জাতির সংকটময় এই পরিস্থিতিতে বসন্তের কোকিল’রা কোথায়?

প্রকাশিত

মোস্তাফিজুর রহমান লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ সারা বিশ্ব জুড়ে চলছে করোনা মহামারি,আমরা সবাই যেনো, অনিশ্চিত এক যাত্রা পথের সহযাত্রী।তবুও জাতির এই সংকটময় পরিস্থিতিতে আত্রাই সহ সারা দেশের মাঠে ঘাটে দেখা মিলছেনা বসন্তের কোকিলদের।যারা বিগত ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের আগ মুহূর্তে একমুঠো মুড়ি-মুরকি মাথায় নিয়ে গরীব অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে ফটোসেশন করে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যম “ফেসবুকে” ঝড় তুলে দিয়েছিলো নিজেদের মানবতার ফেরিওলার দাবি করে।আজ তারা জাতির এই বিশাল সংকটময় পরিস্থিতিতে তথা ক্লান্তিলগ্নে অসহায় মানুষদের পাশে নেই কেন?আজ কেন তারা ঘর থেকে বের হচ্ছেনা? কেন তারা গরীব অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছে না?কেন তারা অসহায় মানুষ গুলোর খোঁজ / খবর নিচ্ছেনা?

আসলে আমরা আমাদের সভ্য সমাজের দিকে লক্ষ্য করলে দেখতে পাই নির্বাচনের আগ মুহূর্তে চোর বাটপার গুলোও মাথায় টুপি দিয়ে জায়নামাজ কাঁধে নিয়ে ঘুরে বেড়ায় আর অসহায় মানুষদের ব্রেন ওয়াস করে নিজেদের ভালো মানুষের মুখোশ পড়িয়ে।এটিই অপ্রিয় সত্য বাণী।কারণ তারা ভালো করে জানে অসহায় মানুষদের একবার পুঁজি করতে পারলেই তাদের ধান্দাবাজি ব্যবসা ১০০% জমজমাট হয়ে উঠবে।তাই অসহায় মানুষদের একমুঠো খাবার দিয়ে ডজন খানেক ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে।আর আমরা নিমিষেই ভেবে নিয়ে থাকি আহ্! লোকটি কত মহৎ, ঠিক তখন’ই ঘটে আমাদের বিপত্তি।যারা দানশীল দানবীর তারা কখনো লোক দেখিয়ে আর ফটোশেসন করে দান করেনা।তারা সব সময় পর্দার আড়ালেই দান করতে পছন্দ করে।যারা দানের মাঝে স্বার্থ খুঁজে, দান কে পুঁজি করে ব্যবসার উন্নতির কথা চিন্তা করে তারাই একমুঠো খাবার অসহায় মানুষদের মুখে তুলে দিতে যেয়ে ডজন খানেক ফটোসেশন করে কৌশলে।আসলে অবাক হওয়ার কিছু নেই! এটিই তাদের ব্যবসার একমাত্র পুঁজি বা হাতিয়ার বললে ভুল হবেনা। আর এগুলো ছবি দিয়ে খুব সহজে আমাদের সমাজের মাথামোটা আম-জনতার ব্রেন ওয়াস করা যায়।যাইহোক দান করলে উদ্দেশ্যে বিহীন’ই করতে হয়।আর যারা উদ্দেশ্য বিহীন দান করে তারা কোন কাল বুঝে না।জাতির যেকোন সংকটময় পরিস্থিতিতে তারা ছুটে আসে।সর্বপরি তারা সব সময় খাবার দিয়ে না হোক কথার দ্বারা শান্তনা দিয়েও অসহায় মানুষদের পাশে থাকার চেষ্টা করে।আমি ব্যক্তিগত ভাবে ঐ সব বসন্তের কোকিলদের বলছি,দয়া করে লোক দেখানোর জন্য হলেও কিছু ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে জাতির এই সংকটময় পরিস্থিতিতে আপনারা মাঠে নামুন।