বিভাগ - খেলাধুলা

এসএ গেমসের বাংলাদেশ ফুটবল দলের স্কোয়াড ঘোষণা, চার নতুন মুখ

প্রকাশিত

স্পোর্টস ডেস্ক: আসন্ন দক্ষিণ এশিয়ান গেমসকে (এসএ) সামনে রেখে বাংলাদেশ ফুটবল দলের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। অনূর্ধ্ব-২৩ দলের এই ইভেন্টে সিনিয়র কোটায় আছেন মাঝমাঠের পরীক্ষিত ফুটবলার জামাল ভূঁইয়া, ফরোয়ার্ড নবীব নেওয়াজ জীবন ও রক্ষণপ্রহরী ইয়াসিন খান। নতুন মুখ হিসেবে ডাক পেয়েছেন দুই গোলরক্ষক পাপ্পু হাসান, মাহফুজ হাসান প্রিতম ও দুই ফরোয়ার্ড আল আমিন ও রাকিব হোসেন।

ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে নেপালে শুরু হবে এসএ গেমসের ১৩তম আসর। সম্ভাব্য দুয়েকদিনের মধ্যে অনুশীলনে যোগ দিবে ডাক পাওয়া ২০ ফুটবলার। আজ মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দল ঘোষণা দেয় বাফুফে।

আগেই জানা গিয়েছিল সিনিয়র কোটায় তিন পরীক্ষিত ফুটবলার জামাল ভূঁইয়া, জীবন ও ইয়াসিন থাকছেন। নতুন মুখ হিসেবে ডাক পেয়েছেন চার ফুটবলার। গোলরক্ষক হিসেবে দলে ডাক পেয়েছেন দু’জন। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সাবেক ফুটবলার পাপ্পু হোসেন ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের মাহফুজ হাসান প্রিতম। আক্রমণভাগে নতুন মুখ হিসেবে ডাক পেয়েছে গত লিগে রহমতগঞ্জের হয়ে আলো ছড়ানো রাকিব হোসেন ও বসুন্ধরা কিংসের আল আমিন।

এই সাতজনের বাইরে বাকী সবাই সিনিয়র জাতীয় ফুটবল দলের সদস্য। রক্ষণে পরীক্ষিত বিশ্বনাথ ঘোষ, রহমত মিয়া, টুটুল হোসেন বাদশা, রিয়াদুল হাসান বাদশা, সুশান্ত ত্রিপুরা ও ইয়াসিন আরাফাত সুযোগ পেয়েছেন। মাঝমাঠে জামালকে সঙ্গ দিবেন কিংসের বিপলু, রবিউল হাসান। আক্রমণভাগে সম্প্রতি ভারতের সঙ্গে গোল করা সাদ উদ্দীন থাকছেন। আছে কিংসের আরিফুর রহমান, মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও মাহবুবুর রহমান সুফিলও। বলা যায় অনেকটা জাতীয় দল নিয়েই এসএ গেমস খেলতে যাবে জেমি ডে।

এবার স্বর্ণ পদক নিয়ে ফিরতে চান কোচ জেমি ডে। সবশেষ ২০১০ সালে ঢাকায় স্বর্ণপদক লাভ করেছিল বাংলাদেশ। তার আগে একবার ১৯৯৯ সালে নেপাল থেকেই প্রথমবার এসএ গেমসের স্বর্ণ জিতেছিল লাল-সবুজরা। মাঝে ভারত আসরে আয়োজকদের কাছে হেরে সেমি ফাইনালে বিদায় নিতে হয়েছে বাংলাদেশকে। এবার স্বর্ণ জয়ই মূল লক্ষ্য কোচের, ‘স্বর্ণ পদক পেতে চাই। আমার অধীনে খেলোয়াড়রা প্রায় দেড় বছর থেকে খেলছে। তাদের বোঝাপড়াটা ভাল হবে।’

এসএ গেমসে বাংলাদেশের স্কোয়াড:
গোলরক্ষক: আনিসুর রহমান জিকো, পাপ্পু হোসেন, মাহফুজ হাসান প্রিতম, বিশ্বনাথ ঘোষ, রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, টুটুল হোসেন বাদশা, রিয়াদুল হাসান রাফি, ইয়াসিন আরাফাত, সুশান্ত ত্রিপুরা। মিডফিল্ডার: জামাল ভূইয়া, বিপলু আহমেদ, রবিউল হাসান, আল আমিন। আক্রমণভাগ: মাহবুবুর রহমান সুফিল, সাদউদ্দিন, নবীব নেওয়াজ জীবন, রাকিব হাসান, আরিফুর রহমান ও মোহাম্মদ ইব্রাহিম।