‘দ্য হান্ড্রেড’ ক্রিকেট খেলবেন না ডেভিড ওয়ার্নার

প্রকাশিত

খেলাধুলা ডেস্ক: এবারই শুরু হওয়ার কথা ব্যতিক্রমধর্মী টুর্নামেন্টটির। যেকোনো টুর্নামেন্টের প্রথম আসর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বৈশ্বিক দর্শকের কাছে প্রথম মৌসুমেই সেই টুর্নামেন্ট সম্পর্কে একটা ধারণা চলে যায়—কে কে খেলতে আসছেন, কে কেমন খেলছেন ইত্যাদি। সে হিসাবে ডেভিড ওয়ার্নারকে খেলতে রাজি করিয়ে সাধারণ ক্রিকেটপাগল মানুষের আকর্ষণ করার একটা ক্ষেত্র প্রস্তুত করেছিল ‘দ্য হান্ড্রেড’ টুর্নামেন্টটি। কিন্তু বিধি বাম। ওয়ার্নার জানিয়ে দিয়েছেন, এই অবস্থায় টুর্নামেন্ট খেলা সম্ভব হবে না তাঁর পক্ষে।

এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সাউদাম্পটনভিত্তিক ফ্র্যাঞ্চাইজি দল সাউদার্ন ব্রেভ। তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজিরই ‘পোস্টার বয়’ ছিলেন ওয়ার্নার। সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকে ওয়ার্নারকে দলে ভিড়িয়েছিল তারা।

আপাতত করোনাভাইরাসের জন্য এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওয়ার্নার, এমনটা মনে হলেও তাঁর ব্যবস্থাপক জেমস এর্সকিন সেটা মানতে রাজি হননি। ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টটি হওয়ার কথা আগামী ১৭ জুলাই থেকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। আগস্টে আবার নিজেদের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া। সে সিরিজে খেলতে চাইলে ‘দ্য হান্ড্রেড’-এ খেলা হবে না ওয়ার্নারের। তার আগেভাগে নিজেকে ‘মুক্ত’ করে রাখছেন এই ওপেনার।যদিও করোনাভাইরাসের কারণে দুটি টুর্নামেন্টের একটিও হবে কি না, সে নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহের অবকাশ আছে।

প্রায় আড়াই লাখ ডলার পারিশ্রমিকে ওয়ার্নারকে এই টুর্নামেন্টের জন্য দলে নিয়েছিল সাউদার্ন ব্রেভ। ওয়ার্নারের জায়গায় আরেক অস্ট্রেলীয় তারকা মার্কাস স্টয়নিসকে দলে নেওয়ার কথা জানিয়েছে দলটি। ওয়ার্নার ছাড়াও এই টুর্নামেন্টে নাম লিখিয়েছিলেন স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, নাথান কোল্টার-নাইল, ডার্চি শর্ট, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ান, অ্যাডাম জাম্পা, ক্রিস লিন, অ্যারন ফিঞ্চের মতো অস্ট্রেলীয় তারকারা। তবে তাঁরাও জিম্বাবুয়ে সিরিজের কথা মাথায় রেখে এই টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়াবেন কি না, এখনো জানা যায়নি।