চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে কর্মহীন ৫’শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ  

প্রকাশিত

চুয়াডাঙ্গা প্রতিবেদকঃ মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ পুলিশ যখন জনবান্ধব পুলিশিং এ ব্যস্ত, ঠিক সেই সময়ে বৈশ্বিক সমস্যা হিসেবে বাংলাদেশেও প্রাণঘাতি “করোনা ভাইরাস” (কোভিড-১৯) এর প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। উন্নত বিশ্ব এই প্রাণঘাতি ভাইরাস প্রতিরোধের অন্যতম কৌশল লকডাউন কর্মসূচী ঘোষনা করে। বাংলাদেশ সরকারও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লকডাউন কর্মসূচি ঘোষণা করলে কর্মবঞ্চিত গরিব, দুস্থ ও অসহায় মানুষ যখন অন্ন সংস্থানের অভাবে দিশেহারা, ঠিক তখনই বিষয়টি অনুধাবন করে চুয়াডাঙ্গা জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম নিজ উদ্যোগে “মানুষ মানুষের জন্য, পুলিশ জনগনের বন্ধু, সেবাই পুলিশের ধর্ম” এই ব্রত সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গা জেলার তৃণমূল অসহায় গরিব দুঃখীদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের কর্মসূচি গ্রহণ করেন। যার ফলশ্রুতিতে আজ রবিবার (২৯ মার্চ) দিনব্যাপী চুয়াডাঙ্গা জেলার ৫টি থানাধীন এলাকায়  পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম, জনাব আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন), জনাব কনক কুমার দাস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর)গণ সকল অফিসার ইনচার্জদের সহযোগীতায় ৫’শ টি কর্মবঞ্চিত গরিব পরিবারের মধ্যে ৩ কেজি চাউল, ১ কেজি ডাউল, ১ কেজি আলু, ১ লিটার সয়াবিন তৈল, ৫০০ গ্রাম লবন, ২৫০ গ্রাম পিয়াজ, ১০০ গ্রাম গুড়া হলুদ, ১০০ গ্রাম কাঁচা মরিচ সহ প্রায় ৭ কেজি নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। উক্ত খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম এই জেলার সকল বিত্তবানদের যার যার অবস্থান থেকে গরিব, দুস্থদেরকে সাহায্য করার আহব্বান জানান। এছাড়াও তিনি মহামারী “করোনা ভাইরাস” (কোভিড-১৯) এর ভয়াবহতা থেকে নিজ, নিজের পরিবার, সর্বপরি দেশের মানুষ ও দেশকে রক্ষার জন্য সকলকে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া অযথা বাহিরে না আসতে অনুরোধ করেন।