নগরবাসী জামায়াত-বিএনপি’র ডাকা অবৈধ হরতাল প্রত্যাখান করেছে: ওলামা লীগ

প্রকাশিত

এওয়ান নিউজ: আজ ২রা ফেব্রুয়ারি ২০২০ রবিবার সকালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কার্যালয় ও জাতীয় প্রেসক্লাব সম্মুখে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে অনুষ্ঠিত অবাধ, নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছ নির্বাচনকে নিয়ে দেশে অস্থিতিশীল ও নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করার চক্রান্তে জামায়াত-বিএনপি’র ডাকা হরতালের প্রতিবাদে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের প্রতিবাদ সভা ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের আহ্বায়ক মুফতি মো. শেখ শহিদুল ইসলাম। পরিচালনা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের সদস্য সচিব মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী। বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুল আলিম আজাদী, হাফেজ মাওলানা সুলাইমান, ক্বারী মাওলানা আসাদুজ্জামান, হাফেজ মাওলানা আনোয়ার হোসেন জুয়েল, মুফতি আলমগীর হোসাইন, হাফেজ মাওলানা আখতার হোসেন, হাফেজ হাফিজুর রহমান, মাওলানা কাজী তাজুল ইসলাম, মাওলানা ফরিদ হোসেন, হাফেজ মাওলানা রবিউল আলম সিদ্দিকী প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, নগরবাসী জামায়াত-বিএনপি’র ডাকা অবৈধ হরতাল প্রত্যাখান করেছে। রাস্তায় সকল ধরনের পরিবহন চলছে। শ্রমজীবী মানুষ তাদের কর্মস্থানে যোগদান করেছে। এতেই প্রতীয়মান হয় গণমানুষ কর্তৃক এই অবৈধ হরতাল প্রত্যাখিত হয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত জাতীয় এবং স্থানীয় যে নির্বাচনগুলো অনুষ্ঠিত হয়েছে তার মধ্যে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের সিটি নির্বাচন একটি দৃষ্টান্ত। এমন অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন ইতিমধ্যেই আর হয়নি। মানুষ যখন বিজয়ের আনন্দে উল্লসিত ঠিক তখনই জামায়াত-বিএনপি নৈরাজ্য সৃষ্টির উদ্দেশ্যে হরতাল ডেকে জনগণের রায়ের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করেছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতৃবৃন্দ রাজপথে থেকে এই হরতাল প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। বাংলাদেশে জামায়াত-বিএনপি’র কোন স্থান নেই। তারা জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন। সুতরাং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে ঢাকা মহানগরবাসী উত্তর-দক্ষিণে নৌকার পক্ষে রায় দিয়ে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তাতে দেশের চলমান উন্নয়ন আরো এগিয়ে যাবে বলে মনে করে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতৃবৃন্দ।