বিভাগ - বিনোদন

ক্রিকেট পাগল ১০ হলিউড তারকা

প্রকাশিত

বিনোদন ডেস্ক: আমরা অনেকেই মনে করি হলিউড তারকারা সেভাবে ক্রিকেট দেখেন না, ফুটবল ও অন্যান্য খেলাই তাদের পছন্দ হবে। ব্যাপারটা তা নয়। হলিউড সেলেব্রিটিদের অনেকেরই বিপুল আগ্রহ ক্রিকেট নিয়ে। তারা নিয়মিত ক্রিকেট দেখেন, খোঁজ রাখেন, চর্চা করেন এমনকি বিনিয়োগও করেন।

এই মুহূর্তে গোটা পৃথিবীতে এমন সেরা ১০ দশ ডাইহার্ড সেলেব্রিটি ক্রিকেট ফ্যান রয়েছেন, তাদেরই একটা তালিকা রইল

১। হিউ জ্যাকম্যান

হলিউড অভিনেতা। নিয়মিত ক্রিকেট দেখেন। টেস্ট ক্রিকেটের ভক্ত। একসময় নাকি মাঠে পাঁচদিনই খেলা দেখতে যেতেন। ‘উলভারিন’ নায়ক কলেজ জীবনে রাগবি আর ক্রিকেট-দুটোই খেলেছেন। অভিনয়ের জগতে না এলে হয় মাঠের জীবনই বেছে নিতেন।

২। ড্যানিয়েল র‍্যাডক্লিফ

হ্যারি পটার নায়ক ফুটবলের অন্ধ-অনুরাগী, এটা হয়তো অনেকেই জানেন। কিন্তু তিনি একসঙ্গে ক্রিকেটেরও ভক্ত। ড্যানিয়েল ক্রিকেটও খেলেন। তবে মাঠে নয়, কম্পিউটারের পর্দায়। এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘আমি এখনও ক্রিকেট ভালোবাসি। আর পিসি ক্রিকেট গেমস-এ তো আমায় বিশেষজ্ঞ বলা যায়।’

৩। রাসেল ক্রো

নিউজিল্যান্ডের বিখ্যাত ক্রিকেটার মার্টিন ক্রো আর জেফ ক্রো-এর ভাইপো রাসেল ক্রো। অস্কার-জয়ী অভিনেতা রাসেলের ক্রিকেটের যে বড় অনুরাগী হবেন, তাতে আর আশ্চর্য কী।

৪। মার্ক ওয়েলবার্গ

আমেরিকান এই অভিনেতা হালে বলতে গেলে ক্রিকেট ধর্মে দীক্ষিত হয়েছেন। ‘ডিপার্টেড’ আর ‘প্ল্যানেট অফ দ্য এপস’ ছবির জনপ্রিয় অভিনেতা বার্বাডোজের একটি ক্রিকেট দলে আংশিক লগ্নী পর্যন্ত করেছেন।

৫। এলটন জন

জনপ্রিয় এই ব্রিটিশ গায়ক দীর্ঘদিনের ক্রিকেট ভক্ত। ১৯৮৬/৮৭ সালে ইংল্যান্ড অ্যাসেজ জেতার পর ইয়ান বথামকে তিনি ডেকে নিয়ে গিয়েছিলেন মেলবোর্নে তার হোটেলের ঘরে। দু’জনে মিলে সারা রাত পার্টিও করেছিলেন। এলটন জন অবশ্য একদিনের ম্যাচ পছন্দ করেন না। তার ভোট টেস্ট ক্রিকেটের দিকে।

৬। এরিক ক্ল্যাপটন

এই ব্রিটিশ গায়কও ক্রিকেটকে হৃদয় দিয়ে বসে আছেন। এক সময় তাকে নিয়মিত ক্রিকেটের মাঠে দেখা যেত। তবে সে গুলি ছিল আবশ্যিকভাবেই টেস্ট ম্যাচ। ক্রিকেটের অনুষ্ঠানে পারফর্মও করেছেন বেশ কিছু সময়। তার নিজের কথায়, ‘ক্রিকেট খেলতে মোটেও ভালো লাগে না, তবে খেলাটা দেখতে দুর্দান্ত লাগে।’

৭। মিক জ্যাগার

‘রোলিং স্টোনস’-এর বিখ্যাত গায়ক ক্রিকেটের জন্য এতটাই পাগল ছিলেন যে ১৯৯৭ সালে ‘জ্যাগড ইন্টারনেটওয়ার্কস’ নামে একটি ইন্টারনেট-ভিত্তিক সংস্থা চালু করেছিলেন। এর মাধ্যমে তিনি খেলা দেখতেন। শারজায় ইংলন্ডের ম্যাচ তিনি আমেরিকায় বসে দেখেছিলেন।

৮। লিলি অ্যালেন

জনপ্রিয় এই গায়িকা বলেছিলেন ক্রিকেট তার ‘রিয়েল প্যাশন’। তার কথায়, ‘খেলাটার সৌন্দর্য আমায় মুগ্ধ করে। এ যেন সবুজের সঙ্গে সাদার লড়াই হচ্ছে। খেলা দেখতে-দেখতে স্ট্যান্ডে বসে পান করা যায়, এটা তো ফুটবলে সম্ভব নয়।’

৯। স্যাম মেন্ডেজ

অস্কার জয়ী এই ব্রিটিশ পরিচালককে প্রায়শই দেখা যায় লর্ডস-এর বক্সে। তার কথায়, ‘ফুটবল অনেকটা সিনেমার মতো। ৯০ মিনিটের একটা দ্রুত বিনোদন। কিন্তু ক্রিকেট হল থিয়েটারের মতো। এর সবটুকু আনন্দ উপলব্ধি করতে হলে সময় দিতে হবে।’

১০। পিয়েরস মরগ্যান

‘ডেইলি মিরর’-এর প্রাক্তন সম্পাদক এবং ‘সিএনএন’ চ্যানেলের শো-হোস্ট এমনিতে আর্সেনাল ফুটবল ক্লাবের সমর্থক। সমানতালে আবার ক্রিকেটেরও ভক্ত। একবার তার জন্মশহরের স্থানীয় দলের জন্য ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসনকেও খেলতে নিয়ে গিয়েছিলেন।