নীলফামারীতে বিভিন্ন চোরাই মালামাল সহ আন্তঃজেলা চোর গ্রেফতার

প্রকাশিত

নীলফামারী প্রতিনিধি: চোরাই মালামাল সহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্য মীর আলম(৩০)নামের একজনকে গ্রেফতার করেছেন সদর থানা পুলিশ।গ্রেফতারকৃতকে মঙ্গলবার(৭ এপ্রিল)দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এর আগে সোমবার(৬এপ্রিল)রাতে সদরের সদরের সংগলশী ইউনিয়নের বোছাপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে একই গ্রামের মৃত, শামসুল ইসলামের ছেলে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, সদরের সংগলশী ইউনিয়নের উত্তরা ইপিজেড হাজীপাড়া ময়দানের পার এলাকায় মিজানুর রহমানের ক্রোকারিজের দোকানে রক্ষিত মালামাল সোমবার সন্ধ্যায় চুরি যায়। এ ঘটনায় মিজানুর রহমান থানায় মামলা করলে রাতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই হারিছুর রহমান সুজন সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে মালামাল সহ ওই চোরের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন।

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য আনুমানিক ৬৫ হাজার টাকা বলে ধারনা করা হচ্ছে। অন্যদিকে চুরি যাওয়া মালামালের মধ্যে রয়েছে ম্যাজিক চুলা একটি, রাইস কুকার তিনটি, সিঙ্গেল বার্নারের গ্যাসের চুলা পাঁচটি, ডাবল বার্নার গ্যাসের চুলা পাঁচটি ও দুইশো কেজি চালের বস্তা। নীলফামারী থানার ওসি (তদন্ত) মাহমুদ-উন-নবী জানান, আসামী মীর আলম আন্তঃজেলা চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে নীলফামারী ও দিনাজপুর থানায় একাধিক চুরি ও প্রতারণার মামলা রয়েছে।