কবি সাংবাদিক মাশুক চৌধুরীর ডিইউজের শোক

প্রকাশিত

খ্যাতিমান কবি, প্রবীন সাংবাদিক, জাতীয় প্রেসক্লাব ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজের সদস্য মাশুক চৌধুরী (৭৩) আর নেই। আজ বুধবার প্রথম প্রহরে রাত দেড়টা নাগাদ ঢাকার এক হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহে…..রাজেউন। নিমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কিছুদিন আগে তিনি হাসপাতাল ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর করোনা ফলাফল নেগেটিভ ছিল। তিনি স্ত্রী, এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী, বন্ধু-বান্ধব ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

তাঁর মৃত্যুতে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজের নির্বাহী কমিটি শোকাহত।ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপুসহ কমিটির নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন, দেশের সাংবাদিকতায় মাশুক চৌধুরীর অবদান অপরিসীম।সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি সাহিত্য অঙ্গণে ষাটের দশক থেকে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন।সাংবাদিকতা ও সাহিত্যে তার অভাব পূরণ হবার নয়।

মাশুক চৌধুরী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা বিভাগে পড়াশোনা শেষ করে সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দেন। বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন তার সর্বশেষ কর্মস্থল। তিনি অধুনালুপ্ত দৈনিক দেশ, দৈনিক খবর ,দৈনিক রূপালীসহ বিভিন্ন পত্রিকায় কাজ করেছেন। তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের মধ্যে বিখ্যাত কয়েকটির নাম, ‘মুক্তিযুদ্ধ প্রিয়তমা আমার’, ‘নির্বাচিত কবিতা’, ‘স্বর্গের রেপ্লিকা’, ‘অত্যাগসহন’ ও ‘নদীর নাম দুঃসময়’।