গণপরিবহন আপাতত বন্ধ থাকলেও প্লেন চলবে

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটির পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস-আদলত খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের মধ্যে গণপরিবহন আপাতত বন্ধ থাকলেও প্লেন চলাচল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বুধবার (২৭ মে) বিকেলে এ তথ্য জানান তিনি। তবে ঠিক কবে থেকে প্লেন চালু হবে তা নিশ্চিত করেননি। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) প্রজ্ঞাপন জারি হলে সঠিক তারিখ জানা যাবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

ফরহাদ হোসেন বলেন, ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত সড়কপথে গণপরিবহন, যাত্রীবাহী নৌযান, ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকবে। সেক্ষেত্রে কর্মস্থলের যানবাহন ব্যবহার করে অফিসে যেতে পারবেন এবং প্রয়োজনে হালকা যানবাহন ব্যবহার করতে পারবেন। উড়োজাহাজ সংস্থাগুলো নিজ ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্লেন চালাবে।

করোনা ভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধ এবং পরিস্থিতির উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার সাধারণ ছুটি বর্ধিত করায় দেশব্যাপী চলমান গণপরিবহন বন্ধের সিদ্ধান্তও ৩০ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছিল।

তবে জরুরি পরিষেবা যেমন-বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস ও অন্য জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরসমূহের কার্যক্রম (স্থলবন্দর, নদীবন্দর ও সমুদ্রবন্দর), পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট, ডাকসেবা ও সংশ্লিষ্ট কাজ, খাদ্যদ্রব্য, কাঁচাবাজার, সড়ক ও নৌপথে সকলপ্রকার পণ্য, রাষ্ট্রীয় প্রকল্পের মালামাল, ওষুধ, ওষুধশিল্প, চিকিৎসাসেবা ও চিকিৎসা বিষয়ক সামগ্রী পরিবহন, শিশুখাদ্য, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া, ত্রাণ, কৃষিপণ্য, শিল্পপণ্য, সার, বীজ, কীটনাশক, পশুখাদ্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের উৎপাদিত পণ্য, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পণ্য এবং জীবনধারণের মৌলিক পণ্য উৎপাদন ও পরিবহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত ছিল।