করোনা মহামারীতে মানুষ আজ দিশেহারা, সর্বত্রই অস্থিরতা বিরাজ করছে: মেহেদী হাসান পলাশ

প্রকাশিত

ছয়হাজার কর্মহীন, অসহায় পরিবার ও দলীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সম্পন্ন

বাঞ্ছারামপুর প্রতিনিধি: এই করোনা মহামারীতে সারা দেশের মানুষ আজ দিশেহারা, এর উপর সরকারের সিদ্ধান্তহীনতা ও ঘন ঘন সিদ্ধান্ত বদলের ফলে সর্বত্রই এক অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে, এর সাথে যোগ হয়েছে কর্মহীন অসহায় মানুষের হাতে খাদ্য ও বাঁচার উপকরণগুলো পৌঁছাতে ব্যর্থতা, ছুটি না লকডাউন তা নিয়েও সৃষ্টি করা হয়েছে ধোঁয়াসা। একবার বন্ধ একবার খোলা আবার বন্ধ যেন তামাশায় পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন মেহেদী হাসান পলাশ।

আজ শুক্রবার বাঞ্ছারামপুরে নয়টি ওয়ার্ডে ৫০০ নেতাকর্মীদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ কালে কৃষকদলের কেন্দ্রীয় আহ্বয়ক কমিটির সদস্য কৃষিবিদ মেহেদী হাসান পলাশ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব থেকে শুরু করে সারা দেশে সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা গত একযুগ ধরে ক্ষমতাসীনদের জেল-জুলুম, হয়রানি ও নির্যাতন নিপীড়ণের শিকার হয়েছে, তারপরও জাতির এই সংকটময় মুহুর্তে জনগণের দল হিসেবে বিএনপি বসে নেই। ‘সতর্কতা-সহায়তা-মানবিকতা’, এই চেতনায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমানের আহবানে সারাদেশে চলছে বিএনপির মানবিক সহায়তা কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ভিপি আবদুল মান্নান, পৌর বিএনপির সভাপতি মতিউর রহমান জালু, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক তাহের হোসেন, পৌর বিএনপির সহ সভাপতি মোশাররফ হোসেন, পৌর কৃষক দলের সভাপতি বকুল, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক ভিপি মজিবুর রহমান, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামিম শিবলী, যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য মানিক ভুইয়া, ছালে মুছা, শ্রমিকদলের নেতা হবি মিয়া, আবদুস সালাম, ছাত্র ছাত্রী মৈত্রী সমিতির সাবেক সভাপতি সাইদুর রহমান, সিনিয়র সহ সভাপতি রুহুল আমিন সরকার রাজিব, ছাত্রদলের সহ সভাপতি আবু কালাম, সামি, পাভেল প্রমুখ।

এখানে উল্লেখ্য, এর আগে বাঞ্ছারামপুরে ১৩ টি ইউনিয়নে ৩ হাজার দুইশত কর্মহীন অসহায় পরিবার ও প্রায় ৩ হাজার নেতাকর্মীর মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয় এবং প্রায় এক হাজার নেতাকর্মীদের মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়।