ঢাকায় শুরু হল তিনদিনব্যাপী গার্লস ইনোভেশন ও উদ্যোক্তা বুটক্যাম্প

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: পরিচিতি পর্বের মধ্য দিয়ে শুরু হল তিনদিনব্যাপী গার্লস ইনোভেশন ও উদ্যোক্তা বুটক্যাম্প। সকাল ৮.০০টা থেকেই লালমাটিয়ার একটি ডরমেটরিতে নিবন্ধন এর মাধ্যমে ক্যাম্পে আসতে শুরু করে ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে থেকে অংশগ্রহণকারীরা। আগামী তিনদিন তারা অংশ নেবে ক্যাম্পের বিভিন্ন কার্যক্রমে।

তথ্য প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী এমন নারীদের নিয়ে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন) আয়োজন করছে তিনদিনব্যাপী আবাসিক বুটক্যাম্প। “গার্লস ইনোভেশন এন্ড অন্ট্রোপ্রেনিউরশিপ বুটক্যাম্প” শীর্ষক এই ক্যাম্পে সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অংশ নিচ্ছেন উদ্যোক্তা হতে আগ্রহী কিংবা এরই মাঝে উদ্যোক্তা হয়েছেন এমন ৩০ জন নারী।

অংশগ্রহণকারীদের মাঝে নিজেদের জড়তা কাটানোর মাধ্যমে সকালের সেশন শুরু করেন দৈনিক প্রথম আলোর যুব কার্যক্রমের প্রধান এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান। তিনি বলেন, সমাজে প্রতিটা সমস্যার একটি উল্টো দিক আছে। একজন উদ্যোক্তার কাজ হলো সেই উল্টো দিকটি খুঁজে বের করে সেটি নিয়ে কাজ করা। মুনির হাসানের সেশনের পর একে একে চলতে থাকে আইডিয়া ডেভেলপমেন্ট, আইডিয়া ভ্যালিডেশন, টিম তৈরী সহ নানা কার্যক্রম।

এরপর একটি সেশনে অংশ নেন দ্যা ফিজিক্যাল থেরাপি অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টার এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক উম্মে শায়লা রুমকী। স্বাধীন মানুষ, স্বাধীন ভাবে চিন্তা করার ধরনা থেকেই কিভাবে উদ্যোক্তা হয়ে ওঠেন তিনি সেই গল্পই ভাগ করে নেন অংশগ্রহণকারীদের সাথে। পরবর্তীতে সেখানে উপস্থিত হন দৈনিক দ্যা বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড এর হিউম্যান রিসোর্স বিভাগের প্রধান ফারহানা রহমান। তিনি বলেন, “সাফল্য অর্জনের মুলমন্ত্র হল নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাওয়া। কখনোই হেরে যাওয়া যাবেনা, নিজের কাজের সাথে লেগে থাকতে হবে”। তিনি আরও বলেন, “জ্ঞান বিতরণে জ্ঞান বাড়ে। আর তাই নিজের কাছে থাকা তথ্য ছড়িয়ে দিতে হবে অন্যদের মাঝে”। একজন উদ্যোক্তা এবং মানুষ হিসেবে ঈর্ষাকাতরতা পরিহার করতে অনুরোধ করেন তিনি। সেশনের পুরোটা সময় জুড়ে তার প্রতিটি নির্দেশনা অংশগ্রহণকারীরা মন্ত্রমুগ্ধের মত শোনেন এবং আলোচনায় অংশ নেন।

তিনদিনের বিভিন্ন সেশন উপস্থিত থাকবেন গুটিপা ও লেদারিনা প্রতিষ্ঠানের ফাউন্ডার তাসলিমা মিজি, ইন্টারএক্টিভ লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুসরাত জাহান, সীডস্টার বাংলাদেশ এর অ্যাম্বাসেডার সেলিমা হোসাইন অ্যালেন, উইবিডি ফাউন্ডার শারমিন সাজ, উইডেভস এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম আসিফ রহমান, বিডি ভেঞ্চার এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শওকত হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড ম্যাকাট্রনিক্স বিভাগের প্রফেসর ড. লাফিফা জামাল সহ আরো অনেকে।

প্রথমদিনের তৈরী করা দশটি টিম পরবর্তী দুইদিন কাজ করবে টপ দশটি বিজনেস আইডিয়া নিয়ে। তিনদিনের বিভিন্ন সেশনের মাধ্যমে তারা জানবে একটি উদ্যোগকে ব্যবসায়িক রূপ দেয়ার বিভিন্ন দিক সম্পর্কে। প্রতিটি সেশনের নির্দেশনার উপর ভিত্তি করে ক্যাম্পের শেষের দিন ২৯ ফেব্রুয়ারি তারা অংশ নিবেন আইডিয়া পিচিং-এ। দুইদিন ধরে প্রস্তুত করা বিজনেস মডেল ক্যানভাসের মাধ্যমে উপস্থাপন করবেন চারপাশের সমস্যা সমাধানের বর্ণণা।

মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক ও এনাবলিং সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল ফর বাংলাদেশ (ESDG4BD) প্রকল্পের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত তিনদিনের আবাসিক এই ইনোভেশন ও উদ্যোক্তা বুটক্যাম্পে পার্টনার হিসেবে রয়েছে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের এসোসিয়েশন ই-ক্যাব এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন এন্ড অন্ট্রোপ্রেনিউরশিপ ডিপার্টমেন্ট।