ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সদস্য হুমায়ুন কবীর খোকন আর নেই

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: দৈনিক সময়ের আলোর নগর সম্পাদক এবং ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সদস্য হুমায়ুন কবীর খোকন আর নেই। মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) রাত ৯টা ৪১ মিনিটে উত্তরা রিজেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন)। এর আগে তিনি দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার প্রধান প্রতিবেদক ও হেড অব নিউজ হিসেবে কাজ করেছেন।

পরিবার ও স্বজনরা জানান, তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই দাঁতের ব্যথায় ভুগছিলেন, সঙ্গে জ্বর ও কাশি ছিল। সোমবার থেকে শুরু হয় তার শ্বাসকষ্ট। এরপর মঙ্গলবার বিকাল নাগাদ অবস্থার অবনতি হলে তাকে রিজেন্ট হাসপাতালে নেওয়া হয়।

হুমায়ুন কবীর খোকনের মৃত্যুর বিষয়ে দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান বলেন, বিকালের দিকে খবর পাই, খোকনের শারীরিক অবস্থা খারাপ। এরপর উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে যোগাযোগ করে অ্যাম্বুলেন্স ও আইসিইউর ব্যবস্থা করা হয়। রাত ৮টার দিকে তাকে হাসপাতালে নিয়েই আইসিইউতে নেওয়া হয়। তবে সব চেষ্টা ব্যর্থ করে খোকন চলে যায়।

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ বলেন, ইফতারের পর পর উনাকে (হুমায়ুন কবীর খোকন) হাসপাতালে আনা হয়। পরিবার থেকে জানানো হয়, এর আগে উনারা দুই হাসপাতাল ঘুরে এসেছেন। যে অ্যাম্বুলেন্সে করে উনাকে আনা হয়, সেখানে অক্সিজেনের কোনও ব্যবস্থা ছিল না। অথচ উনার প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। হাসপাতালে আনার পর আমাদের আসলে কিছু করার ছিল না। অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। ৯টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। মৃত্যুর কিছু সময় আগে, করোনা পরীক্ষার জন্য সাংবাদিক খোকনের নাকের সোয়াপ সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

হুমায়ুন কবির খোকনের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর। তিনি ঢাকাস্থ কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি ছিলেন। তিনি দৈনিক আমাদের সময় ও আমাদের অর্থনীতির প্রধান প্রতিবেদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।