বিভাগ - বিএনপি

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ধানের শীষ স্লোগানে মুখর ঢাবি ক্যাম্পাস

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টায় ১৪তম দিনের নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে। এসময় তার সাথে থাকা হাজার হাজার নেতাকর্মী স্লোগানে স্লোগানে উত্তাল করে তোলেন পুরো বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা। মিছিলে নেতাকর্মীরা ‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’, ‘খালেদা জিয়ার কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে’, ‘মাগো তোমার একটি ভোটে খালেদা জিয়া মুক্তি পাবে’- প্রভৃতি স্লোগান দেন। মিছিলে রূপ নেয়া গণসংযোগটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস ফ্যাকাল্টি, কলা ভবন হয়ে ভিসি চত্বর, জগন্নাথ হল হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক এলাকা প্রদক্ষিণ করে কার্জন হলের দিকে যায়।এসময় নেতাকর্মীদের ধানের শীষ স্লোগানে উত্তাল করে তোলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামানের সাথে সাক্ষাৎ করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন। এসময় আসন্ন নির্বাচনে ভিসির কাছে দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন ইশরাক।

এ সময় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ বলেন, ধানের শীষের পক্ষে যে জোয়ার এসেছে এ জোয়ার কোনোভাবেই দমানো সম্ভব নয়। ঢাকাসহ সারাদেশের মানুষ এখন ধানের শীষের বিজয় ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির অপেক্ষায়। কোন ষড়যন্ত্রই এ গণজোয়ার থামাতে পারবে না। ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা সকল ষড়যন্ত্র-বাধা মোকাবিলা ধানের শীষের বিজয় ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ছিনিয়ে আনবে।

ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাজিদ হাসান বাবু বলেন, যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয় তাহলে ধানের শীষের বিজয় সুনিশ্চিত। নির্বাচনের দিন সকাল থেকে ভোট গণনা পর্যন্ত আমরা কেন্দ্রে অবস্থান করবো। কেউ ভোট চুরি বা ডাকাতি করতে আসলে আমরা তা কঠোর হাতে প্রতিহত করবো। কোন অপশক্তিকে বিন্দু পরিমাণ ছাড় দেয়া হবে না বলেও জানান ছাত্রদলের এই নেতা।

এসময় বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান রতন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাজীব আহসান, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিনসহ বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।