এবার পেঁয়াজ বিক্রি করবে পুলিশের স্ত্রীরা

প্রকাশিত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: অব্যাহত ঊর্দ্ধমুখী বাজারদরের মধ্যে চট্টগ্রাম নগরীতে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) দামে পেঁয়াজ বিক্রি করতে যাচ্ছে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক)। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) থেকে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি থানার বিভিন্ন স্পটে এসব পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে। নগরীর কোতোয়ালী, পাহাড়তলী, খুলশী, চান্দগাঁও ও ইপিজেড থানা এলাকায় এই কার্যক্রম চলবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর পুনাকের সাধারণ সম্পাদক শিউলি ভৌমিক।

অভ্যন্তরীণ সরবরাহ সংকটের কারণে গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করেছে। এরপর থেকে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করে। শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন খুচরা বাজারে ভারতের পেঁয়াজ প্রতি কেজি ২৫০ টাকা, মিয়ানমারের পেঁয়াজ ২০০-২৪০ টাকা, মিশর-তুরস্কের পেঁয়াজ ১৪০-১৫০ টাকা এবং চীনের পেঁয়াজ ১২-১৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

পেঁয়াজের দামে লাগাম টানতে জাহাজে-বিমানে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। এছাড়া প্রতিকেজি ৪৫ টাকা দরে ট্রাকে করেও পেঁয়াজ বিক্রি করছে টিসিবি।

শিউলি ভৌমিক জানিয়েছেন, পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতার মধ্যে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুনাকের সাপ্তাহিক সভায় সভানেত্রী মীর্জা মাহবুব মোস্তফা ন্যায্যমূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। টিসিবির দামেই তারা প্রতিদিন পেঁয়াজ নগরীতে বিক্রি করবেন। তাদের কাজে সহযোগিতা করবেন স্থানীয় পুলিশ।

নগরীর কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ১০টা থেকে নগরীর কোতোয়ালীর মোড়ে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে। অন্যান্য থানা এলাকায়ও একই সময়ে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে। একটি থানা এলাকায় প্রতিদিন এক টন করে পাঁচটি থানা এলাকায় মোট ৫ টন পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে।

উল্লেখ্য, পুনাক পুলিশের নারী সংগঠন, যার দায়িত্বে থাকেন সংশ্লিষ্ট ইউনিটের দায়িত্বরত শীর্ষ কর্মকর্তাদের স্ত্রী এবং পুলিশের নারী সদস্যরা। ইউনিট প্রধানের (পুলিশ কমিশনার/পুলিশ সুপার) স্ত্রী পুনাকের সংশ্লিষ্ট ইউনিটের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে থাকেন উপ-কমিশনার বা অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের (সদর) স্ত্রী।