খারাপ অবস্থায় আছেন। আমি কথা দিতে চাই, আপনারা যদি আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন তাহলে আগামী ৬ মাসের মধ্যেই ওসব এলাকার উন্নয়নের কাজ শুরু করা হবে, ইনশাআল্লাহ্। ইতোমধ্যে নগর পরিকল্পনাবীদরা ওসব নতুন ওয়ার্ডগুলোর কোথায় রাস্তা হবে, ফুটপাত, ড্রেন কেমন হবে তার নকশা কাজ করছেন। এ ছাড়া নতুন ওয়ার্ডগুলো সিটি করপোরেশনের সব নাগরিক সুবিধাসহ নতুন রূপে সাজাতে ৪ হাজার ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দের অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

জানা গেছে, আজ (বৃহস্পতিবার) সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের পাশের সড়ক থেকে শুরু করে মনিপুরী পাড়া, টিএনটি মাঠ, পশ্চিম রাজাবাজার, পূর্ব রাজাবাজার, গ্রীন সুপার মার্কেট, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, মগবাজার, নয়াটোলা ওয়ারলেস, আসাদুজ্জামান কমিউনিটি সেন্টার, মধুবাগ, হাতিরঝিল এলাকায় গণসংযোগের মাধ্যমে নৌকার পক্ষে ভোট চাইবেন আতিকুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত, গত ১০ জানুয়ারি থেকে আতিকুল ইসলাম উত্তরা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে গণসংযোগ শুরু করেন। নতুন তারিখ অনুযায়ী আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে। দুই সিটির প্রতিটি কেন্দ্রে ভোট হবে ইভিএমের মাধ্যমে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট চলবে।