ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে আটকে পড়া ২৪২ বাংলাদেশি

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রে আটকে পড়া ২৪২ বাংলাদেশিকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিয়েছে একটি বিশেষ ফ্লাইট। ওয়াশিংটন ডিসির ডালেস এয়ারপোর্ট থেকে বাংলাদেশ সময় শনিবার সকাল নয়টায় (স্থানীয় সময় রাত ১১টা) ঢাকার উদ্দেশে উড়াল দেয় কাতার এয়ারের বিশেষ ফ্লাইটটি।

বিমানবন্দরে বাংলাদেশিদের বিদায় জানাতে উপস্থিত ছিলেন ওয়াশিংটন ডিসিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. জিয়াউদ্দিন। জানা গেছে, ২৪২ জনের মধ্যে ৫৯ জন শিক্ষার্থী। তারা সবাই দুদেশের মধ্যে চলমান ছাত্র বিনিময় কর্মসূচিতে যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে এসেছিলেন। এ ছাড়াও, ফিরে যাওয়ার তালিকায় রয়েছেন পর্যটক ভিসায় আসা শতাধিক বাংলাদেশি।

দূতাবাসের প্রেস সেক্রেটারি শামীম আহমেদ জানান, বিশেষ বিমানে বেশ কয়েকজন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাও দেশে ফিরে গেছেন। ফিরে যাওয়া সবাই সুস্থ এবং তাদের কেউ করোনা আক্রান্ত নন।

ওয়াশিংটনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, কাতারের দোহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক ঘণ্টা প্রযুক্তিগত বিরতির পর রোববার ভোর ৪টায় বিমানটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা রয়েছে।

যাত্রীদের মধ্যে বেশিরভাগ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা বাংলাদেশি শিক্ষার্থী, পর্যটন ও ব্যবসায় ভিসায় যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া বাংলাদেশি নাগরিক এবং কিছু সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তা রয়েছেন।

এছাড়া যাত্রীদের মধ্যে স্কুল এবং কলেজের ৪৯ শিক্ষার্থীও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে যারা শিক্ষামূলক এবং সাংস্কৃতিক বিষয়াদি (ইসিএ) কার্যক্রমের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন। গত ৪ মে যুক্তরাষ্ট্রে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য কাতারের বিমান সংস্থার বিমানটি চার্টার্ড করেছিল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এর আগে, ৩০ মার্চ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস এবং নিউইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলেসের দুই কনসুলেটে তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে যুক্তরাষ্ট্রে আটকেপড়া বাংলাদেশিদের কাছ থেকে তথ্য চেয়ে একটি নোটিশ প্রচার করে।

পরে বিপুলসংখ্যক আটকে থাকা বাংলাদেশি নাগরিক তাদের নিজস্ব ব্যয়ে একটি বিশেষ চার্টার ফ্লাইটে বাংলাদেশে ফেরার আগ্রহ প্রকাশ করে ৩০ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশ মিশনগুলোতে ইমেইলের মাধ্যমে তাদের তথ্য সরবরাহ করেন।

তারা বাংলাদেশ মিশনগুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারকে একটি বিশেষ বিমানের মাধ্যমে তাদের ফিরতে সহায়তা করার অনুরোধ জানায়।

কাতার এয়ারলাইন্সের বিশেষ চার্টার্ড এ ৩৫০-৯০০ এয়ারবাসটি ১৬ মে সন্ধ্যা ৭টায় দোহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। দোহা বিমানবন্দরে এক ঘণ্টা প্রযুক্তিগত বিরতির পর বিমানটি স্থানীয় সময় রাত ৮ টায় ঢাকার উদ্দেশে দোহা ত্যাগ করবে।