নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ বিএনপি’র রাজনৈতিক কৌশল: তাপস

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ বিএনপি’র রাজনৈতিক কৌশল বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর খিলগাঁও বাটার মোড়ে গণসং‌যোগের সময় তিনি এ মন্তব্য করেন।

তাপস ব‌লেন, আমি মনে করি আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের মাধ্যমে ঢাকাবাসী তাদের সেবককে খুঁজে নিবে। আমরা ঢাকাকে সবুজ-শ্যামল ঢাকা হিসেবে আবারো দেখতে চাই। এক প্রশ্নের জবা‌বে তিনি ব‌লেন, বায়ু দূষণ যা‌তে রোধ করা যায় এবং সুন্দর ঢাকা গড়ার মাধ্যমে বিদ্যমান সমস্যা থেকে মুক্ত করতে আমরা কাজ করব।

তিনি আরো বলেন, যারা ফুটপাতে ব্যবসা করেন তারা কিন্তু আসলে শোষিত। আমরা তাদেরকে পর্যায়ক্রমে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করব। তাদের পুনর্বাসনে আগে অনেক কথা বলা হয়েছিল কিন্তু কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। অপর এক প্রশ্নের জবা‌বে তাপস বলেন, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা যতদিন থাকবে ততদিন অভিযোগ হতে থাকবে। আচরণবিধি লঙ্ঘনের কোনো লক্ষণ আমি দেখছি না। এটা তাদের রাজনৈতিক কৌশল।

একই সময় তি‌নি ব‌লেন, নতুন যেসব ওয়ার্ড ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাথে যুক্ত হয়েছে সেখানে আমরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করব। নিবাচ‌নী ইশ‌তেহা‌রের বিষ‌য়ে তাপস ব‌লেন, অল্প কয়েকদিনের মধ্যেই আমরা পূর্ণাঙ্গ নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করতে পারব। সে বিষয়ে গঠিত কমিটি কাজ করছে।

তিনি বলেন, আপনারা লক্ষ্য করেছেন আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী এই নির্বাচনকে দেশের উন্নয়নের জন্য নয়, সমস্যা লাঘবের জন্য নয়, তারা বারবার বলছে এবারের নির্বাচন তাদের নেত্রীকে মুক্ত করার আন্দোলনের নির্বাচন। আমি মনে করি না ঢাকাবাসী সেটা গ্রহণ করবে।

তি‌নি আরো ব‌লেন, তারা নতুন অভিযোগে ইভিএমের কথা বলছে। আমি মনে করি এই আধুনিক প্রযুক্তি ঢাকাবাসী সাদরে গ্রহণ করেছে। এর আগে সোমবার সকাল থেকে খিলগাও বাটার মোড় এলাকায় জড়ো হতে থাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, যুব ম‌হিলা লীগ, ছাত্রলীগসহ দলটির সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। মিছিল ও নানা স্লোগানে মুখর করে তুলে আশপাশের এলাকা।

error0