বিভাগ - শিক্ষা

কাউনিয়ায় ১০২ ভুয়া পরীক্ষার্থীর খাতা বাতিল, অনুপস্থিত ৩১৬

প্রকাশিত

কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি ঃ রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনি পরীক্ষা ২০১৯ এর শেষ দিন রবিবার অংক পরীক্ষায় টেপামধুপুর কেন্দ্র থেকে ১০২ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীর খাতা বাতিল করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ উলফৎ আরা বেগম।

শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে কাউনিয়া উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনি পরীক্ষা ২০১৯ এর পিইসি তে ডিয়ার ভুক্ত ছাত্র-ছাত্রী ৪৩৯৭ এবং ইবতেদায়ী ডিআর ভুক্ত ছাত্র-ছাত্রী ৭০৭ জন। এর মধ্যে পরীক্ষার শেষ দিন গত রবিবার পর্যন্ত টেপামধুপুর কেন্দ্র থেকে ১০২ জন ভুয়া পরীক্ষার্থীর খাতা বাতিল, পিইসি তে অনুপস্থিত ২১৯ এবং ইবতেদায়তে অনুপস্থিত ৯৭ জন। উপজেলা শিক্ষা অফিসার স্বপন কুমার অধিকারী জানান উপজেলার হারাগাছ, ধুমেরকুটি, মাছহাড়ী, ঠাকুরদাস, ধর্মেশর মহেশা, খোর্দ্দভ’তছাড়া, কাউনিয়া ও টেপামধুপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার ১ম দিন থেকে শেষ দিন পর্যন্ত ৮টি কেন্দ্রে পিইসি ২১৯ ও ইবতেদায়ী ৯৭ মোট ৩১৬ জন অনুপস্থিত ছিল। এছারা টেপামধুপুর কেন্দ্রে মূল পরীক্ষার্থীর স্থলে অন্য পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করায় ১০২ জন পরীক্ষার্থীর খাতা বাতিল করা হয়েছে। খাতা গুলো নির্বাহী অফিসারের হেফাজতে আছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে হল সুপারের দায়িত্বে ছিলেন প্রধান শিক্ষক আঃ ওহাব, কেন্দ্র সচিবের দায়িত্বে ছিলেন প্রধান শিক্ষক মোঃ তাজুল ইসলাম, কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ মোরশেদুল কবির। নির্বাহী অফিসার মোছাঃ উলফৎ আরা বেগম জানান কয়েক জন পরীক্ষার্থীকে দেথে সন্দেহ হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে বাকি ভুয়া পরীক্ষার্থীদের সনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। আশা করছি এর পর থেকে আর এধরনের ঘটনা ঘটাতে সাহস পাবে না। পিইসি ও ইবতেদায়ী পরীক্ষার খাতা বাতিলের বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চলের সৃষ্টি করেছে।