পাইকগাছা উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির বিশেষ জরুরী সভা

প্রকাশিত

আমিনুল ইসলাম বজলু, পাইকগাছা (খুলনা) ঃ পাইকগাছা উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির বিশেষ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জুলিয়া সুকায়নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আরাফাতুল আলম, সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন তানজীব আহসান সাদ, ওসি এজাজ শফী।

উপস্থিত ছিলেন, ইউপি চেয়ারম্যান জোয়াদুর রসুল বাবু, এসএম এনামুল হক, রুহুল আমিন বিশ্বাস, আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ গোলদার, কওছার আলী জোয়াদ্দার, গাজী জুনায়েদুর রহমান, চিত্তরঞ্জন মন্ডল, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ বিষ্ণুপদ বিশ্বাস, কৃষি কর্মকর্তা এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস, সমাজসেবা কর্মকর্তা সরদার আলী আহসান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস, সহকারী প্রোগ্রামার মৃদুল কান্তি দাশ, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আছাদুজ্জামান, মিজানুর রহমান ও দেবাশীষ।

সভায় করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ত্রাণ বিতরণ, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বিকাল ৫টা পর্যন্ত খোলা রাখা, ঔষধের দোকান সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা রাখা এবং এরপর ঔষধ ব্যবসায়ী সমিতির সিদ্ধান্ত মোতাবেক প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ বাজারে ২টি করে দোকান খোলা রাখা, বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের ব্যাপারে চেয়ারম্যান ও মেম্বরদের সক্রীয় ভূমিকা রাখা, করোনা ও ত্রাণ বিতরণ সংক্রান্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অপপ্রচার বন্ধ ও সংশ্লিষ্ট সকলের দায়িত্বশীল ও কার্যকর ভূমিকা রাখার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, সেনাবাহিনীর ভয়ে নিজেকে আড়াল করা নয়, করোনা সংক্রমণের সংখ্যা যেভাবে বেড়ে চলেছে এখনই যদি আমরা সচেতন না হই তাহলে পরবর্তীতে দেশের সেনাবাহিনীকে মাঠে নামালেও কোন কাজ হবে না। এ জন্য সেনাবাহিনীর ভয়ে নয়, করোনা আতঙ্কে ভীতু হয়ে আমাদের সবাইকে এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। এ লড়াইয়ের অন্যতম হাতিয়ার হচ্ছে সচেতনতা। সচেতনতাই পারে করোনা থেকে আমাদের সবাইকে মুক্ত রাখতে।